বিরামপুরে তিন জুয়াড়ীর কারাদন্ড

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 27 January, 2022 | 7:34:00 PM


মিজানুর রহমান মিজান, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ প্রকাশ্য জুয়া খেলার অপরাধে তিন জনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও একজনের নগদ ৫'শত টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমান আদালতের ভ্রাম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার। মামলা সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার(২৭ জানুয়ারী) দুপুর পৌনে দু'টায় দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার কাটলা ইউনিয়নের দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর সীমান্তবর্তী এলাকায় ছোট যমুনা নদীর ধারে প্রকাশ্য জুয়া খেলার সংবাদের ভিত্তিতে ভ্রাম্যমান আদালতের ভ্রাম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার ও বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নেতৃত্বে সর্ঙ্গীয় ফোর্স যৌথ অভিযান চালান। এসময় জুয়ার সরঞ্জামাদীসহ আজাদ (৬৫), শাহার উদ্দিন (৬৭), মিজানুর (৪৪), ও মাহফুজুর রহমান (৪২) কে গ্রেপ্তার করা হয়। অত:পর ঘটনা স্থলেই ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার তাৎক্ষনিক মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে আজাদ (৬৫), শাহার উদ্দিন (৬৭), মিজানুর (৪৪) প্রত্যেককে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও মাহফুজুর রহমান (৪২) এর নগদ ৫'শত টাকা জরিমানা করেছেন। মোবাইল কোর্টে কারাদন্ড প্রাপ্তরা হলেন, হাকিমপুর উপজেলা খট্রামাধবপাড়া গ্রামের মৃত সোবাহানের ছেলে আজাদ (৬৫) ও একই গ্রামের মৃত জান বক্সের ছেলে শাহার উদ্দিন (৬৭), বিরামপুর উপজেলার দাউদপুর গ্রামের নিজাম উদ্দিনের ছেলে মিজানুর (৪৪) ও একই উপজেলার রামচন্দ্রপুর গ্রামের মৃত নইমুদ্দিনের ছেলে মাহফুজুর রহমান (৪২)। বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার মহন্ত জানান, উপজেলা প্রশাসন ও থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে প্রকাশ্য জুয়া খেলার অপরাধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার মহোদয় তিন জনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড ও একজনের নগদ ৫'শত টাকা জরিমানা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) পরিমল কুমার সরকার বলেন, ১৮৬৭ প্রকাশ্য জুয়া আইনের ৪ ধারায় তিনকে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান এবং একজনকে নগদ ৫'শত টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৫

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 26 January, 2022 | 7:00:00 PM


বগুড়া প্রতিনিধি : বগুড়ার শেরপুরে যাত্রীবাহী বাসের চাপায় সিএনজি অটোরিকশার চালকসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার বিকাল সোয়া ৫টায় উপজেলার ঢাকা-বগুড়া মহাসড়কের মির্জাপুর ইউনিয়নের আমতলা নামক স্থানে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা বগুড়াগামী হানিফ পরিবহনের একটি বাস ঘটনাস্থলে শেরপুর থেকে চান্দাইকোনা গামী সিএনজি অটোরিকশাকে সামনে থেকে চাপা দেয়। এতে অটোরিকশাটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় অটোরিকশার ভেতরে থাকা চালকসহ ৫জন যাত্রী ঘটনাস্থলেই নিহত হন। এছাড়া অটোরিকশায় থাকা অপর এক যাত্রী গুরুতর আহত হন। তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিহতদের পরিচয় এখনও পাওয়া যায়নি। শেরপুর হাইওয়ে থানার ইনচার্জ একেএম বানিউল আনাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

হারিয়ে যাচ্ছে লাঙল দিয়ে জমি চাষ


আপেল বসুনীয়া, চিলাহাটি ওয়েব : জমি চাষের ঐতিহ্যবাহী একটি চিরায়ত পদ্ধতি ছিলো গরু-মহিষ, জোয়াল ও লাঙল দিয়ে জমি চাষ। এটি ছিলো অনেক উপকারী এক পদ্ধতি। কারণ লাঙলের ফলা জমির অনেক গভীর অংশ পর্যন্ত আলগা করতো। গরুর পায়ের কারণে জমিতে কাদা হতো অনেক এবং গরুর গোবর জমিতে পড়ে জমির উর্বরতা শক্তি অনেক বৃদ্ধি করতো। কিন্তু কালের বিবর্তনে আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যাচ্ছে গ্রাম বাংলার এই ঐতিহ্যটি। দেশের উত্তর জনপদের খাদ্য ভাণ্ডার হিসেবে খ্যাত নীলফামারীর চিলাহাটি লাঙল দিয়ে জমি চাষ এখন আর চোখে পড়ে না। আধুনিক কৃষি প্রযুক্তির ছোঁয়াই হারিয়ে গেছে এই চিরচেনা দৃশ্যটি। একসময় দেখা যেত সেই কাক ডাকা ভোরে কৃষকরা গরু ও কাঁধে লাঙল-জোয়াল নিয়ে বেরিয়ে পড়তো মাঠের জমিতে হালচাষ করার জন্য। বর্তমানে আধুনিকতার স্পর্শে ও বিজ্ঞানের নতুন নতুন আবিষ্কারের ফলে কৃষকদের জীবনে এসেছে নানা পরিবর্তন। আর সেই পরিবর্তনের ছোঁয়াও লেগেছে কৃষিতে। তাই সকালে কাঁধে লাঙল-জোয়াল নিয়ে মাঠে যেতে আর দেখা যায় না কৃষকদের। কৃষি প্রধান বাংলাদেশের হাজার বছরের ইতিহাসের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে গরু, লাঙল ও জোয়াল। আধুনিকতার ছোঁয়ায় হালচাষের পরিবর্তে এখন ট্রাক্টর অথবা পাওয়ার টিলার দিয়ে অল্প সময়ে জমি চাষ করা হয়। এক সময় দেশের বিভিন্ন জেলা-উপজেলায় বাণিজ্যিকভাবে কৃষক গরু, মহিষ পালন করত হালচাষ করার জন্য। আবার অনেকে গবাদিপশু দিয়ে হালচাষকে পেশা হিসেবে বেছে নিয়ে ছিলেন। আবার অনেকে, ধান গম, ভুট্টা, তিল, সরিষা, কলাই, আলু প্রভৃতি চাষের জন্য ব্যবহার করতেন। নিজের সামান্য জমির পাশাপাশি অন্যের জমিতে হালচাষ করে তাদের সংসারের ব্যয়ভার বহন করত। হালের গরু দিয়ে দরিদ্র মানুষ জমি চাষ করে ফিরে পেত তাদের পরিবারের সচ্ছলতা। আগে দেখা যেত কাক ডাকা ভোরে কৃষক গরু, মহিষ, লাঙল, জোয়াল নিয়ে মাঠে বেরিয়ে পড়তো। এখন আর চোখে পড়ে না সে দৃশ্য। জমি চাষের প্রয়োজন হলেই অল্প সময়ের মধ্যেই পাওয়ার টিলারসহ আধুনিক যন্ত্রপাতি দিয়ে চালাচ্ছে জমি চাষাবাদ। তাই কৃষকরা এখন পেশা বদলি করে অন্য পেশায় ঝুঁকছেন। ফলে দিন দিন হারিয়ে যাচ্ছে গরু, মহিষ, লাঙল, জোয়াল দিয়ে জমিতে হাল চাষ। এখন নতুন নতুন আধুনিক বিভিন্ন মেশিন এসেছে, সেই মেশিন দিয়ে এখানকার লোকজন জমি চাষাবাদ করে। তাই গরু, মহিষ, লাঙল, জোয়াল নিয়ে জমিতে হাল চাষ করা এখন হারিয়ে যেতে বসেছে।

চিলাহাটিতে দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ

আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : দেশে চলছে কনকনে শীত, পাশাপাশি ঘন কুয়াশায় অসহায় দারিদ্র মানুষের কষ্টের সীমা থাকে না। এসব হতদরিদ্র শীতার্ত মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র।
আজ বুধবার দুপুরে প্রশিকা চিলাহাটি অফিস কার্যালয়ে প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্রের প্রধান নির্বাহী সিরাজুল ইসলামের পৃষ্ঠপোষকতায় চিলাহাটির ১০০ জন দুস্থ-অসহায় মানুষদের মাঝে এ শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। শীত বস্ত্র বিতরণ করেন প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র নীলফামারী ও পঞ্চগড় জোন বিভাগীয় ব্যবস্থাপক আলহাজ উদ্দিন, ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান রেয়াজুল ইসলাম কালু,চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মোহাম্মদ শহীদ তিতুমীর, প্রশিকা মানবিক উন্নয়ন কেন্দ্র চিলাহাটি এরিয়া ম্যানেজার বেলাল হোসেন, চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এএসআই তরুণ চন্দ্র রায়, সমাজসেবক আব্দুল কাদের প্রমুখ।

চিলাহাটিতে সরিষায় ছেয়ে গেছে মাঠ, বাম্পার ফলনের আশা কৃষকের


আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে মাঠে মাঠে হলুদ বরণ সরিষা ফুলে দোল খাচ্ছে কৃষকের স্বপ্ন। মাঠ জুড়ে চির সবুজের বুকে কাঁচা হলুদের রঙের উৎসব এনেছে। যা প্রকৃতিকে এনে দিয়েছে ভিন্ন রুপ। এ যেন প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্য্যে। ফুলে ফুলে ভরে গেছে পুরো ক্ষেত। রঙের এই মেলায় প্রকৃতি যেন নিজের খেলায় হাসছে। হলুদের এই চোখ জুড়ানো দৃশ্য দেখে যে কারো মন জুড়িয়ে যাবে। কাচা হলুদের ছন্দে হাসি ফুটেছে সরিষা চাষির মুখে। ভালো দাম পাওয়ার আশায় চিলাহাটির বিভিন্ন এলাকার কৃষকরা সরিষা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে। এ এলাকায় তেমন একটা সরিষার চাষ না হলে ও এ বছর বিপুল পরিমান সরিষার চাষ লক্ষ্য করা গেছে। কেতকীবাড়ির কৃষক আবুল কালাম জানান, সরিষা মুলত বোনাস ফসল। বীজ বপনের পর থেকে সর্বোচ্চ ৭০-৮৫ দিনের মধ্যেই সরিষা ঘরে তোলা যায়। অল্প পরিমাণ ইউরিয়া ও টিএসপি ছাড়া অন্য কোনো সারের প্রয়োজন হয় না। চারা গজানোর পর আগাছা ছাড়া কোনো পরিশ্রমের প্রয়োজন হয় না। তাই সরিষা চাষে বিঘা প্রতি সর্বোচ্চ ১৫০০ থেকে ২০০০ হাজার টাকা খরচ হয় বলে জানান সরিষা চাষিরা।

শীত উপক্ষো করে ধান চাষে ব্যস্ত কৃষক


    আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে ধান চাষে ব্যস্ত সময় পার করছেন কৃষক। চিলাহাটির বিস্তীর্ণ ফসলি জমিতে রোপন করা হচ্ছে ধানের চারা। শীতের হিমেল হাওয়া উপেক্ষা করে চলছে কৃষকদের ব্যস্ততা। 
    জানা গেছে, আগাম জাতের ইরি-বোরো ধানের বীজ রোপণের হিড়িক পড়েছে। অন্য বছরের তুলনায় চলতি মৌসুমে নীলফামারী জেলায় তিনগুণ বেশি জমিতে ইরি বোরো ধান চাষ হবে বলে জানিয়েছেন কৃষকেরা।
    আমন ধানের দাম ভালো না পাওয়ায় ইরি ও বোরো ধানের আবাদে ঝুঁকেছেন কৃষকেরা। চলতি মৌসুমে শীতে বীজ তলার তেমন ক্ষতি না হওয়ায় জমিতে চাষাবাদ ঠিকমতো করা হচ্ছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চলতি ইরি- বোরো মৌসুমে নির্ধারিত লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।
    সরেজমিনে দেখা গেছে, চিলাহাটির বিভিন্ন স্থানের কৃষকেরা ভোর থেকে ব্যস্ত সময় পার করছেন ফসলের ক্ষেতে। শীত উপেক্ষা করে ধানের চারা রোপন করছেন। নদী তীরবর্তী জমিতেও রোপণ করা হচ্ছে বোরো ধান।

    চিলাহাটিতে যৌতুক লোভী স্বামীর কারণে ঘর ভেঙ্গে যাচ্ছে মোহনার

    চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 17 January, 2022 | 4:10:00 PM

    চিলাহাটি ওয়েব ডেস্ক : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে যৌতুকের টাকার জন্য শ্বশুর-শাশুড়ি ও স্বামীর অবহেলা ও অমানুষিক নির্যাতনের শিকার এক গৃহবধূ।
    এ নিয়ে নীলফামারী বিজ্ঞ আমলি আদালত ও জজ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
    মামলা সূত্রে জানা গেছে- নীলফামারী জেলার চিলাহাটির কেতকীবাড়ি ইউনিয়নের বোতলগঞ্জ এলাকার নিজামুল সরকার মানিকের পুত্র সুজন ইসলাম (২৭) এর সাথে ২০২০ সালের ২৫ মে নিলফামারীর দারোয়ানি টেক্সটাইল মোল্লাপাড়া গ্রামের মহির শাহ্ এর কন্যা মনিরা আক্তার মোহনা (২০) এর বিয়ে হয়।
    বিয়ের সময় জামাতাকে যৌতুকের সবকিছু বুঝিয়ে দেওয়া হলেও পরবর্তীতে আবারো ২ লক্ষ টাকা দাবি করে সুজন ও তার পরিবার। এক পর্যায়ে সে টাকার জন্য মোহনার উপর চালায় অমানুষিক নির্যাতন। এদিকে মোহনা তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। তার বাপের বাড়ি থেকে টাকা না আনার কারণে ২০২১ সালের ৬ মার্চ মোহনাকে অমানুষিক নির্যাতনের পর শশুর বাড়ি থেকে বের করে দেয়। মোহনা বাপের বাড়ি আসার পর পুত্র সন্তানের জন্ম দেয়।
    মোহনা অভিযোগ করে বলেন- আমার বাবা আমার বিয়েতে সবকিছু দেওয়ার পরেও আমার শ্বশুরবাড়ির লোকজন আমার সঙ্গে অমানুষিক নির্যাতন করে। আমার স্বামী পরকীয়ায় লিপ্ত আছে, তার জন্য সে আমার সঙ্গে এরকম আচরণ করছে। মোহনার বাবা মহির শাহা বেশ কয়েকবার আপোষ মীমাংসা করার চেষ্টা করেন, কিন্তু অর্থ লোভী স্বামী ও তার পরিবারের সদস্যরা টাকা ছাড়া আপোষ মিমাংসায় বসতে নারাজ।
    অবশেষে সুখ বিসর্জন দিয়ে মনিরা আক্তার মোহনা তার স্বামীসহ ৫ জন সদস্যের বিরুদ্ধে ২০২১ সালের ৫ ডিসেম্বর নীলফামারী বিজ্ঞ আমলি আদালতে একটি, ১৫ ডিসেম্বর তার স্বামীর বিরুদ্ধে দেনমোহরানা ও খোরপোষের দাবিতে একটি,বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে স্বামীসহ ৬ জনকে আসামী করে একটি ও মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আসামিগন মেয়ের পরিবার ও সাক্ষীদের জীবন নাশের হুমকি প্রদান করলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উক্ত ৬ জনের বিরুদ্ধে পুনরায় একটি মামলা দায়ের করেন।

    উত্তরা কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন এর বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

    চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 14 January, 2022 | 6:11:00 PM

    আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে উত্তরা কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ এর চতুর্থ বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
    আজ শুক্রবার বিকালে দি কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লীগ অব বাংলাদেশ এর সহযোগিতায় উত্তরা কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ এর চেয়ারম্যান জামাল উদ্দিন আহমেদ জামানের সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন নীলফামারী ক্রেডিট ইউনিয়ন ক্লাস্টার কমিটির ভাইস-চেয়ারম্যান মোজাফ্ফর হোসেন কাজল,কালব এর জেলা ব্যবস্থাপক মহরুল আলম,ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মজিবুল ইসলাম প্রমুখ।

    চিলাহাটিতে উত্তরা ফাউন্ডেশনের কর্মী সম্মেলন

    আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে উত্তরা ফাউন্ডেশনের কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ শুক্রবার সকালে অফিস চত্বরে এ কর্মী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় ‌‌। প্রতিষ্ঠানটির চেয়ারম্যান ও নির্বাহী পরিচালক জামাল উদ্দিন আহমেদ জামান এর সভাপতিত্বে উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন চিলাহাটি পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ শহীদ তিতুমীর।
    বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম কালু, কেতকীবাড়ী ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান রশিদুল ইসলাম রোমান, ডিমলা সরকারি মহিলা কলেজের প্রফেসর মোজাফফর হোসেন কাজল।
    বক্তব্য রাখেন- উত্তরা ফান্ডেশন চিলাহাটি প্রধান কার্যালয়ের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার মজিবুল ইসলাম,সহকারী শিক্ষা প্রকল্প সমন্বয়কারী মমতাজুর রহমান একাউন্টেন্ট ফাতেমা আক্তার, ফিল্ড অফিসার ইমরান হোসেন, জিতেন সেন,কার্যকরী কমিটির সদস্য মাহবুবুল হক ওহাবুল, জিল্লুর রহমান ওরেন্স প্রমূখ। উক্ত অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শিক্ষা অফিসার আজিনুর ইসলাম।

    পীরগঞ্জে ৩ দিন ব্যাপী সাংস্কৃতিক ও বিচিত্রা অনুষ্ঠান

    চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 12 January, 2022 | 5:27:00 PM

    শেখ সমশের আলী, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি ॥ পীরগঞ্জ উপজেলার জাবরহাট হেমচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগীতা উপলক্ষ্যে ৩ দিন ব্যাপী সাংস্কৃতিক ও বিচিত্রা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। এলাকার প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের মনের আনন্দ ও চিত্র বিনোদনের জন্যে এ আয়োজন কা হয়। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে খ্যাত নামা কন্ঠ শিল্পী ও স্থানীয় প্রতিভাবান কন্ঠ শিল্পীদের নিয়ে গত সোমবার এ অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে এবং বুধবার রাতে সমাপ্ত হবে বলে জানা গেছে। জাবরহাট হেমচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি ও বিশিষ্ট সমাজ সেবক গিয়াস উদ্দীন এর আয়োজন করেন। অন্যান্যে মধ্যে প্রধান অতিথি হিসেবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রেজাউল করিম, গেষ্ট অব অনার থানা অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম, পুলিশ পরিদর্শক (এসপিবিএম) ক্ষিতীশ চন্দ্র রায়, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ আরিফুল্লাহ, পিআইও মোঃ তারিফুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি ইউ’পি চেয়ারম্যান জিয়াউর রহমান জিয়া, সাবেক ইউ’পি চেয়ারম্যান হুমায়ুন কবীর, সলিমুল্লাহ নবাব, ইউ’পি সদস্য সাহের আলী, কন্ঠ শিল্পী নিজাম উদ্দীন জাহিন, স্বর্ণালী প্রিয়াঙ্কা, নকুল কুমার, হারুন কিসিঞ্জার সহ স্থানীয় অসংখ্য মানুষ উপস্থিত ছিলেন।