চিলাহাটি ওয়েব ডট কম |

ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনের মৃত্যুদন্ড

Posted by Chilahati Web | Wednesday, November 22, 2017 | Posted in

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় গাইবান্ধার সাবেক সংসদ সদস্য আবু সালেহ মো. আব্দুল আজিজ মিয়া ওরফে ঘোড়ামারা আজিজসহ ছয় জনকে মৃত্যুদন্ড দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।
তাদের বিরুদ্ধে থাকা তিনটি অভিযোগের দ্বিতীয় ও তৃতীয় অভিযোগে মৃত্যুদন্ড দেওয়া হয়েছে। আর প্রথম অভিযোগে আমৃত্যু কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে।
বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বাধীন তিন সদস্যের ট্রাইব্যুনাল বুধবার এই রায় দেন। এর আগে সকালে সাড়ে ১০টার পর ১৬৬ পৃষ্ঠার রায় পড়া শুরু করেন ট্রাইব্যুনাল। ২০১০ সালে ট্রাইব্যুনাল গঠনের পর এখন পর্যন্ত ২৮টি মামলার রায় ঘোষণা করা হয়েছে। এটা ট্রাইব্যুনালের ২৯তম রায়।
আজিজ ছাড়া বাকি আসামিরা হলো, রুহুল আমিন ওরফে মঞ্জু (৬১), আব্দুল লতিফ (৬১), আবু মুসলিম মোহাম্মদ আলী (৫৯), নাজমুল হুদা (৬০) ও আব্দুর রহিম মিঞা (৬২)। আসামিদের মধ্যে লতিফ ছাড়া সবাই পলাতক।
জামায়াতের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আজিজ মিয়া ২০০১-২০০৬ সাল পর্যন্ত চার দলীয় জোটের অধীনে গাইবান্ধা সুন্দরগঞ্জ-১ আসনে সংসদ সদস্য ছিলেন। বাকিদের মধ্যে রুহুল আমিন ওরফে মঞ্জু (৬১) জামায়াতের সুন্দরগঞ্জ থানা শাখার সক্রিয় সদস্য, আব্দুল লতিফ জামায়াতে ইসলামীর সক্রিয় কর্মী এবং সুন্দরগঞ্জ উপজেলা পর্যায়ের নেতা, আবু মুসলিম মোহাম্মদ আলী মুক্তিযুদ্ধের আগে জামায়াতের ছাত্র সংগঠন ইসলামী ছাত্র সংঘের সক্রিয় নেতা ছিলেন। বাকিরাও বিভিন্ন সময়ে জামায়াতের সক্রিয় রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন।
অভিযোগ তিনটি হলো-
অভিযোগ-১ : ১৯৭১ সালের ৯ অক্টোবর সকাল আনুমানিক ৮টার দিকে আসামিরা পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর ২৫/৩০ সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে গাইবান্ধা জেলার সদর থানাধীন মৌজামালি বাড়ি গ্রামে হামলা চালিয়ে চার জন নিরীহ, নিরস্ত্র স্বাধীনতার পক্ষের মানুষকে আটক, নির্যাতন ও অপহরণ করে দাড়িয়াপুর ব্রিজে নিয়ে যায়। সেখানে গণেশ চন্দ্র বর্মন নাম একজনের হাত-পা বেঁধে নদীতে ফেলে দিয়ে তাকে হত্যা করে এবং ৩ জনকে ছেড়ে দেয়। এরপর আসামিরা আটককৃতদের বাড়ির মালামাল লুট করে।
অভিযোগ-২ : ১৯৭১ সালের ৯ অক্টোবর বিকাল আনুমানিক ৪টার দিকে আসামিরা গাইবান্ধার মাঠেরহাট থেকে ছাত্রলীগের নেতা বয়েজ উদ্দিনকে আটক করে মাঠেরহাটের রাজাকার ক্যাম্পে নিয়ে নির্যাতন করে। পরের দিন সকালে তাকে সুন্দরগঞ্জ থানা সদরের পাকিস্তান সেনাবাহিনীর ক্যাম্পে নিয়ে যায় এবং ৩ দিন আটকে রেখে নির্যাতন করার পর ১৩ অক্টোবর বিকালে গুলি করে হত্যা করে লাশ মাটি চাপা দেয়।
অভিযোগ-৩ : ১৯৭১ সালের ১০ অক্টোবর থেকে ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত আসামিরা পাকিস্তান সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় গাইবান্ধা জেলার সুন্দরগঞ্জ থানাধীন ৫টি ইউনিয়নের নিরীহ, নিরস্ত্র স্বাধীনতার পক্ষের ১৩ জন চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অবৈধভাবে আটক ও ৩ দিন ধরে নির্যাতন করে। এরপর তাদেরকে নদীর ধারে নিয়ে গুলি করে হত্যা করে লাশগুলো মাটি চাপা দেয়।

সৈয়দপুরে ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা

Posted by Chilahati Web | | Posted in

নীলফামারীর সৈয়দপুরে আজ বুধবার বিকেলে ওজনে কম দেয়ায় একটি মিস্টির দোকানে ২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। সৈয়দপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পরিমল রায় এ আদেশ দেন।
জানা যায়, শহরের শহীদ ডা: জিকরুল হক রোডের দিলশাদ মিস্টি দোকানে দীর্ঘদিন যাবত ওজনে কম দেয়া হচ্ছিল। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনের নজরে আসায় এ অভিযান চালানো হয়।



সৈয়দপুরে পুলিশের অভিযানে আটক ২

Posted by Chilahati Web | | Posted in

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর সৈয়দপুরে পুলিশের বিশেষ অভিযানে দুই ব্যক্তিকে বিভিন্ন অভিযোগে আটক করা হয়েছে।
গতকাল মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) সন্ধায় ৩০ পিচ ইয়াবাসহ আলম নামে এক ব্যক্তিকে শহরের হাতিখানা থেকে আটক করা হয়। বুধবার (২২ নভেম্বর) ভোরে বিভিন্ন মামলার আসামী মমতাজকে পাবর্তীপুর রোড থেকে মটর সাইকেল সহ আটক করা হয়। সৈয়দপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান এ তথ্য নিশ্চিত করে জানান, মাদক ও চোরা কারবারীদের ধরতে নিয়মিত অভিযান চালানো হচ্ছে।

জলঢাকায় বিএনপি’র সদস্য নবায়ন ও সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন

Posted by News Editor | | Posted in

মনিরুজ্জামান লেবু,নীলফামারী প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তত্বাবধায়ক বা সহায়ক সরকার ছাড়া শেখ হাসিনার অধীনে নির্বাচনে যাবে না বিএনপি নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলা ও পৌর শাখার আয়োজনে পৃথক পৃথক সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন রংপুর বিভাগীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব সামসুজ্জামান জামান । তিনি আরোও বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় থেকে নির্বাচন দিলে বাংলাদেশের জনগন তা মেনে নিবে না।
 বিএনপিকে সুসংগঠিত করার লক্ষে রোববার রাতে পৌর শহরের পেট্রোল পাম্প এলাকায় পৌর বিএনপির সভাপতি আহমেদ সাঈদ চৌধুরী ডিডু'র সভাপতিত্বে সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। 
এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, নীলফামারী পৌর বিএনপির সভাপতি জহুরুল ইসলাম, জলঢাকা উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও পৌর মেয়র ফাহমিদ ফয়সাল কমেট চৌধুরী, নীলফামারী পৌর সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মাহবুবর রহমান, জেলা দপ্তর সম্পাদক সাইফুল্লাহ, জলঢাকা পৌর সম্পাদক ময়নুল ইসলাম, উপজেলা সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিনুর রহমান বিএসসি বিএনপি নেতা হামিদুর রহমান যুবদল নেতা হাফিজুর রহমান প্রমুখ। 
অপরদিকে উপজেলা বিএনপির আয়োজনে মীরগঞ্জহাট বাজারে মীরগঞ্জ ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মাহাবুবার রহমান বিটুর সভাপতিত্বে উপজেলা বিএনপির সদস্য সংগ্রহ ও নবায়ন কার্য্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়।

চিরিরবন্দরে এনডিএফ এর পাড়া ভিত্তিক দলের বার্ষিক সাধারণ সভা

Posted by News Editor | | Posted in

দেলোয়ার হোসেন বাদশা. চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে এনডিএফ এর পাড়া ভিত্তিক দলসমূহের বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
 সোমবার সকালে নর্দান ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন (এনডিএফ) কার্যালয়ে উপজেলা আদিবাসী ফেডারেশন ও গ্রাম উন্নয়ন পরিষদের আয়োজনে ও এনডিএফ চিরিরবন্দর শাখার সহযোগিতায় এ বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। 
এনডিএফ এর সভাপতি নির্মল সরেনের সভাপতিত্বে বার্ষিক সাধারণ সভায় উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মঞ্জুরুল হক, ৯নং ভিয়াইল ইউপি চেয়ারম্যান নরেন্দ্র নাথ রায়, ৬নং অমরপুর ইউপি চেয়ারম্যান হেলাল সরকার, এনডিএফ দিনাজপুরের অডিট অফিসার সত্যেন্দ্র নাথ রায় চিরিরবন্দর শাখার ইউনিট ম্যানেজার আব্দুস সামাদ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠানে উপজেলার ৬ ইউনিয়নের ৩০ গ্রামের ৮৫টি দলের তিন শতাধিক সদস্য ও সদস্যা উপস্থিত ছিলেন।

নীলিমা শামীম এর একগুচ্ছ কবিতা

Posted by Bulu 48pbt | Tuesday, November 21, 2017 | Posted in
























শীতের নীলিমায় 
 ॥ নীলিমা শামীম ॥ 

 হে বসন্তের ক্ষনিক আগে তুমি এসেছিলে মোর এই ধরনীকুলে 
মায়ের কোল জুড়ে ছয় ঋতুর এই স্বপ্নিল প্রান্তরে বসন্ত ছুলে 
শিউলী,কামিনী ফুলের কলি করে আজি শীত ছুই ছুই বায়ে
এনেছিলে বকুল ফুলের পাঁপড়ী হয়ে হিমেল হাওয়ায় দোলে 
 এসেছিলাম গন্ধরাজ ফুলের সুভাস হয়ে রমনীর সুগ্রানে 
 হেসেছিল ঝরা পাতার মুরমুরী শব্দ হয়ে মায়্রের আংগিনায় 
 বাবার চোখের মনি তুমি আলোকিত সারা ঘর ও বাড়িময়।
 অনাবিল শীতের পৃর্বাভাস হয়ে প্রেয়সীর ফুলসজ্জায় ছড়ায় 
 আজি কার্তিক ও অগ্রহায়ণের অভিভাবক হয়ে বিশালাকায় 
এসেছি ধানের শীষের স্বার্নালী রং হয়ে গ্রাম্য কুলবধুর লালিমায় 
 দাদা দাদী বলেছিল কৃষকের স্বপ্ন হয়ে কৃষানীর স্বপ্ন সুখের গোলায় 
 নানা নানি স্বপ্ন নবান্ন হয়ে গৃহস্তীর আনন্দ উল্ল্যাসের আমি নাকি সহায় 
 হে হেমন্ত তুমি এসেছ নবান্নের আমন্ত্রীত জামাই হয়ে শুন্য বুকে
মা হারা এই অশান্ত বুকে শান্তনার পশরা সাজানো গালিচায় 
এসেছি নবান্নের মেয়ে সেজে বাপের বাড়ী নাইওরী হয়ে ষরঋতুর চতুর্থ ঋতু হয়ে।
আমার আসাতে নাকি আকাশের মেঘ গুলি নীলের প্রান্ত ছুয়েছিল 
মাঝে হারিয়ে গেছে লাজে দূর দিগন্তের মাধুরি মেখে এই বাংলাকে 
সাজিয়েছি কতো না অপৃর্ব সাঝে, কতো না রুপ খোঁজে পাই হে হেমন্ত
 তোমারই মাঝে আজো তাই তোমায় বারে বারে খুজে বেড়ায়।।


 একাকীত্বে! 
------------

 অশ্রু জড়ালাম দুচোখের নেশায় ফুলদিলাম ভালোবাসায়,
 পরশ পাথরের হৃদয় মাঝে পেলাম না এতটুকু ঠাই।
কাঁদতে পারি না চোখের জল জমে হয়ে গেছে পাথর,
হাসিলেই তোমার কথা মনে পড়ে বুকে বাড়ে দুখের অঝর।

স্পন্ধনে মনে হয় অনেক টা ভেংগে পড়েছি পেয়ে মনে ব্যথা,
আমি বলবো কার নিকট জীবনের এই কষ্টের কথা ।
জীবন নয় যে যেনো কোন মণোহারি দোকানের পণ্য
ইচ্ছে করলেই কি পারা যায় ফেলে দিতে ভেবে নগণ্য ।

 ভালো লাগা ভালোবাসা যায় না কোন দরে বেচাকেনা
সুখের স্বর্গ পতিত হয় মিথ্যে ছলনায় করলে প্রতারণা ।
তুমি আছো ভাবলে মনে বাড়ে আরো ভালোবাসার জোর
তুমিহীনা নিজেকে ভাবতে হয় অন্ধকার রাত শেষে বিষাদ্বের ভোর।

ভেবে দেখছো কি জীবন নিয়ে কেমন খেলেছো পুতুল…খেলা ?
দিন যায় কথায় থেকে রাত যায় নির্জন নির্ঘুম একাকীত্বের হেলা
এমন কষ্টের নীল দরিয়ায় আমায় কেনগো এইভাবে ভাসালে ?
তোমার জীবন সাথী না বানিয়ে আমায় অকুলে কেনোগো হারালে?
সুখে থাকো দুখে থাকো আছো তোমার ভালোবাসার নীড়ে
কোন দিন খুজিতে যাবো না কোনো কষ্টের ভীড়ে ।
চোখের জলে কাঁদতে কাঁদতে হারিয়ে যাবে একদিন অভিমানি মন নিরবে,
তুমি যেখানেই থাকো ভালোবাসা রেখে গেলাম হৃদয়ের গৌরবে।।


দ্বিধা-দন্দ 
----------
 কোন স্বপ্ন সুখের নীড়ে তুমি ভুলে আছো মোরে
তুমি ভুলেও কখনো খুজে পাবেনা হায় আমারে।
 যত আশা আমার ছিলো সবি শুধুযে তোমায় ঘিরে
আমি এই অন্ধকারে খুজে খুজে মরি ওগো শুধু তোমারে 
 বুকের পাজর ছিরে দেখো, খুব যতনে রেখেছি তোমারে
আমি ভুলে গেছি সবি যত অপবাদ দিয়েছিলে আমারে।
 মনের গভীর থেকে এই দোয়া করি সুখে থাকো আমায় ছ্রেড়ে
ভালোবাসার এই মহানগরে ভিখারি হয়ে চাই বারে বারে।
 তুমি চলে গিয়েও যদি ভুলে যেতে পারো নাই কোনো দ্বিধারে 
ভুল হলো সবি আজি যে ভুল তুমি করলে আমায় অনাদরে।
 প্রেম করা ছিলো যত ভুল, তুমি তা কভু ও বুঝবেনা জানি
কোন অপরাধে অপরাধী হয়তো ছিলো এই বন্ধনে তাও মানি।


নেই আর সেই অনুভুতি 
--------------------
 জানো সখা এখন আগের মত নেই অনুভুতি
যখন ছিলে সখা সেই প্রিয়তম অজানা অভিভুতি
ভাবো কি এখনো ভালোবাসা রয়েছে তোমার প্রতি
 ভুলে গেছি রেখেছিলাম স্তরে স্তরে যত ভালোলাগা স্মৃতি।
 তোমার আলিঙ্গন ভুলেছি হলো আজ বছর তিনেক যাবৎ
 ভুলের মাসুল দিতেই জড়ালাম মিছে আশার ভাবনায় তরিৎ
আপন ভেবেই খুশিতে ভরেছিলাম তোমায় হাত দু'খানি পূর্ণ
ভিক্ষার সুখে সুখী হয়ে আত্ন গৌরবে করলে আমায় আজ শুন্য।
 কষ্ট পেলে তুমি, ভাবনায় মরি আমি তারি, কিভাবো বুঝাই তোমাই
দিনে -রাতে এখন আমি বিধাতার কাছে তোমার জন্য সুখ শুধু চাই
সপরিবারে বড়ই সুখি আছি সফলতার সহিত হয়েছি আমি পরিপূর্ণ
বিধাতা চাইলে কেবা পারে কাউকে কোনো ভাবে রাখিতে অসম্পূর্ণ।
 বিরহের কথার ঝুড়ি তোর কথাতেই সকাল বিকাল সন্ধ্যা যেতাম ভুলে
তোর খেয়ালে বসে থাকতাম তোর দেখা না পেলে।
 যখন থেকে তুই হারালি আমার জীবন থেকে 
আমার আকাশ কালো মেঘে রইল শুধুই ঢেকে।
 তোর কথাতেই হেসে খেলে ছিলাম বড্ড সুখে
অমাবস্যার কালো ছোবল কেনো জানি মারলি তুই এই বুকে।
 আঁধার রাতের মতই এখন সকাল দুপুর বিকাল আমার কাছে
পূর্ণিমার আলোয় ভাসি শুধুই জ্যোস্নার রাতের চাঁদনী হেসে। 
 তোর কথাতে আমার সুপ্ত মনে ফুল গুলো সব ফোটে,
তোর কথাতেই অভিমানের পাপড়ি গুলো ঝড়ে অবশেষে।
 তোর অবজ্ঞায় আজ আকাশে তারা জ্বলে আর নিভে
কি ভাবনায় কাদি আমি, তোর বিরহে আছি বেশ হিসেবে।।
 এখন জানি আমার জন্য নেই কিছু তোর আগের মত ভাবনা
এখন তুই ভালোবাসিস পাশের বাড়ীর ওই নীলাকাশি সুকন্যা।।

 সুপার মুন 
-------------
আজ নেমে এসেছে পৃথিবীর বুকে
 সকলের মনে জেগেছে রংগের মাখা মাখি।
স্বপ্ন জেগে হল আজ ভাললাগার ভরা পূর্ণিমা!
 পরিপূর্ণ আজ চাঁদেরকণা ভরেছে কুমারী কন্যা
 ছড়ানো জুৎস্না গুলো মিট মিট করে হাসছে!
নীলিমার নীল আকাশ তাই মধুপূর্ণতায় ভাসছে।
 কথা ছিল চাঁদের জোৎস্নায় দুজনায় রবো পাশে 
আসলে না তুমি আমি একাই আছি ছাদে বসে 
রাতটি পর করে দেবে আজ পুরোনো সব আশে। 
 গল্প শুনাবে বলে ভরা পূর্ণিমায় কই তুমি এলে 
 জোৎস্না গুলোকে সাক্ষী রেখে নিজেই হারিয়ে গেলে
তুমি কি সেই পূর্ণিমার রাতের মতই গেছো মোরে ভুলে।
 আজ চাঁদের মতো তুমিও যদি আসতে আমার কাছাকাছি
আমিও না হয় সবি ভুলে থাকতাম শুধুই তোমার পাশাপাশি
ফাকি দিয়ে গেলে চলে তুমি সেই না ফেরার দূর প্রদেশে।।

 কস্তুরি 
---------
 কস্তুরি, মোহিয়সী, আমার হৃদয়ের রানী,
অসীম ভালোবাসা তুমি কবিতা আমার,
তোমার রাজত্ব হলো চূর্ণ তুমিহীনা আমি অপুণ্য । 
হে প্রানপ্রিয়া আমার সন্তানের গর্ভধারিণী/ 
আমার রাজ্যের ভবিষ্যৎ রাজ মাতা মনোহরিনী।
ভালোবাসার জল মহল তুমি এই বুকের পাজরে
তোমার রং মহল গড়েছি কাননে কাননে
জলসা ঘরের আলোক সজ্জা তুমি প্রিয়তমা।
ছিলে কভু পিপাসিত জলসার রজকীনি 
আমার রাজত্যে হয়েছিলো তোমাতে বিলীন,
ত্যাগীলে নিজেরে সঁপিলে এই পদতলে মহিমা
মিশে আছো মোর অন্তরের অন্তস্থলে বুক পাজরে।
থাকবে অনন্ত কাল থাকো যখনি যেই ক্ষনে যার সনে,
দুচোখের স্বপ্ন তুমি আমার অনন্যা, অনামিকা, সুরঞ্জনা,
কি নামে হও আপ্লুত তুমি সুধুরীকা মোর মল্লিকা।


 বৃষ্টি ভেজা আকাশ 
--------------------
 আজ আকাশটা ভীষন মেঘাচ্ছন্ন ও বেশ Õ/ 
 সকাল টাও স্তব্দ হয়ে আছে, ফুরসত নেই রেশ...! 
 কাল ছিলো বৃষ্টি ভেজা, আজ কিছুটা শীত,
সকলি স্রষ্টার লিলা, ইহাই ধরার ঋত,,,,,,। 
 হেমন্তে প্রকৃতির এমন নিঠুর বৈরিতা,,,,,
ভোগান্তিতে উপকুলবাসী রেডিওতে সতর্কতা,। 
 শীত বৃষ্টি হিমেল হাওয়ায় কষ্ট যতই বাড়ে---
তবুও মন ছুটে চলে জীবন নদীর পাড়ে,,,,,,,,।
 দিন ভর এমন বাদলও ধারায়---------
শান্তির পরশ গাছপালা ও সবুজ পাতায়,,,,।
 সকলি তাঁর মহিমা শীত বৃষ্টি কিংবা খরা---
 বিপদসংকেত দিয়েছিল যা তা হলো আজ সারা....
 কে জানে তার মহিমা তিনিই সকল কিছুর প্রতিষ্টিয়া---
হে প্রভূ ভালো রেখো আমাদের তুমি এক ও অদ্বিতীয়া..।

 শরমে মরে ছুঁইলে
-------------------
 লজ্জাবতি নাম তাহার দেখিতে ক্ষুদ্র।
 লোকের ছোয়া পেলে অমনি মাটিতে লুটায়
কি এমন কারন আমি জানিতে চাই 
 সামান্য স্পর্শতায় লজ্জা কেন পাও ?
 দেখিতে থাকিলে সে নাহি নুয়ে মাথা 
এত টুকুন টোকা দিলে চোখ বুঝায় পাতা
চট্টগ্রামের ভাষায় তারে শরমিন্দা লতা কয়
বইয়ের ভাষায় সকলে লজ্জাবতী নামে সুধায়।
 মনির মত হয়ে যদি ফনা দিতে দেখিয়ে 
বিষাক্ত ছোবলে জানি মানব যেতো হারিয়ে 
ক্ষনিক পরেই দেখি আবার চোখ মেলে চাও 
যাচ্ছি চলে, ফিরবো-না আর তাকাতে যদি তাও।
 অনেক ঘাসের মাঝে তুমি তাকিয়ে থাকো বেশ ,
একটু নাড়া দিলেই তোমার আসে কেন আবেশ ?
তোমার মাঝে এতো লজ্জা মানব জাতির হার ,
পারো যদি একটু দিতে সকল মানুষকে ধার ! 
 মানুষের মাঝে লজ্জার ধার নাহি আজি আর/
 লতা পাতার মাঝে থাকিয়া লজ্জা হলো ভার
লজ্জাবতী পাতা তুমি মানব লজ্জাহীনা
কিছু লজ্জা নিতে পারো তুমি নির্দ্বিধায়। 

 সখা প্রিয় সই একি সুতোয় বেধে রই
-------------------------------------
হে সখা , হে প্রিয় 
দাও দাও দাও -
আঁখি কোণে জল ভরে এলো 
একবার ফিরে চাও

 বাজিয়ে বাশি এই বিজনে 
আজ এ মধুর ক্ষণে -
স্মৃতিটুকু শুধু রেখে দিও সখা, প্রিয় 
তব হৃদের কোণে ।

 নিয়তির ডাকে পাতা ঝরে যায়
সকল শূন্য করে ,
হয়তো সে পাতা ফিরে আসে ওই
প্রকৃতির কোল ভরে ।

 রাতের কান্না ঝরে যায় ভোরে শিশিরের 
সবুজ ঘাসে ঘাসে -
দু'হাতে কুড়িয়ে রেখে দিও সখা ও প্রিয় 
সইয়ের ভালোবাসার আশ্বাসে ।

 রাতের আকাশে খুঁজে নিও তারা 
হে সখা, হে প্রিয় খুজিও বৃন্দাবনে 
খোঁজো প্রিয় মোরে কোনো সমিরনে 
জানি না আর , আসব কি ফিরে
নতুন কোনো ভোরে ।
 শুধু জানি প্রিয় , দাও গোলাপের ডালি 
শেষ হয়ে গেছে খেয়া পাড়ের মালি 
বিদায়ের সুরে ভাসিয়ে দিলাম
অজানা নদীতে ভেলা ।

 আজি ভুলিব ভাবনা 
------------------

 আজি ভুলিব ভাবনা তোমারি,
 তোমাতে, আমাতে মিশে 
যতো কথা বলেছিলে তুমি
মনে রাখিনি কিছুই আমি 
অবসরে এসেছিলে, মনের মাধুরী ঢেলে 
জানতাম চলে যাবে তাই 
স্মৃতি করে মেমোরিতে রাখিনি। 
 গুড়ো গুড়ো কাচ দিয়ে তোমার ছবি 
রাখিনি বাঁধাই করে কোন স্মৃতি,
ভীতি ছিলো কেটে যাবে
ঢেকে যাবে রক্তের রঙে, 
তাই ভালোবাসিনি।।
 ছোট ছোট অন্তু দিয়ে বানিয়েছি বরনিল মেঘ
বৃষ্টির কনাতে শিলা বানিয়ে গড়েছি তাজমহল।
লিখিনি প্রেমের কবিতা, চিতা তৈরি হবে জানি
আচমকা ভেঙ্গে দেবে বুক, স্মৃতিও রাখিনি।।
 শ্রীকান্তের গান গেয়েছিলে তুমি  
আমি কিছুই শুনিনি,
অযথা এসেছিলে তুমি,
 কিছুই তোমার নাই 
তাই হৃদয়ে বুনিনি।।

খানসামায় পিএসসি পরীক্ষার প্রথমদিনে অনুপস্থিত ২১১ জন

Posted by News Editor | Sunday, November 19, 2017 | Posted in

এস.এম.রকি, খানসামা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষার প্রথমদিনেই ঝড়ে পড়ল ২১১ জন শিক্ষার্থী। ১৯ নভেম্বর রবিবার সকালে অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় ৬ টি কেন্দ্রে ৪০১৭ জন পরীক্ষার্থী অংশ গ্রহণ করার কথা থাকলেও ২১১ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। তবে মেয়েদের তুলনায় ছেলেদের অনুপস্থিতি বেশি ছিল। খানসামা উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস সূত্রে জানাযায়, উপজেলার ৬টি কেন্দ্রে এবার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বালক ১৮০৭ জন ও বালিকা ১৯১৩ জন সহ মোট ৩৭২০ এবং মাদ্রাসার বালক ১৯৭ জন ও বালিকা ১০০ জন মোট ২৯৭ জন পরীক্ষার্থী ছিল। কিন্তু প্রাথমিকের বালক ১০৫ জন ও বালিকা ৫৭ জন সহ মোট ১৬২ জন এবং মাদ্রাসার বালক ২৮ জন ও বালিকা ২১ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। অনুপস্থিতির বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোঃ হাবিবুল ইসলাম ও সহকারী শিক্ষা অফিসার মোঃ মান্নান সাংবাদিকদের জানান, পারিবারিক সমস্যা, ভাল শিক্ষালাভের জন্য গ্রাম হতে শহরে প্রত্যাবর্তন করা, একই সাথে দুই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি, অনেকের প্রস্তুতি খারাপ থাকা এবং অভিভাবকদের সচেতনতার অভাবে আজকের এই অনুপস্থিতি।

বদরগঞ্জে রেলওয়ের ৭৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ

Posted by News Editor | | Posted in

আকাশ রহমান, বদরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : রংপুরের বদরগঞ্জে ঢোল-ঢাক পিটিয়ে রেলওয়ের ৭৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। গতকাল রবিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত রেলওয়ে স্টেশন চত্ত্বর থেকে ১কিলোমিটার এলাকার মধ্যে এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করে অবৈধ স্থাপনা, দোকানপাট ও বসতবাড়ী ভেঙ্গে দিয়ে ১৯০শতক সরকারী সম্পত্তি উদ্ধার করা হয়েছে। উচ্ছেদ অভিযানে অংশ নেন বাংলাদেশ রেলওয়ে লালমনিরহাট বিভাগীয় কর্মকর্তা, কর্মচারী এবং বাংলাদেশ রেলওয়ের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন মাষ্টার জানান, বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন চত্ত্বরের পুর্ব-পশ্চিম ২কিলোমিটার এবং উত্তর-দক্ষিণ দিকের শতশত একর সম্পত্তি ধীর্ঘদিন ধরে বেদখল রয়েছে। সরকারী সম্পত্তি পুরুদ্ধারের জন্য আমরা বাংলাদেশ রেলওয়ের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের দপ্তরে লিখিতভাবে অভিযোগ করার পর অবশেষে সামান্য কিছু সম্পত্তি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। গত বুধবার থেকে ৪দিন ব্যাপী এলাকায় ঢোল-ঢাক পিটিয়ে ও মাইক যোগে প্রচার করে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অনেকেই এই সরকারী নির্দেশ অমান্য করে স্থাপনা বহাল রাখে। অবশেষে রবিবার সকালে বাংলাদেশ রেলওয়ে লালমনিরহাট বিভাগীয় স্টেট অফিসার মোঃ রেজুয়ানুল হকের নেতৃত্বে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হয়। এই অভিযানে অংশ গ্রহণ করেন লালমনিরহাট রাজস্ব বিভাগের সার্কেল অফিসার মোঃ গোলাম মোস্তফা, কানুঙ্গ মোস্তাফিজার রহমান ও বাংলাদেশ রেলওয়ে লালমনিরহাট বিভাগের নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য। তারা স্টেশনের পশ্চিম দিকে বালুয়াভাটা ১২নং রেলঘুমটি এলাকার ২৫টি, বালুয়াভাটা ১৩নং রেলঘুমটির ২০টি এবং স্টেশন চত্ত্বরের ৩০টি অবৈধ স্থাপনা দোকানপাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও ঘরবাড়ী ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়। এসময় ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা উত্তেজনায় ফেটে পড়লে উচ্ছেদকারী স্টেশন মাষ্টারের অফিসে আশ্রয় নেয়। কিছুক্ষণ পর পরিস্থিতি শান্ত হলে পুনরায় তারা উচ্ছেদ অভিযান চালান। এবিষয়ে রেলওয়ে স্টেশন চত্ত্বরের মুদি ব্যবসায়ী মনছার আলী (৫০) , চা বিক্রেতা বাবু মিয়া (৪০) ও মাংস বিক্রেতা মোঃ আনার কসাই (৪৮) বলেন, রেলওয়ের কর্মকর্তারা শুধু লোক দেখানো উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেছেন। স্টেশন এলাকার কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তি শতশত একর সম্পত্তি দখল করে বাড়ীঘর নির্মাণ করাসহ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান করে আসছে। তথাপিও বেদখল হওয়া ওইসব সম্পত্তি উদ্ধার করার কোন উদ্যোগ নেই। অথচ, ছোটখাট পান দোকান, মুদি দোকান ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়ে তারা গরীর মানুষের পেটে লাথি মেরেছে। সেই সাথে আমরাও দোকানপাট হারিয়ে এখন নিঃশ্ব হয়েছি। বলতে পারেন আমরা এখন কিভাবে পরিবার পরিজন নিয়ে জীবিকা নির্বাহ করব? বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন মাষ্টার মোজাম্মেল হক জানান, সরকারী নিয়মনীতি ছাড়া এখানকার কতিপয় ব্যবসায়ীরা স্টেশন চত্ত্বরের যেখানে সেখানে অবৈধভাবে দোকানপাট স্থাপন করে বাধা-বিঘœ সৃষ্টি করছিলেন। আমরা রেলওয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি অবগত করার দীর্ঘদিন পর কর্তৃপক্ষ এই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন। এরপর লালমনিরহাট বিভাগীয় স্টেট অফিসার রেজুয়ানুল হক সাংবাদিকদের বলেন, বদরগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশনের অধিনে শতশত একর সরকারী সম্পত্তি বেদখল হয়েছে। আমরা পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়ে সরকারী সম্পত্তি উদ্ধারের চেষ্টা করব। কিন্তু লোকবল ও সময় স্বল্পতার কারণে আজ মাত্র ৭৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে ১৯০শতাংশ সম্পত্তি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এই উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত চলবে।

বদরগঞ্জে সরকারী সম্পত্তিতে রাইচমিল নির্মাণ ॥ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ

Posted by News Editor | | Posted in

আকাশ রহমান, বদরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : রংপুরের বদরগঞ্জে সরকারী জমি দখল করে রাইচ-মিল নির্মাণ করছে একটি প্রভাবশালী মহল। এ ঘটনায় এলাকাবাসী মিলের নির্মাণ কাজ বন্ধ করাসহ ভুমিদস্যুদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কার্যালয়সহ বিভিন্ন দপ্তরে গণস্বাক্ষর সম্বিলিত অভিযোগ দাখিল করেন। লিখিত অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, উপজেলার কালুপাড়া ইউনিয়নের বৈরামপুর পাইকাড়পাড়া গ্রামের মৃত আজিজুল হকের ছেলে সাজু পাইকাড় একজন ভুমিদস্যু। তিনি সম্প্রতিকালে এলাকার একটি মহলের প্ররোচনায় বৈরামপুর বাজারের পার্শ্বে সরকারী জমি দখল করে সেখানে রাইচ মিল নির্মাণ করছেন। সেইসাথে ওই জমির ভুয়া কাজপত্র দিয়ে পল্লী বিদ্যুত সংযোগের জন্য আবেদন করেছেন। এই বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসী তার নির্মাণকাজ বন্ধ করার জন্য তাকে নিষেধ করলে তিনি এলাকার লোকজনকে হুমকী প্রদান করেন। যার ফলে এলাকাবাসী একত্রিত হয়ে তার রাইচমিলের কার্যক্রম বন্ধ করে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসসহ বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দাখিল করেন। এবিষয়ে, গতকাল শনিবার অভিযোগকারী আলতাব হোসেন বলেন, নিজের জায়গা জমির উপর ব্যবসা করার অধিকার সবার আছে, কিন্তু সরকারী জমি দখল করে প্রতিষ্ঠান নির্মাণ করা কারোর অধিকার নেই যেটা সাজু মিয়া টাকার জোরে করেছেন। আমরা তাকে সরকারী জমিতে রাইচমিল নির্মাণ করতে বাধা নিষেধ করলে তিনি আমাদের প্রতি চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দেন। তাই আমরা তার এই অবৈধ নির্মাণ কাজ কন্ধ করাসহ তার বিরুদ্ধে আইনানুগ গ্রহণ করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের দপ্তরসহ (ইউএনও স্যার) বিভিন্ন দপ্তরে গণস্বাক্ষর সম্বলিত অভিযোগ দাখিল করেছি। আশা করি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষ বিষয়টি তদন্তপুর্বক অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন। তবে অভিযুক্ত সাজু মিয়া বলেন, এই এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে সরকারী জমির উপর আরো রাইচমিল রয়েছে আগে ও গুলো বন্ধ করা হোক তারপর আমার রাইচমিলের কার্যক্রম বন্ধ করব। রংপুর পল্লী বিদ্যুত সমিতি-২ বদরগঞ্জ জোনাল অফিসের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ শওকত হোসেন বলেন, সাজু মিয়ার রাইচমিলে বিদ্যুত সংযোগ না দেওয়ার জন্য এলাকাবাসীর গণস্বাক্ষর সম্বলিত একটি অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্তের জন্য একজন কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট হাতে পাওয়ার আগে এখনো কিছু বলা যাচ্ছেনা। বদরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: রাশেদুল হক মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের বলেন, তদন্তের জন্য কালুপাড়া ইউনিয়নের তহশিলদারকে পাঠানো হয়েছিল। মিল মালিকের বৈধ কাগজপত্র না থাকায় রাইচমিলের নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে বলা হয়েছে। এখন কাজ বন্ধ আছে।

আগামী বছরের ডিসেম্বরে ফাইনাল ম্যাচ হবে -ওবায়দুল কাদের

Posted by Chilahati Web | | Posted in , ,

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : রংপুরের ঠাকুরপাড়ায় হামলার ঘটনায় মন্তব্য করে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেনছেন, একটা দূবিসন্ধী আছে, দেশে সাধারণ নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ততই একটি মতলবী মহল ও স্বার্থন্বেষী মহল রাজনৈতিক অঙ্গণকে অস্থিতিশীল করতে হামলা চালাতে পারে।
রোববার (১৯ নভেম্বর) সকালে সৈয়দপুর বিমান বন্দরে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, রংপুরের ঘটনায় তদন্ত চলছে, তদন্তের পর সঠিক তথ্য জানা যাবে। ঘটনার পর থেকেই আমাদের দলের নেতাকর্মীরা সেখানে আছেন এবং খোঁজখবর রাখছেন। আজ আমি স্বশরীরে সেখানে পরিদর্শনে যাচ্ছে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, গতকাল রাতে শুনলাম বিএনপির মহসচিব নাকি আজ সেখানে পরিদর্শনে যাবেন। এবং এটাও খবর পেলাম একই বিমানে আসছি। মনে করলাম দু’জনে দেখা হবে এবং মুখোমুখি হবো, দু’টি কথা ও কুশল বিনিময় হবে দু’জনের। এটা রাজনীতির জন্য ভাল লক্ষণ, তারা যে ভাবে নেতীবাচক রাজনীতি করছেন একটা ইতিবাচক ধারা নির্বাচনকে সামনে রেখে বিএনপি ফিরিয়ে আনবে। আজকে একই বিমানে দুই দলের মহাসচিব আগমন কুশল বিনিময় রাজনীতিতে শুভ বার্তা বয়ে আনতে পারতো। কিন্তু সকাল বেলা বিমান বন্দরে এসে শুনলাম তিনি প্রোগ্রাম বাতিল করেছেন।
বিমান বন্দরে উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় নির্বচান অনুষ্ঠিত হেেত আর কয়েক মাস দেরী আছে। এরই মধ্যে রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন এটি আমাদের জন্য সেমিফাইনাল। আপনারা সকলেই ঐক্যবদ্ধ ভাবে থাকেন। আগামী বছরের ডিসেম্বরে ফাইনাল ম্যাচ হবে আপনারা প্রস্তুত থাকেন। নৌকার জয় নিশ্চিত করতে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করুন।
এসময় তাঁর সফর সঙ্গী ছিলেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কেন্দ্রীয় নেতা মোজ্জামেল হক, বিপ্লব বড়–য়া, সুজিত রায়, নীলফামারী জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মমতাজুল হক উপস্থিত ছিলেন।



সরকার ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে - মির্জা ফকরুল

Posted by Chilahati Web | | Posted in ,

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকার চক্রান্ত করে রংপুরের গঙ্গাচড়ার ঠাকুরপাড়া গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর হামলার ঘটনায় বিএনপির নেতাকর্মীরদের নাম জড়িয়ে নিজেদের দোষ ঢাকতে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে তারা।
রোববার (১৯ নভেম্বর) লালমনিরহাট যাওয়ার আগে বেলা পৌনে দশটায় নীলফামারীর সৈয়দপুরে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের সাথে সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন।
বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, আজকে রংপুরের গঙ্গাচড়ার ঠাকুরপাড়া গ্রামের আমারও যাওয়ার কথা ছিলো। কিন্ত সেখানে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরসহ আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ সেখানে যাচ্ছেন তাই সেখানে এক সাথে দু’টি দলের প্রোগ্রাম করা সমচিন নয়, এ বিষয়টিকে আমরা গুরুত্ব দেই। আজ আমার একটি গুরুত্ব পূর্ণ মিটিং আছে লালমনিরহাটে, মিটিং শেষ করে আবার ঢাকায় ফিরতে হবে। আগামীকাল আমি রংপুরের গঙ্গাচড়ার ঠাকুরপাড়া গ্রামে পরিদর্শনে আসবো।
উল্লেখ্য, আজ রংপুরের গঙ্গাচড়ার ঠাকুরপাড়া গ্রাম পরিদর্শনে ঢাকা থেকে ৮টা ৪৫ মিনিটে ইউএস বাংলা বিমানে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নীলফামারীর সৈয়দপুর বিমান বন্দরে আসার কথা ছিল। কিন্তু সকাল সাড়ে ৯টায় ইউএস বাংলা বিমান সৈয়দপুর বিমান বন্দরে অবতরণ হলে সেই বিমান থেকে শুধু মাত্রা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের নামেন।
আগামী নির্বাচনে জামায়াত বিএনপির সাথে জোট থাকা না থাকা নিয়ে প্রশ্ন করলে মির্জা ফখরুল বলেন, আমাদের জোট অটুট রয়েছে। এখনও জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়নি। তাই আগামী নির্বাচনে তারা আমাদের সাথে থেকেই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করবে।

কেন্দ্রীয় নেতার মুক্তির দাবীতে জলঢাকায় ছাত্রদল বিক্ষোভ

Posted by Chilahati Web | | Posted in

মনিরুজ্জামান লেবু,জলঢাকা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাধারণ সম্পাদক আকরামূল হাসান মিন্টুকে গ্রেফতার ও অবিলেম্ব মুক্তির দাবীতে সারাদেশের ন্যায় নীলফামারীর জলঢাকায় বিক্ষোভ ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে উপজেলা ছাত্রদল।
উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক শাহিনুর হক বাবুর নেতৃত্বে সোমবার সকালে জলঢাকা কলেজ থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল পৌরশহরে আসার পথে স্থানীয় থানা মোড়ে পুলিশের বাধায় পড়ে আবার কলেজ মাঠে গিয়ে সংক্ষিপ্ত প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্নআহবায়ক মিজানুর রহমান মিজু,পৌর ছাত্রদলের যুগ্নআহবায়ক ইমন,ছাত্রনেতা তফজেলুর বাবু,সাঈদ,দোলন,সোহান প্রমুখ।
প্রতিবাদ সভায় অবিলেম্ব ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদকসহ সকল নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবী জানান বক্তারা।

সৈয়দপুরে যমুনা ব্যাংকের শাখা উদ্বোধন

Posted by News Editor | | Posted in

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর সৈয়দপুরে ১৮ নভেম্বর (শনিবার) দুপুরে শহরের জিকরুল হক সড়কের ডা: হাফিজ টাওয়ারে যমুনা ব্যাংকের ১১৩ তম শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে। 
 সৈয়দপুর শাখার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি ডা: নুরুল ইসলাম ও মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো: মাসুদ। ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও শফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহযোগী অধ্যাপক (শিশু বিভাগ) ডা: আবু আহমেদ মর্তুজা, যমুনা ব্যাংক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নূর মোহাম্মদ, পরিচালক আলহাজ্ব মো: সিরাজুল ইসলাম ভরসা। ভারপ্রাপ্ত শাখা ব্যবস্থাপক মো: জাকির হোসেন জানান, যমুনা ব্যাংকের সৈয়দপুর শাখা থেকে অন্যান্ন ব্যাংকের চেয়ে গ্রাহকরা অনেক বেশি সেবা পাবে।

সাংবাদিকদের কখনো সত্য প্রকাশে পিছপা হওয়া যাবে না-শওকত মাহমুদ

Posted by News Editor | Saturday, November 18, 2017 | Posted in

চিলাহাটি ওয়েব ডেস্ক : বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের (বিএফইউজে) সভাপতি শওকত মাহমুদ বলেছেন, সাংবাদিকদের কখনো সত্য প্রকাশে পিছপা হওয়া যাবে না। সত্য ঘটনাকে জাতির সামনে তুলে ধরতে হবে। জুলুমের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হতে হবে। রাজপথে নেমে দাবী আদায় করে নিতে হবে। এ জন্য ভেদাভেদ ভুলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।
শনিবার (১৮ নভেম্বর) সকালে দিনাজপুরে স্থানীয় একটি চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে সাংবাদিক ইউনিয়ন দিনাজপুর আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। শওকত মাহমুদ বলেন, বর্তমানে বাংলাদেশে স্বাধীনভাবে মত প্রকাশ করতে পারে না। যখন মানুষের কথা বলার স্বাধীনতা থাকে না, তখন সাংবাদিকরা ঘরে বসে থাকতে পারে না। রাজনীতি না করে থাকতে পারে না। এ দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে মরহুম আতাউস সামাদসহ অনেক সাংবাদিক অবদান রেখেছেন। মত প্রকাশের স্বাধীনতার ব্যাপারে আমরা কখনো কারো সাথে কোন প্রকার আপোষ করবো না। শওকত মাহমুদ বলেন, বর্তমানে দেশে স্বাধীন গনমাধ্যম নেই। আছে সরকারের প্রচারমাধ্যম। বিরোধী মতের কন্ঠরোধ করতে এই সরকারের আমলে আমার দেশ, দিগন্ত টিভি, চ্যানেল ওয়ান, সিএসবিসহ অনেক গনমাধ্যম বন্ধ করা হয়েছে। 
বিএনপি মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে বলেই কোন সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে হয়রানী করেননি। কিন্তু এই সরকারের আমলে আমার দেশ সম্পাদক মাহমুদুর রহমানসহ অনেক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে, জেলে পুড়ে নির্যাতন করা হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা সাম্প্রদায়িকতায় বিশ্বাস করি না। সরকারী দলের নেতাকর্মীরা হিন্দুদের বাড়ী-ঘরে আগুন দিয়ে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করে। আর এর দায় বিএনপিসহ বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের উপর চাপিয়ে দেয়।দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি জিএম হিরু’র সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএফইউজে’র মহাসচিব এম আব্দুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের (ডিইউজে) সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রধান। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মাহফিজুল ইসলাম রিপন। ইউনিয়নের সদস্য আতিউর রহমান আতিকের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় স্থানীয় সাংবাদিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ওএফএম মোর্শেদ-উল-আলম, মো. সেকান্দর আলী কাবুল, মো. তাজুল ইসলাম, মো. মোশাররফ হোসেন প্রমূখ। বিএফইউজে’র মহাসচিব এম আব্দুল্লাহ বলেন, গনতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত হওয়ার যোগ্যতা যাদের নেই, তারাই ক্ষমতার অপব্যবহার করে ও অস্ত্রের জোরে দেশপ্রেমিক নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে অবিশ্বাস্য ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করছে। আইনের অপব্যবহার করে তাদের কন্ঠরোধ করছে। বিচার বিভাগের স্বাধীনতা হরন করেছে।
 তিনি বলেন, তারা শুধু ব্যাংক আর শেয়ার বাজার লুট নয়, রাষ্ট্রীয় কোষাগার পর্যন্ত লুট করেছে। এর প্রতিবাদ না করলে আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্মের কাছে জবাবদিহি করতে হবে।বিএফইউজে’র সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, বর্তমান সরকারের আমলে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা হরণ করা হয়েছে। আমাদের সামনে সূর্যটি ডাকাতের হাতে বন্দি। এই সূর্যটাকে ছিনিয়ে আনতে হবে। গণমাধ্যমের স্বাধীনতা পুণরুদ্ধারে আন্দোলনে শরিক হতে হবে। মুক্ত গণমাধ্যম গড়ে তুলতে হবে। 
মতবিনিময় সভায় সাংবাদিক ইউনিয়ন দিনাজপুরের (রেজি ঃ নং-রাজ-২৯৩৬) সকল সদস্যসহ বিভিন্ন উপজেলা হতে আগত তৃণমূলের সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। পরে শওকত মাহমুদ দিনাজপুর জেলা বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ সময় সরকারের জুলুম নির্যাতনের বিরুদ্ধে রুখে দাড়ানোর জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। সভায় জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক সাবেক রেজিনা ইসলাম, আকতারুজ্জামান মিয়া, কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি মকশেদ আলী মঙ্গলিয়া, সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ দিনাজপুর জেলা শাখার আহবায়ক অধ্যক্ষ মো. রফিকুল ইসলামসহ বিএনপির অন্যন্যা নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

২৮ ডিসেম্বর দিনাজপুরের বিরল পৌরসভার প্রথম নির্বাচন

Posted by News Editor | | Posted in

স্বরূপ বকসী বাচ্চু, দিনাজপুর ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : বিরল পৌরসভার প্রথম নির্বাচনের তফশীল ঘোষনা করেছে বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশন। ২৮ ডিসেম্বর ভোট গ্রহণের দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। 
বাংলাদেশ নির্বাচন কমিশনের যুগ্ম সচিব (নির্বাচন পরিচালনা-২) ফরহাদ আহমেদ খান স্বাক্ষরিত এক স্মারকে প্রথমবারের ন্যায় দিনাজপুরের বিরল পৌরসভার নির্বাচনী তফশীল ঘোষনা করা হয়। 
স্থানীয় সরকার (পৌরসভা) নির্বাচন বিধিমালা ২০১০ অনুযায়ী ২৮ ডিসেম্বর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বর্ণিত তফশীল অনুযায়ী ২৭ নভেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিল, ২৮ ও ২৯ নভেম্বর মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই, ৬ ডিসেম্বর মনোয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০১৩ সালের ২২ অক্টোবর বিরল উপজেলার বিরল ইউনিয়নের আংশিক এলাকা নিয়ে গঠন করা হয় বিরল পৌরসভা।

দিনাজপুরে প্রাথমিক শিক্ষা ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় ৬২ হাজার ৬৫২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে

Posted by News Editor | | Posted in

স্বরূপ বকসী বাচ্চু, দিনাজপুর ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : রোববার থেকে শুরু হওয়া প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় দিনাজপুরে ৬২ হাজার ৬৫২ জন শিক্ষার্থী অংশ নেবে। এর মধ্যে প্রাথমিক শিক্ষায় ৫৭ হাজার ৫৬২ জন ও ইবতেদায়ী পরীক্ষায় অংশ নেবে ৫ হাজার ৯০ জন। দিনাজপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার এসএম তৌফিকুজ্জামান জানান, রোববার থেকে শুরু হওয়া প্রাথমিক শিক্ষা ও ইবতেদায়ী সমাপনী পরীক্ষায় জেলার ১৩টি উপজেলার ১৪২টি কেন্দ্রে ৬২ হাজার ৬৫২ জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে। এর মধ্যে ৫৭ হাজার ৫৬২ জন প্রাথমিক ও ৫ হাজার ৯০ জন ইবতেদায়ী পরীক্ষায় অংশ নেবে। এর মধ্যে প্রাথমিকে ২৭ হাজার ৭৮৭ জন ছাত্র ও ২৯ হাজার ৭৭৫ জন ছাত্রী এবং ইবতেদায়ীতে ২ হাজার ৯৬২ জন ছাত্র ও ২ হাজার ১২৮ জন ছাত্রী রয়েছে। তিনি জানান, পরীক্ষা সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সব ধরনের ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ২ হাজার ২৬ জন পরীক্ষক, ১৮৫ জন প্রধান পরীক্ষক এবং ১২৯ জন নিরীক্ষক পরীক্ষার খাতা দেখবেন। দিনাজপুর সদর উপজেলায় প্রাথমিকে ৮ হাজার ৩৫৫ জন ও ইবতেদায়ীতে ৬৮২ জন, কাহারোল উপজেলায় প্রাথমিকে ২ হাজার ৯৫৯ জন ও ইবতেদায়ীতে ১৯৪ জন, খানসামায় প্রাথমিকে ৩ হাজার ৭২০ জন ও ইবতেদায়ীতে ২৯৭ জন, ঘোড়াঘাটে প্রাথমিকে ২ হাজার ১৩৯ জন ও ইবতেদায়ীতে ২৮৮ জন, চিরিরবন্দরে প্রাথমিকে ৫ হাজার ৮৮১ জন ও ইবতেদায়ীতে ৪২৩ জন, নবাবগঞ্জে প্রাথমিকে ৪ হাজার ৫৩৭ জন ও ইবতেদায়ীতে ৬৫৬ জন, পার্বতীপুরে প্রাথমিকে ৭ হাজার ২৩০ জন ও ইবতেদায়ীতে ৬৩৭ জন, ফুলবাড়ীতে প্রাথমিকে ৩ হাজার ৩৬৬ জন ও ইবতেদায়ীতে ২৩৪ জন, বিরলে প্রাথমিকে ৫ হাজার ৯০ জন ও ইবতেদায়ীতে ৩৪৪ জন, বিরামপুরে প্রাথমিকে ৩ হাজার ৭৬ জন ও ইবতেদায়ীতে ৪৫৩ জন, বীরগঞ্জে প্রাথমিকে ৬ হাজার ২৮৭ জন ও ইবতেদায়ীতে ৪৩৬ জন, বোচাগঞ্জে প্রাথমিকে ৩ হাজার ২৭২ জন ও ইবতেদায়ীতে ১৭৭ জন এবং হাকিমপুর উপজেলায় প্রাথমিকে ১ হাজার ৬৫০ জন ও ইবতেদায়ীতে ২৬৯জন পরীক্ষার্থী অংশ নেবে।

পার্বতীপুরে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা

Posted by News Editor | Friday, November 17, 2017 | Posted in

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : পার্বতীপুর মডেল থানার আয়োজনে থানা চত্বরে আজ শুক্রবার বিকেলে পার্বতীপুরে কর্মরত প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ হাবিবুল হক প্রধান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। 
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন ফুলবাড়ী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রফিকুল ইসলাম। এ মতবিনিময় সভায় উপস্থিত সাংবাদিকেরা আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি পর্যালোচনাসহ আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ বিষয়ক অন্যান্য বিষয়াদি তুলে ধরেন। 
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ফুলবাড়ী সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন এখানকার সাংবাদিকসহ এলাকার সাধারণ জনগণের সহযোগীতা পেলে আইন-শৃঙ্খলা ও অপরাধ নিয়ন্ত্রণ করা খুব সহজ বলে তিনি মনে করেন। 
পার্বতীপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি শ,আ,ম হায়দার, সাধারন সম্পাদক আমজাদ হোসেন, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুল কাদির, এম,এ,আলম বাবলু, মোস্তাফিজুর রহমান বকুল, মুসলিমুর রহমানসহ অন্যান্যরা সাংবাদিকেরা নিজের পরিচয় তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। 
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) ইমতিয়াজ আহমেদ।

পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি সম্প্রসারণ সমীক্ষার কাজ চলছে দ্রুত গতিতে

Posted by News Editor | | Posted in

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দেশের উত্তরাঞ্চলের একমাত্র কয়লা খনি পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া। উৎপাদন করে আসছে লাখ লাখ মেট্রিক টন কয়লা। যা দিয়ে চলছে কয়লা ভিত্তিক ২৫০ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র। সেই সাথে নতুন আরেকটি ২৭৫ মেগাওয়াট কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র পরীক্ষামূলকভাবে চলছে। ৫২০ মেগাওয়াট কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালাতে লক্ষ লক্ষ টন কয়লা প্রয়োজন আছে। সেকারণে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির উত্তর ও দক্ষিণপাট সম্প্রসারন সমীক্ষার কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে। কয়লা উৎপাদন করার লক্ষ্যে উত্তর ও দক্ষিণ পাটে অনুসন্ধান সমীক্ষার কাজ করছে জন্টি বয়েড, মজুমদার এন্টারপ্রাইজ, এম.এ.পি.এল ও বি.জি.পি, নামক কয়েকটি কোম্পানী। বি.জি.পি নামের চায়না কোম্পানীর থ্রিডি সিসমিক সার্ভের কাজ করছে। এ পর্যন্ত ৫০ শতাংশ কাজ তারা সম্পন্ন করতে পেরেছেন বলে জানিয়েছেন বি.জি.পি’র ম্যানেজার মি. জ্যাক। খনি এলাকার যেসব এলাকায় থ্রিডি সার্ভে হচ্ছে সেই এলাকার কৃষকদের ফসলের ক্ষতিপূরণ দিচ্ছেন তারা এবং এলাকার কৃষকদের সাথে মতবিনিময় করে ফসলের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে। অপরদিকে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির কারনে যেসব গ্রাম ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে সেই সব গ্রামগুলোতে থ্রিডি সার্ভের কাজ ব্যাহত হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পাতিগ্রামের এক কৃষক এর সাথে কথা বললে তিনি জানান, কয়লা খনির কারণে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছি, যা পূরণীয় নয়। আমরা দেশের স্বার্থে এলাকার উন্নয়নের জন্য নিজেদের জায়গা জমি ছেড়ে দিয়েছি। কিন্তু খনি কর্তৃপক্ষ ক্ষতিগ্রস্থদের পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ না দিয়ে পুনরায় খনি সম্প্রসারণের চিন্তা ভাবনা করছে। এতে এই এলাকার বেশ কয়েকটি গ্রাম ইতিমধ্যে তারা সার্ভে শুরু করেছে। কিছু কিছু গ্রাম এলাকায় সার্ভে করতে পারছে না কারণ ইতিপূর্বে বাড়িঘর ফাটলের ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা থাকলেও খনি কর্তৃপক্ষ তাদেরকেক ক্ষতিপূরণ দেয়নি। এ কারণেই সার্ভের কাজে বিঘœ হচ্ছে। এ ব্যাপারে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির উত্তর দক্ষিণ পাটের প্রকল্প পরিচালক মোহাম্মদ কামরুজ্জামনের সাথে কথা বললে তিনি আজ জানান, সার্ভে কাজের বিঘœ হচ্ছে এটা সত্য, কিন্তু খনি কর্তৃপক্ষ এই সব এলাকায় যারা ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন ইতিপূর্বেই তাদেরকে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হয়েছে। এবং নতুন করে যারা ক্ষতির মধ্যে পড়ছেন তাদেরকেও ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

পার্বতীপুরে ফেন্সিডিলসহ গ্রেফতার-১

Posted by News Editor | | Posted in

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : গতকাল বৃহষ্পতিবার ১৬ নভেম্বর রাত পৌনে ৮ টার সময় পার্বতীপুর রেল স্টেশন থেকে ৩৮ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিলসহ মাজেদুর রহমান (৩৫)কে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

তার পিতার নাম মৃত লুৎফর রহমান। বাড়ী দিনাজপুর কোতয়ালী থানার শেখহাটি নামক মহল্লায়। 

গোপন সূত্রে খবর পেয়ে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার এসআই খোকন চন্দ্র দাস সঙ্গীয় ফোর্সসহ পার্বতীপুর রেল স্টেশন মাস্টারের অফিসের সামনে অবস্থানরত অবস্থায় তার কাছে থাকা ব্যাগ তল্লাশী করে ৩৮ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাজেদুরকে গ্রেফতার করে। 

এব্যাপারে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় এসআই খোকন চন্দ্র দাস বাদী হয়ে১৯৭৪ সালের মাদকদ্রব্য আইনের ২৫ এর (বি) ধারায় মামলা দায়ের করেন।

হিন্দু সম্প্রদায়ের বসতবাড়ীতে হামলার প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন

Posted by News Editor | | Posted in

আজম রেহমান,ঠাকুরগাঁও ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : রংপুরের পাগলাপীর ঠাকুরপাড়া গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের বসতবাড়ীতে অগ্নি সংযোগ, ভাংচুর, লুটপাটের প্রতিবাদে ও ঘটনার সাথে জড়িত সকল আসামীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবীতে ঠাকুরগাঁওয়ে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টায় ঠাকুরগাঁও শহরের চৌরাস্তা মোড়ে জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ ও পূজা উদযাপন কমিটির যৌথ আয়োজনে এ মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এ্যাড. ইন্দ্রনাথ রায়, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি পবির কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক দিপক কুমার রায়, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি অরুনাংশু দত্ত টিটো, সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার ঘোষ প্রমূখ। মানববন্ধনে জেলার ৫টি উপজেলার হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ, উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সদস্যবৃন্দ এবং এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যানার নিয়ে লোকজন অংশ গ্রহণ করে।

ডোমারের গোমনাতীতে বিদ্যুতায়িত হয়ে কৃষকের মৃত্যু

Posted by Chilahati Web | Thursday, November 16, 2017 | Posted in

আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার ডোমারে রেজোয়ান হোসেন (৪০) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে।
গতকাল বুধবার বিকালে উপজেলার গোমনাতী ইউনিয়নের আমবাড়ী গ্রামের নামাজী পাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। রেজোয়ান হোসেন গোমনাতি গ্রামের শওকত আলীর ছেলে । 
গোমনাতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ জানান,সেচ পাম্প হতে বাড়িতে সংযোগ নেওয়ার সময় রেজোয়ান বিদ্যুতায়িত হয়ে নিহত হয়েছে।
ডোমার থানার ওসি মকছেদ আলী জানান এঘটনায় থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়েছে সিটি অব অটোয়া

Posted by Chilahati Web | | Posted in

চিলাহাটি ওয়েব আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কানাডার রাজধানী অটোয়ার সিটি মেয়র জিম ওয়াটসন সিটি অব অটোয়ার পক্ষ থেকে ২১শে ফ্রেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে গতকাল ১৫ নভেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকলেমেশন ও ঘোষনা দেন।
সিটি অব অটোয়া ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করবে। আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ থেকেই এটি কার্যকর হবে।
সকল মাতৃভাষার মর্যাদা রক্ষা ও সংরক্ষণ এর দাবিতে কানাডার রাজধানী শহর অটোয়ায় এডভোকেসি কার্যক্রম শুরু করেছিল স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বাংলা কারাভান এবং প্রোএকটিভ এডুকেশান ফর অল চিলড্রেন এনরিচমেন্ট । এই মুভমেন্ট এর অংশ হিসেবে মেয়রের কাছে বেশ কয়েকটি দাবি জানায় সংগঠনটি। তারই প্রেক্ষিতে সিটি অব অটোয়া এই সিদ্ধান্ত নেয় ।
আনুষ্ঠানে অটোয়ার সিটি মেয়র জিম ওয়াটসন, বাংলাদেশ হাই কমিশনার মিজানুর রহমান, উনেস্কো ডি জি সেবাসটিন প্রমুখ সহ বিভিন্ন কমুনিটির শতাধিক লোক উপস্তিত ছিলেন !
উত্থাপিত দাবিগুলোর মধ্যে ছিল সিটির বাৎসরিক কার্য তালিকায় দিবস টি সংযুক্ত করা, আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপনের র লক্ষ্যে শহরে স্মৃতিসৌধ স্থাপন, স্বীকৃতি প্রদান এবং সকল মাতৃভাষা সংরক্ষণের লক্ষ্যে সকল গ্রন্থাগারে IMLD কর্নার প্রতিষ্ঠা করা।

১২ জানুয়ারি থেকে শুরু বিশ্ব ইজতেমা

Posted by Chilahati Web | | Posted in

চিলাহাটি ওয়েব, ঢাকা অফিস :আগামী বছরের ১২ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। চলবে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত। দ্বিতীয় পর্ব শুরু হবে ১৯ জানুয়ারি শুক্রবার, শেষ হবে ২১ জানুয়ারি।
আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে গাজীপুর জেলা প্রশাসনের ভাওয়াল সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতিমূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিশ্ব ইজতেমা সফলভাবে সম্পন্ন করার জন্য ময়দানের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডসহ নানা বিষয়ে আলোচনা ও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।
গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবীরের সভাপতিত্বে প্রস্তুতিমূলক সভায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের প্রতিনিধি এবং তাবলিগের মুরুব্বিরা অংশ নেন।

পার্বতীপুরে তেলবাহী ট্রেনের সাথে কাভার্ট ভ্যানের সংর্ঘষে নিহত-১

Posted by News Editor | | Posted in

বদরুদ্দোজা, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব :পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া রেলগেটে তেলবাহী ট্রেনের সাথে কাভার্ট ভ্যানের সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই কাভার্ট ভ্যানের হেলপার নিহত হয়েছে। এ ঘটনা তদন্তের জন্য ৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্তটিম গঠন করা হয়েছে।জানা গেছে, আজ বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫ টায় পার্বতীপুর রেলওয়ে জংশন থেকে একটি তেলবাহী (এমটি) ট্রেন খুলনা অভিমুখে যাওয়ার পথে পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া রেলওয়ে গেটে পৌঁছালে গেটের পূর্বদিক থেকে আসা একটি কাভার্ট ভ্যান(রংপুর-ট-১১-০৩৪২) রেলগেট অতিত্রুম করার চেষ্টাকালে ট্রেনের ধাক্কায় কাভার্ট ভ্যানটি বিধ্বস্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই হেলপার বিপ্লব হোসেন (২২) মারা যায় এবং চালক আবুল কালাম আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে সটকে পড়ে। বিপ্লব নিলফামারী জেলা সদরের গোবিন্দপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের পুত্র। ঘটনার পর পরই খুলনা থেকে চিলাহাটিগামী সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনটি পার্বতীপুর বড়পুকুরিয়া রেলগেট অতিত্রুম করার সময় বিধ্বস্ত কাভার্ট ভ্যানের ঘষর্নে ক্ষতিগ্রস্ত হয় এবং ট্রেনটি দাঁড় করিয়ে দেওয়া হয়। ফলে এই রেলপথে ৪ ঘন্টা ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকার পর সকাল সাড়ে ৯ টায় আবারও ট্রেন চলাচল শুরু হয় বলে পার্বতীপুরের উর্দ্ধতন উপ-সহকারী প্রকৌশলী(পথ) আব্দুস ছালাম জানান।পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে কাভার্ট ভ্যানের হেলপার বিপ্লবের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঘটনার সময় রেলগেটটি খোলা থাকায় কাভার্ট ভ্যানটি রেলপথ অতিক্রম করার চেষ্টাকালে এই দূর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর থেকেই রেলওয়ে অস্থায়ী গেট কিপার আজিজুল (৫০) পলাতক রয়েছে।ঘটনা তদন্তে ৪ সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। রেলওয়ে পাকশী বিভাগের সহকারী পরিবহন কর্মকর্তা নাসির উদ্দিনকে প্রধান করা হয়েছে এবং সদস্য করা হয়েছে সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী/ পার্বতীপুর, সহকারী যান্ত্রিক প্রকৌশলী (অপারেশন)/পাকশী ও সহকারী সংকেত প্রকৌশলী/পাকশীকে। এই কমিটিকে ৭ কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য বলা হয়েছে বলে তদন্ত টিমের সদস্য সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী/পার্বতীপুর আব্দুল লতিফ জানিয়েছেন।

পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া এলাকায় ৬দফা দাবীতে ভুমি,সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সংবাদ সম্মেলন

Posted by News Editor | | Posted in

বদরুদ্দোজা, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাখনির ভুগর্ভ থেকে কয়লা তোলা ও বিষ্ফোরন ঘটার কারনে ৭টি গ্রামের বাড়ি ঘরে নতুন করে ব্যাপক ফাটল দেখা দেয়ায় ৬দফা দাবীতে মোবারকপুর গ্রামে ভুমি,সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 
আজ বৃহঃস্পতিবার সকাল ১১ টায় বড়পুকুরিয়া খনি এলাকার মোবারকপুর গ্রামে ভুমি সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সভাপতি মো. হোসেন আলীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. পান্না তার বক্তব্যে বলেন ভু-গর্ভস্থ থেকে কয়লা উত্তোলনের ফলে ও ভুগর্ভস্থর নিচে মাইন বিষ্ফোরনের কারনে কম্পনের ফলে বাড়ি ঘরে ব্যাপক ফাটল দেখা দিয়েছে। খনি কতৃপক্ষকে বার বার অভিযোগ করেও কোন ক্ষতিপুরন প্রদান করছেন না। তারা এই এলাকায় নতুন করে জমি ক্রয় করে কয়লা খনি করতে চায়। এতে কাশিয়া ডাঙ্গা, বৈগ্রাম,মোবারকপুর, জহরপাড়া, মহেশপুর,পাতিগ্রাম,পাতরাপাড়াসহ ৭টি গ্রামের অফুরন্ত ক্ষতিসাধন হবে। চলেযেতে হবে একদিন। 
তাই তারা ৬দফা দাবী বাস্তবায়নে খনিজ সম্পদ মন্ত্রনালয়ের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এতে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ভুমি,সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সভাপতি মো. হোসেন আলী,সাধারন সম্পাদক মো. মোসারফ হোসেন,সহ-সাধারন সম্পাদক মো. বিপ্লব, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. পান্না,সহ-সাধারন সম্পাদক মো. আলমগীর কবির। 
সংবাদ সম্মেলনে ৭টি ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামের প্রায় ৫শতাধিক নারী,পুরুষ উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে ভুমি,সম্পদ ও পরিবেশ রক্ষা কমিটির সভাপতি মো. হোসেন আলী বলেন ১০ দিনের মধ্যে আমাদের ৬দফা দাবী মেনে না নিলে কঠোর ভাবে আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। এজন্য গ্রামবাসীদেরকে প্রস্তুত থাকার আহ্বান জানান।

পার্বতীপুরে জাহিদ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন ॥ প্রধান আসামী গ্রেফতার

Posted by News Editor | | Posted in

বদরুদ্দোজা বুলু,পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : পার্বতীপুরে ছুরিকাঘাতে কিশোর জাহিদ হত্যাকারীদের ফাঁসির দাবীতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে ধুপিপাড়া এলাকাবাসী। 
 বুধবার বেলা ২টায় পার্বতীপুর শহরের রেলওয়ে এলাকায় মিছিল শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে মানববন্ধন করে তারা। এদিকে সকালে জাহিদ হত্যা মামলার প্রধান আসামী শাকিল ওরফে ডিপজল(১৮)কে গ্রেফতার করেছে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানা পুলিশ। 
পার্বতীপুরে ছুরিকাঘাতে কিশোর জাহিদ হাসান ওরফে শুকুর (১৭) হত্যা ঘটনায় তার পিতা বাদী হয়ে শহরের কুুলিপাড়া মহল¬ার তৈয়বুর রহমানের পুত্র ডিপজলকে প্রধান আসামী করে ১০জনের নাম দিয়ে ও আরো অজ্ঞাতনামা ৭/৮ জনের বিরুদ্ধে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। জানা যায়, হত্যাকান্ডের ২ দিন পর বুধবার সকালে পার্বতীপুর শহর থেকে প্রধান আসামী ডিপজল কে গ্রেফতার করেছে পার্বতীপুর রেল থানার পুলিশ।
 এ সময় এসআই রব্বানী নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করে।এদিকে, আসামীদের ফাঁসির দাবীতে শহরের প্রাণ কেন্দ্র শহীদ মিনার চত্বরে বেলা ২টা বিক্ষোভ মিছিল ও মানবন্ধন করে নিহতের পরিবারসহ এলাকাবাসী। এ মানবন্ধনে পৌর ওয়ার্ড কাউন্সিলর মঞ্জুরুল হক মঞ্জুর নেতৃত্বে ৫ শতাধিক নারী, পুরুষ উপস্থিত ছিলেন।নিহত পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, গত মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে ময়না তদন্ত শেষে তার পরিবারের নিকট জাহিদের মৃত্যদেহ হস্তান্তর করা হয় এবং পরে রাত ৯টায় নিহতের মৃতদেহ দাফন সম্পন্ন করা হয়। 
উলে¬খ্য, গত ১৩ নভেম্বর পার্বতীপুরে রেল এলাকায় জাহাঙ্গীর নগর মহল¬ার এক গুদাম ঘরে কিশোর জাহিদ হাসানকে শহরের কুলিপট্টি ও বাবুপাড়ার একদল কিশোর ছুরি চাকুদিয়ে উপুর্যপরি আঘাত করে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। প্রত্যক্ষদর্শী ও পথচারীরা উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে বেলা দেড়টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।এব্যপারে পার্বতীপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মীর মোঃ মনিরুল ইসলাম প্রধান আসামী গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। পুলিশ পলাতক আসামীদের ধরার প্রচেষ্টায় তৎপর রয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আব্দুস ছাত্তার জানান, তুচ্ছ একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে এই হত্যাকান্ড সংঘটিত হয়েছে।

এ পর্যন্ত ৫,২৭,৫৯৭ জন রোহিঙ্গা শারণার্থীর রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন : প্রধানমন্ত্রী

Posted by Chilahati Web | Wednesday, November 15, 2017 | Posted in

চিলাহাটি ওয়েব, ঢাকা অফিস : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এ পর্যন্ত ৫ লাখ ২৭ হাজার ৫৯৭ জন রোহিঙ্গা শরণার্থী এ পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করেছেন এবং তাদের ছবিসহ পরিচয়পত্র প্রদান করা হয়েছে।
তরিকত ফেডারেশনের সংসদ সদস্য নজিবুল বশর মাইজভান্ডারির এক প্রশ্নের জবাবে আজ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সংসদকে জানান, স্থানীয় জনগণের সঙ্গে রোহিঙ্গারা যেন মিশে না যায় এ বিষয়ে সরকার সতর্ক রয়েছে।
রোহিঙ্গা সমস্যা সৃষ্টির পেছনে উস্কানি ছিল উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ১৯৭৮ সালে এই রোহিঙ্গা সমস্যার সৃষ্টি যখন অবৈধভাবে ক্ষমতায় ছিলেন সেনাশাসক জিয়াউর রহমান। পার্বত্য চট্টগ্রাম সমস্যারও সে সময় সৃষ্টি হয়।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘নিশ্চিতভাবেই এই সমস্যার পেছনে উস্কানি রয়েছে যাহোক সরকার এ বিষয়ে সতর্ক রয়েছে এবং তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করছে।’ শেখ হাসিনা বলেন, প্রতিবেশির সঙ্গে বাংলাদেশ শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান চায় এবং কাউকেই বাংলাদেশের ভূখন্ডকে কোন রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ব্যবহার করতে দেয়া হবে না।

জলঢাকায় নবান্ন উৎসব পালিত

Posted by Chilahati Web | | Posted in

মনিরুজ্জামান লেবু, জলঢাকা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : নবান্ন উৎসব ১৪২৪ উদ্যাপন উপলক্ষে নীলফামারীর জলঢাকায় র‌্যালী ও পিঠা উৎসব পালিত হয়েছে।
এ উপলক্ষে আজ বুধবার বিকেলে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা পরিষদের সবুজ চত্বরে র‌্যালী ও ১৭ পদের পিঠা খাওযার মধ্যদিয়ে এ উৎসব পালিত হয়।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সৈয়দ আলী,উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহঃ রাশেদুল হক প্রধান,সহকারী কমিশনার (ভূমি) জহির ইমাম, উপজলা পরিষদ ভাইস-চেয়ারম্যান রিভা আমজাদ, থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান, আওয়ামীলীগ সভাপতি আনছার আলী মিন্টু, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোয়াজ্জেম হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার চঞ্চল কুমার ভৌমিক, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শাহাজাহান আলী, পৌরসভার কাউন্সিলর ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগনসহ উপজেলার সকল অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, স্থানীয় সাংবাদিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ।
লেডিস ক্লাবের সহযোগিতায় নবান্ন উৎসবে ১৭ পদের পিঠা দিয়ে অতিথি আপ্যায়ন করেন উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিভা আমজাদ, ইউএনও পতœী উম্মে জাকিয়া, লেডিস ক্লাবের সাধারন সম্পাদক মোতাহারা রিমু, শিখা ও ভারতী রানীসহ ক্লাবের অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় জনবল নিয়োগের দাবীতে

Posted by Chilahati Web | | Posted in

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানায় নতুন জনবল নিয়োগের দাবীতে মানববন্ধন, সমাবেশ ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে সৈয়দপুরস্থ সকল রেলওয়ে ট্রেড ইউনিয় ও সাধারন মানুষ।
বুধবার (১৫ নভেম্বর) দুপুর সাড়ে ১১ টা থেকে সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত রেলওয়ে কারকানার সামনে রেলওয়ে কারকানার শ্রমিক ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মী, সর্ব স্তরের সাধারন মানুষ অংশগ্রহন করে। মানব বন্ধন ও সমাবেশ শেষে প্রধানমন্ত্রী বরাবর কেটি স্মারকলিপি রেলওয়ে কারখারার (ডিএস) কুদরত ই খুদার হাতে তুলে দে শ্রমিকনেতারা।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সৈয়দপুরস্থ সকল রেলওয়ে ট্রেড ইউনিয়নের আহবায়ক ও যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বাংলাদেশ রেলওয়ে শ্রমিক লীগ এবং সৈয়দপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, সৈয়দপুর উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোঃ একরামুল হক, পৗর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি রফিকুল ইসলামবাবু, সৈয়দপুর রজনৈতিক জেলা বিএনপির সভাপতি অধ্যক্ষ আব্দুল গফুর, জেলা পরিষদ সদস্য শামিম চৌধুরী, ারিগর পরিষদেও সভাপতি হাবিবুর রহমান, রেলশ্রমিক ইউনিয়নের অতিরিক্ত সাধারন সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, বণিক সমিতির সভাপতি ইদ্রিস আলী, প্যানেল মেয়র জিয়াইল হক জিয়া, জাতীয় পার্টির লাকী বসুনিয়াসহ সকল ট্রেড ইউনিয়নের সাধারন সম্পাদক ও সভাপতিরা।
শ্রমিক লীগ সম্পাদক মোখছেদুল মোমিন বলেন, ১৮৭০ সালে ১১০ একর জমির উপড় রেলওয়ে কারকানা এবং পরবর্তীতে ৬০ একর জমির উপড় অন্যান্য বিভাগ প্রতিষ্ঠিত হয়। বর্তমানে মঞ্জুরীকৃত পদের বিপরীতে জনবল অনেককম। যার কারনে এক সময় রেলওয়ে কারখানায় তালা ঝুলতে পারে।
বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রেলবান্ধব এবং তার আমলেই রেলওয়ের আধনিকায়ন হয়েছে। আমি মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর কাছে অনতি বিলম্বে মঞ্জুরীকৃত শূণ্য পদে নিয়োগের দাবী জানাই।

'ভালোবাসায় লাল সবুজ' ইমদাদুল হক মিজানের টেলিছবি

Posted by Jaldhaka News | | Posted in

নজরুল ইসলাম তোফা: নজরুল ইসলাম তোফা|| সংস্কৃতির বেড়া জালে আজ নিজস্ব সংস্কৃতি থমকে যাচ্ছে। বাংলাদেশের সত্তর ভাগ বাঙ্গালীর বৌ-ঝি-রাই যখন ঝুকে পরছে ভিনদেশী নাটক, সিনেমা ও অন্য কালচারের দিকে, ঠিক সেই মূহুর্তে এদেশের ক্রিকেটাররাও স্বদেশের ভাব মূর্তি উজ্জল করবার প্রচেষ্টায় প্রতিনিয়ত করে যাচ্ছে সংগ্রাম। ঠিক এমন সময় "ভালোবাসায় লাল সবুজ" গল্পে দেখা যাবে গফুর মিয়া নামক এক স্কুল মাষ্টারকে, সে একজন দেশপ্রেমিকও বটে। এমনই একজন মানুষের স্ত্রী শাহানাজ ও তার ভাইয়ের স্ত্রী হামিদা দুজনেই তারা বিদেশী সংস্কৃতির প্রতি খুবই ভালবাসা দেখায়, দিনে দিনে শাহানাজ এবং হামিদা ভিনদেশী নাটক, সিনেমায় মারাত্নক ভাবে আসক্ত হয়। সংসারে প্রায় প্রতিদিনই এমন আসক্তে ঝগড়া ঝাটি হয়। গফুর মাষ্টার প্রতিদিন তার স্ত্রী ও আপন ভাইয়ের স্ত্রীকে বুঝায়। কিন্তু কে শুনে কার কথা। দুনিয়ার সব কিছু ছেড়ে দিয়ে হলেও ষ্টার জলসা ও জি বাংলার নাটক তাদের দেখতে হবেই। এ দিকে গফুর মাষ্টারের ছোট ভাই সবুজ নিয়মিত ক্রিকেট খেলায় প্র্যাকটিস করে যাচ্ছে গভীর স্বপ্নে, তার স্বপ্ন জাতীয় দলের হয়ে বিশ্বকাপ খেলাটাই মূল লক্ষ । আবার কলেজ পড়ুয়া সাথী এই গ্রামেরই মেয়ে। সে কলেজের সবচেয়ে সুন্দরী বলা চলে। 

ক্রিকেটার সবুজকে নিয়েই সাথীর প্রতিনিয়ত যেন গভীর স্বপ্নে বিভোর। সাথীর ইচ্ছা সবুজ যে দিন জাতীয় দলের হয়ে খেলবে সেদিন সবুজকে জাতীয় পতাকা দিয়ে ভালোবাসার আহবান এবং বরণ করে নিবে। সবুজ অনেক সাধনার পর জাতীয় দলে চান্স পায়, কিন্তু ঘটনা ক্রমে সবুজ সেদিনই মারা যায়। সবুজ মারা যাওয়ার দুই দিন পরে মাষ্টারের স্ত্রী শাহানাজ এবং ভাইয়ের স্ত্রী হামিদা তারা দুজনই ষ্টার জলসা এবং জি বাংলার নাটক দেখে। মাষ্টার তা সহ্য বা সইতে না পেরে স্ত্রী শাহানাজ এবং ভাইয়ের স্ত্রী হামিদাকে চুলের মুঠি ধরে বাইরে ফেলে দেয়। একপর্যায়ে স্কুল মাষ্টার তার স্ত্রী শাহানাজকে তালাক দিতে চায়। এই সময় সাথী ও তার বান্ধবীরা জাতীয় পতাকা হাতে তার বাড়িতে আসে। এভাবেই কাহিনী চলতে থাকে, বাঁকি কাহিনীর নির্মাতা ইমদাদুল হক মিজান টিভি চ্যানেলের দেখানো অপেক্ষায় রেখে দিলেন। এমন চমৎকার গল্প নিয়েই টেলিছবি নির্মাণ করতে যাচ্ছেন চলচ্চিত্র নির্মাতা ইমদাদুল হক মিজান। ১৭ তারিখ থেকে এই টেলিছবির শুটিং পুবাইলে শূরু হবে। আগামী ১৭ তারিখের টেলি ছবিতে কারা কারা থাকছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, 'ভালোবাসায় লাল সবুজ' এ অভিনয় করবেন, চিত্র নায়ক সাঈফ খান, নবাগতা প্রীতি, সুব্রত, জিনাত সুলতানা পূণম, সরল হাসমত, হুমায়ূন কবির সহ আরো অনেকে। কাহিনী-সংলাপ- হুমায়ূন কবির, প্রযোজনায় জিনাত সুলতানা পূণম। পরিবেশনায় শুভ এন্টারটেইনমেন্ট। টেলিছবিটি যে কোন একটি বেসরকারী টিভি চ্যানেলে প্রচার হবে বলে আশা পোষণ করেন।

চিরিরবন্দরে নিরাপত্তা সাপোর্ট ছাড়াই নির্মিত হচ্ছে বহুতল ভবন

Posted by News Editor | | Posted in

দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে কোনো ধরনের নিরাপত্তা সার্পোট ছাড়াই নির্মিত হচ্ছে বহুতল ভবন। 
ইমারত নির্মানের চলমান আইনের তোয়াক্কা না করায় অহরহ ঘটছে প্রাণনাশের মত অনেক দুর্ঘটনা। স্থানীয়দের অভিযোগ উপজেলার ব্যস্ততম ঘুঘুরাতলী মোড় থেকে উপজেলা সদরের প্রধান সড়কের পাশে একটি ভবনের নিচতলা ভাড়া নিয়ে পরিচালিত হচ্ছে এ-জেড রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল। যেখানে কোনো ধরনের নিরাপত্তা সার্পোট ছাড়াই বহুতল ভবন তুলছে মালিক মোকাররম হোসেন মুকুল।
 সরেজমিন সেখানে গেলে দেখা মেলে ভবনের নির্মাণকাজ চলাকালে এ-জেড রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীরা ভবনের নিচতলার আশপাশ দিয়ে চলাচল ও খেলা করছে। এছাড়া তার পাশেই উপজেলা সদরের প্রধান সড়ক হওয়ায় হাজার হাজার মানুষ যাতায়াত করছে। বিল্ডিং তৈরীর সময় কোন প্রকার নিরাপত্তা সাপোর্ট না থাকায় সেখানে যেকোন সময় অনাকাঙ্কিত বড় ধরনের দূঘর্টনা ঘটতে পারে স্থানীয়দের ধারনা।
 সর্বশেষ ১৯ এপ্রিল ২০১৭ চিরিরবন্দর আইডিয়াল রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলের নির্মাণাধীন সপ্তম তলা থেকে সার্টারের কাঠ মাথায় পড়ে রুবায়েত জামিল প্লাবন (১৪) নামের নবম (বিজ্ঞান) শ্রেণির এক ছাত্রের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। মৃত প্লাবন দিনাজপুর জেলার বিরামপুর সদর উপজেলার পৌর এলাকার এমদাদুলের পুত্র। 
বর্তমানে শুধু এ-জেড স্কুল নয় বিভিন্ন স্কুল কলেজ বাসা বাড়িতেও কোনো ধরনের নিরাপত্তা সার্পোট ছাড়াই নির্মিত হচ্ছে এসব বহুতল ভবন। উপজেলা সদরে সর্বোচ্চ কত তলা ভবন নির্মানের অনুমোদন আছে অনেকের জানা নেই। তবে ভবন মালিকরা সরকারি নীতিমালার কোন তোয়াক্কা না করে ৮ থেকে ১০ তলা পর্যন্ত ভবন নির্মান করছে। এ বিষয়ে নির্মাধীন ভবন মালিক মোকাররম হোসেন মুকুলের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো: গোলাম রব্বানী জানান, যে সমস্ত নির্মানাধীন ভবন নিরাপত্তা সার্পোট ব্যবহার করছে না। তাদের ব্যাপারে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ফেসবুকে ধর্ম অবমাননাকারী টিটু জলঢাকা থেকে গ্রেফতার

Posted by News Editor | | Posted in

মনিরুজ্জামান লেবু, জলঢাকা, প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : ফেসবুকে মহানবী (সাঃ)কে নিয়ে কর্টুক্তি ও ধর্ম অবমাননার অভিযোগে সেই টিটু রায়কে অবশেষে নীলফামারীর জলঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 
মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের চিড়াভিজা গোলনা গ্রাম থেকে রংপুর পুলিশের একটি দল টিটু রায়কে গ্রেফতার করেন। 
স্থানীয় সুত্রে জানা যায় টিটু রায় সোমবার সন্ধ্যায় নীলফামারীর জলঢাকা উপজেলার গোলনা ইউনিয়নের চিড়াভিজা গোলনা গ্রামে তার মামা কৈলাশ চন্দ্র রায়ের বাড়িতে বেড়াতে আসলে মঙ্গলবার ফজরের আযানের সময় রংপুর থেকে চারটি গাড়িতে পুলিশের একটি দল এসে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। 
উল্লেখ যে, টিটু রায়ের ফেসবুকের আইডি হতে ধর্মীয় অবমাননার অভিযোগে গত ১০ নভেম্বর শুক্রবার জুম্মার নাামাজের পর রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার হরকলি ঠাকুরপাড়া গ্রামে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ ও হামলার ঘটনা ঘটেছিল। 
সেখানে আট হিন্দু পরিবারের বাড়িঘর আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেয় প্রতিবাদকারীরা। এ ঘটনায় নিহত হয় একজন ও পুলিশ সহ আহত হয় ২০জন ।

দিনাজপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপরে নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

Posted by News Editor | | Posted in

স্বরূপ বকসী বাচ্চু, দিনাজপুর ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : রংপুর ও ফরিদপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ী-ঘরে ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও নির্যাতনের প্রতিবাদে দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার দাবীতে দিনাজপুরে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে পুজা উদ্যাপন পরিষদ। 
 মঙ্গলবার সকাল ১১টায় দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে জেলা পুজা উদ্যাপন পরিষদের উদ্যোগে রংপুর ও ফরিদপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের বাড়ী-ঘরে ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও নির্যাতনের প্রতিবাদে দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। 
এসময় সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উদ্যাপন পরিষদের জেলা সভাপতি স্বরূপ বকসী বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক উত্তম কুমার রায়, হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ কেন্দ্রীয় সহ-সম্পাদক রমা কান্ত রায়, রতন সিং, সুনীল চক্রবর্তী এবং পৌর কাউন্সিলর রোকেয়া বেগম লাইজু।

পীরগঞ্জে বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত

Posted by News Editor | | Posted in

আজম রেহমান, ঠাকুরগাঁও ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : গত ১৪ নভেম্বর বিশ্ব ডায়াবেটিস দিবস পালিত হয়। জেলার পীরগঞ্জে দিবসটি র‌্যালি ও আলোচনা সভার মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়েছে। বিসটি উপলক্ষ্যে পীরগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতাল থেকে বর্নাঢ্য র‌্যালি নিয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ন সড়ক প্রদক্ষিন শেষে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের র‌্যালিতে যুক্ত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের উদ্যোগেও “সকল গর্ভধারন হোক পরিকল্পিত’ শ্লোগনে পদযাত্রা এবং নন কমিউনিকেবল ডিজিজ কন্ট্রোল প্রোগ্রাম এর সচেতনতায় ‘ নারী এবং যায়াবেটিস, আগামীর সুস্বাস্থ্য আমাদের অঙ্গিকার’ শ্লোগান ধারন করে র‌্যালি ও আলোচনা সভা করে। হাসপাতাল গেটস্থ যৌথ আলোচনা সভায় ডায়াবেটিস এর উপর আলোচনা করেন হাসপাতালের কনসালটেন্ট ডা, নজরুল ইসলাম, পীরগঞ্জ যায়াবেটিস হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ফয়জুল ইসলাম প্রমুখ।

র‌্যাব-১৩ কর্তৃক দিনাজপুরে ইয়াবাসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার।

Posted by News Editor | Tuesday, November 14, 2017 | Posted in

মাহবুব হোসেন মেজর হাকিমপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : র‌্যাব-১৩, দিনাজপুরের একটি আভিযানিক দল ১৩ নভেম্বর ২০১৭ ইং তারিখ দুপুর আনুমানিক ২টায় দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানাধীন শেরশাহ্ বটতলা মোড় এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ১৬৩ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ মাদক ব্যবসায়ী মোঃ আকরাম হোসেন (২৭), পিতা মোঃ আঃ মালেক, সাং-শেখডাঙ্গী গোরস্থান (শেখপুরা), থানা-কোতয়ালী, জেলা-দিনাজপুরকে গ্রেফতার করে। আসামীকে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় পুলিশের নিকট র্সোপদ করেন।

চিরিরবন্দরে দিনব্যাপি কৃষক প্রশিক্ষণ

Posted by News Editor | | Posted in

দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে আন্তর্জাতিক সার উন্নয়ন কেন্দ্রের (আইএফডিসি) কৃষি উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় টেকসই মাটি ব্যবস্থাপনা অংশ শীর্ষক এক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
গতকাল সোমবার সকালে চিরিরবন্দর উপজেলা পরিষদ চত্বর হলরুমে এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রশিক্ষণের উদ্বোধন করেন দিনাজপুর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো: গোলাম মোস্তাফা। 
চিরিরবন্দর উপজেলা কৃষি অফিসার মো: মাহমুদুল হাসানের সভাপতিত্বে কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কৃষি বিশেষজ্ঞ (আইএফডিসি) ডা: সাহারুক আহমেদ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাতনালা ইউনিয়নের উপ-সহকারী মো: মসলেম উদ্দিন । 
অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন আন্তর্জাতিক সার উন্নয়ন কেন্দ্রের (আইএফডিসি) ফিল্ড কো-অর্ডিনেটর আবু জাফর মুহম্মদ নূর নবী। দিনব্যাপী এ প্রশিক্ষণে চিরিরবন্দর উপজেলা জোত সাতনালা কৃষি ব্লকের ২৫ জন কৃষক ও পাঁচজন খুচরা সার-বীজ ব্যবসায়ীসহ সর্বমোট ৩০ জন কৃষক অংশ নেন।

জলঢাকায় কর্ম বিরতি পালন

Posted by News Editor | | Posted in

মনিরুজ্জামান লেবু, জলঢাকা প্রতিনিধি, চিলাহাটি ওয়েব : সারাদেশের ন্যায় নীলফামারীর জলঢাকা পৌরসভার সকল কর্মকর্তা- কর্মচারীরা রাষ্ট্রীয় কোষাগার হতে বেতন ভাতা ও পেনশনসহ সবধরণের সুবিধা প্রদানের দাবীতে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করেছেন।
সোমবার জলঢাকা পৌরসভার কার্যালয়ে পৌর কর্মকর্তা- কর্মচারী এ্যাসোসিয়েশনের আয়োজনে এই কর্মবিরতি পালন করা হয় ।
এসময় বক্তব্য রাখেন, সহকারী প্রকৌশলী একেএম তোফাজ্জল হোসেন, এসেসর আজাদ হোসেন, হিসাব রক্ষক কর্মকর্তা আওলাদ হোসেন, কার্য সহকারী রউফুল ইসলাম নিম্নমান সহকারী মামুন অর রশীদ ও আজাদ, সহকারী লাইসেন্স পরিদর্শক আব্দুল আজিজ প্রমুখ।

নামাজী পাড়া বিজিবি ক্যাম্পে তাল বীজ রোপন

Posted by Chilahati Web | Monday, November 13, 2017 | Posted in , ,

চিলাহাটি ওয়েব ডেস্ক : সারা দেশের ন্যায় নীলফামারী জেলার চিলাহাটির কেতকীবাড়ী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের নামাজী পাড়া বিজিবি ক্যাম্পের রাস্তায় তাল বীজ বোপন করা হয়েছে। কাবিটা প্রকল্পের আওতায় গতকাল রবিবার বীজ বোপন করেন ক্যাম্প কোমান্ডার নায়েক সুবাদার শহিদুল ইসলাম,ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল হক দিপু, ১নং ওয়ার্ড সদস্য মোতাহার হোসেন ও সাংবাদিক আপেল বসুনীয়া প্রমূখ্য।
কেতকীবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল হক দিপু চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে বলেন, বজ্রপাতে বাংলাদেশে প্রাণহানির ঘটনা দিন দিন বাড়ছে। তালগাছ বজ্রপাত প্রতিরোধ প্রাণহানি কমাতে সহায়ক ভূমিকা পালন করে। এছাড়া তালগাছ দীর্ঘদিন জীবিত থেকে মানুষের উপকার করে।
তালগাছ থেকে ঘর নির্মাণের মূল্যবান কাঠ ও জ্বালানি পাওয়া যায়। এ গাছ রস ছাড়াও কাঁচা ও পাকা সুস্বাদু ফল দিয়ে থাকে।
ইউপি সদস্য মোতাহার হোসেন চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে জানান, উঁচু গাছেই বেশি বজ্রপাত হয়। উঁচু গাছ থাকলে এলাকায় বজ্রপাতে প্রাণহানি লাঘব হয়। বজ্রপাতে মৃত্যু ঠেকানোর জন্য উঁচু তালগাছই সবচেয়ে কার্যকর। তিনি আরো জানান, তালগাছ বজ্রপাতে শুধু প্রাণহানি রোধই নয়,পরিবেশের ভারসাম্যও রক্ষা হবে।



দিনাজপুরে ৭ দফা দাবীতে সড়ক ও জনপথ শ্রমিক ইউনিয়নের মানববন্ধন

Posted by News Editor | | Posted in

স্বরূপ বকসী বাচ্চু, দিনাজপুর ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : সড়ক ও জনপথ শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন দিনাজপুর জেলা সংসদ ৭ দফা দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। রোববার দিনাজপুর জেলা প্রশাসন কার্যালয়ের সম্মুখ সড়কে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর প্রাঙ্গণে জনপথ শ্রমিক কর্মচারী ইউনিয়ন রেজিঃ নং-বি-১৮৭০ জেলা সংসদের সভাপতি মোঃ আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক মোঃ আব্দুল মান্নান সরকার, সাইফুল ইসলাম, কাজী ওয়াহেদুজ্জামান, জোস্না আরা, মোছাঃ রূপজান, আমিনুল ইসলাম, আব্দুল হাই, জাবের আলী, আব্দুল হাই গাজী, লুৎফর রহমান প্রমুখ। বক্তারা প্রধানমন্ত্রী দপ্তরের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ীত না হওয়ার কারণে কর্মচারীদের মধ্যে ব্যাপক হতাশা ও তীব্র ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে দ্রুত প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নসহ ৭ হাজার ৫৯ জন ওয়ার্কচার্জড কর্মচারীদের নিয়মিত করার আহবান জানান।

কিশোরগঞ্জে আলুর বীজ আলু পচে যাওয়ায় আলু চাষাবাদ ব্যহত হওয়ার আশঙ্কা

Posted by News Editor | | Posted in

মিজানুর রহমান কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি, চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলায় দেড়হাজর কৃষকের ৩০হাজার বস্তা বীজ আলু পচে গেছে। ফলে আগাম ও মৌসুমী আলু চাষাবাদ ব্যহত হওয়ার আশঙ্কা করছেন আলু চাষিরা। এই বীজ আলুগুলো সংরক্ষনে ছিল তারাগঞ্জ সিনহা স্পেশালাইজড কোল্ড ষ্টোরে। চাষীরা ক্ষতি পূরণ দাবী করে তারাগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগ ও সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে,কিশোরগঞ্জ উপজেলায় বীজ সংরক্ষনের জন্য হিমাগার না থাকায় আলু চাষিরা বিভিন্ন হিমাগারে বীজ আলু সংরক্ষন করেন। এরমধ্যে দেড় হাজার চাষী ৩০ হাজার বস্তা বীজ আলু তারাগঞ্জ সিনহা স্পেশালাইজডকোল্ড ষ্টোরে সংরক্ষন করে। কিন্তু চাষীরা হিমাগার থেকে বীজ বের করে নিয়ে আসার পর ৫০ভাগ আলুর বীজ পচে যায়। আর ৫০ভাগ আলু বীজ জমিতে লাগানোর পর পচে যায় বলে চাষিরা অভিযোগ করেন। নিতাই ইউনিয়নের মুশরুত পানিয়াল পুকুর গ্রামের আগাম আলু চাষী মজিদুল ইসলাম বলেন,আমি সিনহা কোল্ড ষ্টোরে ২০০বস্তা বীজ আলু সংরক্ষন করেছিলাম। কিন্তু হিমাগার থেকে বের করে বাড়ীতে ফ্যান করার সময় ৫০ভাগ বীজ আলু পচে যায় এবং বাকীগুলো জমিতে লাগার পর পচে গেছে। পরে বাজার থেকে চড়া মূল্যে বীজ কিনে জমিতে লাগাই। উপজেলা সদরের আলু চাষী জামিনুর রহমান মানিক বলেন, আমি ওই হিমাগারে ৮৮৮বস্তা বীজুরেখেছিলাম। হিমাগারের মালিক কর্তৃপক্ষ ধারণ ক্ষমতার চেয়ে বেশী বীজ সংরক্ষন করে। এছাড়াও অ-ব্যস্থাপনার কারণে আমার২৪৩ বস্তা বীজ আলু পচে গেছে। আমি প্রতিবছর ১০০থেকে ১১০বিঘা জমিতে আলু চাষাবাদ করি। বীজ পচে যাওয়ার কারণে লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করতে পারি নাই। তারাগঞ্জ সিনৃহা স্পেশ্যালাইজড কোল্ড ষ্টোরের ম্যানেজার দুলাল শাহর সাথে কথা বললে তিনি চাষীদের অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন হিমাগারে কোন বীজ আলু পচে যায়নি। চাষীরা হিমাগর মালিক কাছে এক লাখ ৭০ হাজার টাকা চেয়েছিল টাকা নাদেয়ায় তারা ্এ অভিযোগ তুলেছে। এরকম ক্ষতিগ্রস্থ্য চাষী মুশরুত পানিয়াল পুকুর গ্রামের এনামুল হকের ৩৪বস্তা,মজিদ মিয়ার ১৭বস্তা,মশিয়ার রহমান ৩৬বস্তা,শামীম মিয়ার ১০বস্তা,বাহাগিলী ইউনিয়নের নয়ানখাল গ্রামের এমদাদুল হকের ৩৫বস্তা,শফি মাহমুদের ১১বস্তাসহ আরও অনেক চাষী তাদের বীজ আলু পচে যাওয়ার বিষয় অভিযোগ করেন। তারাগঞ্জ উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা রেজাউল ইসলাম অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন,কিশোরগঞ্জের আলু চাষিদের অভিযোগের বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। কিশোরগঞ্জ উপজেলার কৃষি কর্মকর্তা এনামুল হক বলেন,এই উপজেলায় আগাম আলু চাষাবাদের জন্য উপযোগী। প্রতিবছর ৪ হাজার থেকে ৫হাজার হেক্টর জমিতে আগাম আলু চাষাবাদ করা হয়। কিন্তু এ বছর ৩হাজার ৭৭ হেক্টর জমিতে আগাম আলু চাষাবাদ করা হয়েছে। কৃষকের আলুর বীজ পচে যাওয়ায় চাষিরা ক্ষতির সমুখিন হয়েছে।

হলদিবাড়ী-চিলাহাটি রেলপথ পুণরায় নির্মাণের কাজ শুরু

Posted by Chilahati Web | Sunday, November 12, 2017 | Posted in , ,

আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর ভারতের হলদিবাড়ী থেকে বাংলাদেশের সর্ব উত্তরের সীমান্তবর্তী রেলওয়ে ষ্টেশন চিলাহাটি পর্যন্ত রেল যোগাযোগ পুণরায় চালুর লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছে ভারতের রেল মন্ত্রণালয়। সম্প্রতি ভারতের গণমাধ্যমে এ সংক্রান্ত সংবাদ প্রকাশ হয়েছে।
সুত্রে জানা যায়, নতুন রেলপথ স্থাপনের জন্য শিলিগুড়ির একটি ঠিকাদার সংস্থা কাজ করছে। তারা হলদিবাড়ির খালপাড়ায় তাদের কাজ শুরু করেছে। এতে বিভিন্ন কাজের জন্য মোট ৫টি প্রতিষ্ঠান কাজের নির্দেশ পেয়েছে। শেষ পর্যন্ত ভারতের হলদিবাড়ী থেকে বাংলাদেশের চিলাহাটি পর্যন্ত রেল যোগাযোগের কাজ শুরু হওয়ায় খুশি ভারতের জলপাইগুড়ি ও বাংলাদেশের নীলফামারী জেলাবাসী।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশের বৃহত্তম নীলফামারী জেলার সৈয়দপুর রেলওয়ে কারখানাটি ১৮৭০ সালে আসাম বেঙ্গল রেলওয়ের উদ্যোগে স্থাপন করা হয়েছিল। ওই সময় ভারতের শিলিগুড়ি থেকে ছেড়ে হলদিবাড়ী হয়ে বাংলাদেশের নীলফামারীর চিলাহাটি ও সৈয়দপুর এবং দর্শনা দিয়ে দাজিলিং মেইল ট্রেনটি কলকাতা চলাচল করতো। এ ছাড়া চিলাহাটি থেকে হলদিবাড়ী ও জলপাইগুড়ি পর্যন্ত চলাচল করতো একটি পাসপোর্ট ট্রেন। চালু ছিল স্থলবন্দর ও ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট। কিন্তু পাক-ভারত যুদ্ধের পর চিলাহাটি-হলদিবাড়ী রেলপথ ও স্থলবন্দর বন্ধ হয়ে যায়। এরপর উভয় দেশেই স্থাপিত রেলপথটি ১৯৬৫ সালে উঠিয়ে ফেলে।
বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর নতুন করে রেল পথটি চালুর উদ্যোগ গ্রহন করে। তারই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ অংশে প্রায় ৭ কিলোমিটার ও ভারতের হলদীবাড়ী অংশে ৪ দশমিক ৩৪ কিলোমিটার রেলপথ পুনরায় স্থাপনের লক্ষ্যে ২০১৬ সালের ৮ মে থেকে সপ্তাহ ব্যাপী বাংলাদেশের অংশের এবং চলতি বছরের গোড়ার দিকে ভারতের অংশের জরিপের কাজ শেষ করা হয়।
রেলওয়ে সুত্র মতে, বর্তমানে খুলনার মংলা, ঢাকা ও রাজশাহী থেকে সরাসরি ব্রডগেজের রেলপথ চালু রয়েছে নীলফামারী চিলাহাটি রেলওয়ে স্টেশন পর্যন্ত। উভয় দেশের অংশের ১১ দশমিক ৩৪ কিলোমিটার রেললাইন পুনরায় স্থাপন করা হলে ভারতের হলদীবাড়ী হয়ে জলপাইগুড়ি,নিউ জলপাইগুড়ি ও শিলিগুড়ীর সাথে ফের সরাসরি ট্রেন চলাচল শুরু হবে। বর্তমানে ভারত-বাংলাদেশ মৈত্রী এক্সপ্রেস কলকাতা-গেদে-দর্শনা-হার্ডিঞ্জ ব্রিজ হয়ে ঢাকা চলাচল করে।
হলদিবাড়ী-চিলাহাটি রেল পথ চালু হলে হার্ডিঞ্জ ব্রিজ হয়ে ফের অতীতের পথে শিলিগুড়ি-কলকাতা রেল চলাচল শুরু হবে। সেই সাথে ঢাকা নিউ জপাইগুড়ি(শিলিগুড়ি) ট্রেন সরাসরি চলাচল করবে।
এই রেলপথ স্থাপন শেষ হলে প্রথম ধাপে চলাচল করবে পণ্যবাহী রেল,দ্বিতীয় ধাপে যাত্রীবাহী ট্রেন। যাত্রীবাহী ট্রেনের মধ্যে ঢাকা হতে নিউ জলপাইগুড়ি(শিলিগুড়ি) ও নিউ জলপাইগুড়ি থেকে বাংলাদেশের দর্শনা সীমান্ত হয়ে কলকাতা শিয়ালদহ পর্যন্ত ট্রেন চলবে।

দিনাজপুর গ্যালারী ষড়ং এর ৪র্থ শিশু-কিশোর চারুকলা প্রদর্শনীর উদ্বোধন

Posted by News Editor | Saturday, November 11, 2017 | Posted in

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : প্রতিভা বিকাশে শিশুদের সৃজনশীল মানসিকতায় গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি বলেছেন, শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ কর্মধার। 
তাদের সৃজনশীল মানসিকতায় গড়ে তুলতে হবে। এ জন্য পাঠ্যভ্যাসের পাশাপাশি শিশুদের সৃজনশীল কাজে উৎসাহিত করতে অভিভাবকদের অধিক যতœবান হতে হবে। শিশুরাই আগামীর ভবিষ্যৎ, ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কল্যাণে শিশুদের সঠিক পরিচর্যা নিশ্চিত করতে হবে। কম বয়সেই যদি শিশুদের সঠিকভাবে গড়ে তোলা না যায়, তাহলে তারা বিপদগামী হতে পারে। এ ব্যাপারে তিনি অভিভাবকদের শিশুদের প্রতি যতœবান হওয়ার আহবান জানান। গতকাল জেলা শিল্পকলা একাডেমী পাঙ্গণে দিনাজপুর গ্যালারী ষড়ং এর ৪র্থ শিশু-কিশোর চারুকলা প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তি বিজ্ঞান, শিল্প-সাহিত্য ও খলাধুলাসহ সকল দিকে এগিয়ে চলেছে আমাদের দেশ।
 আমাদের শিশু-কিশোরেরও বিশ্বের সাথে সমান তালে এগিয়ে চলছে তাদের সৃজনশীল চিন্তা-চেতনায়। শিশু-কিশোররা তাদের মনের বা ভাবের জগতে যা কিছু ভাবে, চিন্তা করে তা বড়দের কাছে প্রকাশ করতে চায় তার কাজে ও কর্মে। তাদের এই চিন্তা-চেতনা আর মনের ভাব প্রকাশের একটি বড় মাধ্যম হল চিত্রকলা। শিশুরা রঙ-তুলি দিয়ে ছবি আঁকার মাধ্যমে তার আবেগ-অনুভূতি, চিন্তা-চেতনা আর মনের ভাব প্রকাশ করে। দিনাজপুর গ্যালারী ষড়ং এর প্রধান উপদেষ্টা মোঃ রাজি উদ্দিন চৌধুরী ডাব্লিউ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন গ্যালারী ষড়ং এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবুল কালাম আজাদ। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর সম্মিলিত সংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক সুলতান কামাল উদ্দিন বাচ্চু, শহর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এস.এম খালেকুজ্জামান রাজু, রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী সংস্থার সভাপতি ফেরদৌস আর রহমান প্রমুখ। 
অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন চন্দন কুমার সরকার ও ইসমত জেবিন মৌটুসী। শিশুদের সমবেত কন্ঠে জাতীয় সঙ্গীত ও গ্যালারী ষড়ং এর সঙ্গীত পরিবেশনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর প্রধান অতিথি জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি ক্যাটালগ এর মোড়ক উন্মোচন ও নিজ হাতে ছবি এঁকে প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। শেষে তিনি প্রদর্শনীতে বিজয়ী শিশুদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ এবং প্রদর্শনী পরিদর্শন করেন।

চিলাহাটি ওয়েব ডট কম |

    পুরাতন সংবাদ