Header Ads Widget

বিরামপুরে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ মিছিল

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Wednesday, July 17, 2024 | 7/17/2024 04:31:00 PM

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : সারাদেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের নৃশংস হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাধারণ শিক্ষার্থীরা। বুধবার (১৭ জুলাই) বেলা সাড়ে ১০ ঘটিকায় বিরামপুর পশু হাট থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।
বিরামপুর পশু হাট এলাকা থেকে বিরামপুর সরকারি কলেজের সামনে উপজেলা পরিষদের গেট পর্যন্ত শতাধিক শিক্ষার্থীর অংশগ্রহণে বিক্ষোভ মিছিলটি অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষোভ মিছিলে শিক্ষার্থীরা,আমার ভাইয়ের বুকে রক্ত কেন, জবাব চাই জবাব চাই, কোটা না মেধা, মেধা মেধা’ চাইতে গেলাম অধিকার,হয়ে গেলাম রাজাকার'কে বলেছে,কে বলেছে স্বৈরাচার, স্বৈরাচার, তুমি কে, আমি কে রাজাকার,রাজাকার ইত্যাদি স্লোগান দিতে থাকেন। বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে বাদশাহ নাজ্জাসী বলেন, আমাদের এই আন্দোলনের মাধ্যমে কোটার সংস্কার চাই। মুক্তিযোদ্ধাদের ছেলেপেলে পর্যন্ত যেন এই কোটা থাকে আর নাতিপুতি পর্যায়ের কোটাটার বাতিল চাই।কোটার কারনে মেধা ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে,আর এই মেধা যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয় তার কারনে আমাদের এই আন্দোলন।
তিনি আরো বলেন কোটা আন্দোলনের যে কেন্দ্রীয় সমন্বয়ক আছে তাদের সাথে আমরা একাত্মতা ঘোষণা করছি। বিক্ষোভ আন্দোলন চলাকালীন সময়ে বিরামপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সুব্রত কুমার সরকার এবং বিরামপুর ও নবাবগঞ্জ থানার সার্কেল এএসপি মঞ্জুরুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও যথেষ্ট পরিমাণে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক অবস্থায় ছিলেন যেন আইনশৃঙ্খলার কোন অবনতি না ঘটে। বিক্ষোভ আন্দোলন শেষে শান্তিপূর্ণভাবে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনের স্থান ত্যাগ করে।

গাইবান্ধা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আটক

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা : গাইবান্ধা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি খন্দকার জাকারিয়া আলম জীমকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) দিবাগত রাত দুইটার দিকে পৌর শহরের ফকিরপাড়া মোড় এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।
আটকের বিষয়টি জীমের ছোটভাই অ্যাডভোকেট খন্দকার আল আমিন নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাত থেকেই পুলিশ বাসার চারদিকে ঘুরছিল। বাস টার্মিনাল থেকে বাসায় ঢোকার সময় ফকির পাড়া মোড় থেকে তাকে পুলিশ আটক করে নিয়ে যায়। এ সময় আমি পুলিশকে জিজ্ঞেস করেছিলাম তারা কোনো উত্তর দেননি।
এ বিষয়ে জানতে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদ রানার ব্যবহৃত সরকারি মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাকে পাওয়া যায়নি।
সদর থানা ছাত্রদলের আহ্বায়ক ইমাম হাসান আলাল বলেন, কোটাবিরোধী আন্দোলন দমানের জন্য বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাদের বাড়িতে রাতে হান্না দিচ্ছে পুলিশ।

বিরামপুরে বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষে চলছে কোচিং

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুর দিনাজপুর প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলার সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শ্রেণী কক্ষে চলছে কোচিং বাণিজ্য।
যদিও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের কোচিং বাণিজ্য বন্ধ নীতিমালা-২০১২ বলা হয়েছে সরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কোনো শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে জড়িত থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে সরকারি কর্মচারী (শৃঙ্খলা ও আপীল) বিধিমালা, ১৯৮৫ এর অধীনে অসদাচরণ হিসেবে গণ্য করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
এছাড়াও বলা হয়েছে কোনো শিক্ষক কোচিং বাণিজ্যে জড়িত থাকলে তাঁর এমপিও স্থগিত, বাতিল, বেতন ভাতাদি স্থগিত, বার্ষিক বেতন বৃদ্ধি স্থগিত, বেতন এক ধাপ অবনমিতকরণ, সাময়িক বরখাস্ত, চূড়ান্ত বরখাস্ত ইত্যাদি শাস্তিমূলক ব্যবস্থা কর্তৃপক্ষ গ্রহণ করবেন। এই নীতিমালাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে বিরামপুর সরকারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আব্দুল খালেক বিদ্যালয়ের নৈশপ্রহরীকে দিয়ে বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষে চালিয়ে যাচ্ছেন কোচিং বাণিজ্য।
নীতিমালায় আরো বলা হয়েছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান কার্যক্রম চলাকালীন শ্রেণি সময়ের মধ্যে কোন শিক্ষক কোচিং করাতে পারবেন না। তবে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের নির্ধারিত সময়ের পূর্বে বা পরে শুধুমাত্র অভিভাবকদের আবেদনের প্রেক্ষিতে প্রতিষ্ঠান প্রধান অতিরিক্ত ক্লাসের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারবেন।
এ ক্ষেত্রে প্রতি বিষয়ে মেট্রোপলিটন শহরে মাসিক সর্বোচ্চ ৩০০ (তিনশত) টাকা, জেলা শহরে ২০০ (দুইশত) টাকা এবং উপজেলা বা স্থানীয় পর্যায়ে ১৫০ (একশত পঞ্চাশ) টাকা রসিদের মাধ্যমে অতিরিক্ত সময় ক্লাস পরিচালনার জন্য আগ্রহী শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে ফি আকারে গ্রহণ করা যাবে যা সর্বোচ্চ ১,২০০ (এক হাজার দুইশত) টাকার অধিক হবে না। দরিদ্র শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠান প্রধান স্ববিবেচনায় এ হার কমাতে/মওকুফ করতে পারবেন। একটি বিষয়ে মাসে সর্বনিম্ন ১২(বার) টি ক্লাস অনুষ্ঠিত হতে হবে এবং এক্ষেত্রে প্রতিটি ক্লাসে সর্বোচ্চ ৪০ (চল্লিশ) জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করতে পারবে। এনীতিমালার তোয়াক্কা না করে, আবেদন ছাড়াই অনেক প্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত ক্লাসের নামে চলছে কোচিং বাণিজ্য এবং রশিদ ছাড়া নেওয়া হচ্ছে টাকা এছাড়াও হতদরিদ্র পরিবারের প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীসহ সকলের কাছ থেকে নেওয়া হচ্ছে ৫০০-৭০০ করে টাকা।
বিরামপুর উপজেলার বেশ কিছু স্কুল,কলেজে, মাদ্রাসা ও ভোকেশনাল ইনস্টিটিউট এর কিছু শিক্ষক আইন না মেনে অন্য বিদ্যালয়ের শ্রেণী কক্ষে এবং ভাড়াবাড়িসহ নিজ বাড়িতে প্রতিষ্ঠান প্রধানকে অবহিত না করে প্রাইভেটসহ কোচিং বাণিজ্য চালিয়ে যাচ্ছে। এবিষয়ে অভিভাবকরা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কোচিং বাণিজ্য এখন মহামারিতে পরিণত হয়েছে। যেহেতু একই শিক্ষক স্কুলে পড়ান, আবার (অতিরিক্ত ক্লাস)কোচিং ও প্রাইভেট পড়ান, তাই কোচিং ও প্রাইভেটে না গেলে স্কুলে নানাভাবে হেয় করা হয়, নম্বর কম দেয়া হয়।৪/৫টি বিষয়ে (অতিরিক্ত ক্লাস)কোচিং এবং প্রাইভেট পড়াতে মধ্যবিত্ত, নিম্নমধ্যবিত্ত পরিবারের অভিভাবকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছেন এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের প্রাইভেট পড়ানো এবং কোচিং বাণিজ্য বন্ধ নীতিমালা-২০১২ বাস্তবায়নে কর্তৃপক্ষের অবহেলাকে দায়ী করেন।
বিরামপুর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শমসের আলী মন্ডলের সাথে মুঠোফোনে কথা বললে তিনি বলেন, নীতিমালার বাইরে কোন শিক্ষক প্রাইভেট অথবা কোচিং বাণিজ্য করলে সে বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।
বিরামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুজহাত তাসনীম আওন বলেন, আমি শিক্ষকদের নিয়ে বসবো এবং বিষয়টি দেখবো।

পীরগঞ্জে উন্নত পাট বীজ উৎপাদনে চাষী প্রশিক্ষণ

শেখ সমশের আলী, (পীরগঞ্জ) ঠাকুরগাঁও, প্রতিনিধি : পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে দিন ব্যাপী পাট বীজ উৎপাদনকারী চাষী প্রশিক্ষণ মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত হয়।
৭৫ জন নারী পুরুষ (পাট চাষী) এ প্রশিক্ষণে অংশ নেয়। “বঙ্গবন্ধুর সোনার দেশ, স্মার্ট পাট শিল্পে বাংলাদেশ” এই স্লোগান কে অনুসরণ করে উন্নত প্রযুক্তি নির্ভর পাট ও পাট বীজ উৎপাদন সম্প্রসারণ শীর্ষক (১ম সংশোধিত) প্রকল্পের আওতায় কর্তৃপক্ষ এ প্রশিক্ষণের আয়োজন করেন।
প্রশিক্ষক হিসেবে পাট চাষীদের উন্নত প্রশিক্ষণ দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রমিজ আলম, ঠাকুরগাঁও জেলা পাট উন্নয়ন অফিসার অসীম কুমার মালাকার, ঠাকুরগাঁওয়ের অতিরিক্ত উপ-পরিচালক (শস্য) কৃষিবিদ আলমগীর হোসেন, পীরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ লায়লা আরজুমান বেগম, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা কৃষিবিদ হরি রায়, উপ-সহকারী পাট কর্মকর্তা তানিয়া আক্তার প্রমুখ।

পীরগঞ্জে স্মরণ সভায় রাশেদ খান মেনন এমপি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Sunday, July 14, 2024 | 7/14/2024 02:42:00 PM

শেখ সমশের আলী, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও ) প্রতিনিধি : ঠাকুরগাঁও ৩ আসনের সাবেক এমপি ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড শহীদুল্লাহ শহীদ (৭৫) এর মৃত্যুতে দলের যে ক্ষতি হয়েছে তা পূরণ হওয়ার মত নয়। তিনি ছিলেন দলের নিবেদিত প্রাণ। তিনি বলিষ্ঠ নেতৃত্ব দিয়ে ওয়াকার্র্স পার্টিকে অনেক দুর এগিয়ে নিয়েছেন। তৃণমূল পযার্য়ের নেতাকমীর্রা তাকে অনেক ভালোবাসতেন। তিনি ছিলেন বিশ^স্ত, সৎ ও প্রতিবাদী নেতা। শনিবার পীরগঞ্জ পৌর অডিটোরিয়ামে শোক ও স্মারণ সভায় রাশেদ খান মেনন এসব কথা বলেন। নেতাকমীর্রা তার বিদেহী আত্নার মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল করা, বৃক্ষরোপন করা ও অন্যান্য কর্মসূচী পালন করেন। আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন— ওয়াকার্র্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির পলিট ব্যুরো সদস্য কমরেড মাহমুদুল হাসান মানিক। অন্যান্যের মধ্যে ঠাকুরগাঁও জেলা ওয়াকার্র্স পার্টির সভাপতি, ঠাকুরগাঁও ৩ আসনের সাবেক এমপি কমরেড অধ্যাপক ইয়াসিন আলী, ওয়াকার্র্স পার্টির নেতা ডিএন ডিগ্রী কলেজ অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র রায়, কমরেড আবু জাহেদ মুহাঃ ইবনুল ইকরাম জুয়েল, এ্যাডভোকেট আবু সায়েম, সমির শাহজাহান প্রভাত সহ ৫ শতাধিক নেতাকমীর্ উপস্থিত ছিলেন।

পীরগঞ্জে ডায়াবেটিস হাসপাতাল উদ্বোধন করলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Saturday, July 13, 2024 | 7/13/2024 10:25:00 PM

শেখ সমশের আলী, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : বর্তমান সরকার জনগনকে শতভাগ স্বাস্থ্য সেবা দেওয়ার লক্ষ্যে নানামুখি পদক্ষেপ নিয়েছে। ইউনিয়ন পর্যায়ে ও গ্রামে প্রত্যন্ত অঞ্চলে কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপন করেছে। সেখান থেকে প্রতিদিন অসংখ্যা মানুষ চিকিৎসা সেবা নিচ্ছে।
উপজেলা, জেলা ও বিভাগীয় পর্যায়ে অনেক ডাক্তার পোস্টিং দেওয়া হয়েছে। ডাক্তারদের অভিজ্ঞ করে তুলার লক্ষ্যে নানা রকম প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি রোগীরা হাসপাতাল গুলো থেকে বিনা মূল্যে ঔষধ পাচ্ছেন।
বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মানবতার মা শেখ হাসিনা বাংলাদেশের সব শ্রেণীর মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করা, বড় বড় হাসপাতাল নিমার্ণ, দক্ষ জনবল নিয়োগ দেওয়া সহ নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন।
যা দেশে বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। শনিবার দুপুরে পীরগঞ্জে বিশ শয্যা ডায়াবেটিস এন্ড জেনারেল হাসপাতাল উদ্বোধন কালে স্বাস্থ্যমন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ সামন্ত লাল সেন এসব কথা বলেন।
এ উপলক্ষ্যে ডায়াবেটিস হাসপাতাল চত্ত্বরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বক্তব্য দেন— স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী অধ্যাপক ডাঃ সামন্ত লাল সেন, ঠাকুরগাঁও ৩ আসন সংসদ সদস্য ডায়াবেটিস ও জেনারেল হাসপাতাল সভাপতি হাফিজ উদ্দিন আহম্মেদ, ডায়াবেটিস সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি অধ্যাপক এ.কে আজাদ খান, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ অধিদপ্তরের মহা পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ এ.বি.এম খুরশীদ আলম, ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক মাহাবুবুর রহমান, অধ্যাপক ডাঃ এম.এ রশিদ, ডায়াবেটিস হাসপাতাল প্রতিষ্ঠাতা ও সাধারন সম্পাদক ফইজুল ইসলাম, পীরগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী অফিসার রমিজ আলম, পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা ডাঃ আব্দুল জব্বার, সহকারী কমিশনার ভূমি এম.এন. ইশফাকুল কবীর, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক রেজওয়ানুল হক বিপ্লব, পুলিশের উর্দ্বতন কর্মকর্তা, গোয়েন্দা সংস্থা, মুক্তিযোদ্ধা, সুশীল সমাজ, সংবাদ কমীর্ সহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী দুপুর ২ ঘটিকায় পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কার্যক্রম পরিদর্শন করে সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন ধরে সিজারিয়ান কার্যক্রম বন্ধ থাকায় তা দ্রুত চালু করার প্রতিশ্রম্নতি দেওয়া সহ হাসপাতালে যাবতীয় সমস্যা সমাধান করবেন বলে জানান।

বন্যায় ১৩৯ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা আশ্রয়কেন্দ্রে যাচ্ছেন বন্যার্তরা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Sunday, July 7, 2024 | 7/07/2024 11:30:00 PM

ছাদেকুল ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা :বন্যায় গাইবান্ধার সদর, ফুলছড়ি, সাঘাটা ও সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ২৯ ইউনিয়নের ৬৭ হাজার ৭২৯টি পরিবার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে পাট, ভুট্টা, আউশ ধান ও আমন বীজতলাসহ আড়াই হাজার হেক্টরের অধিক জমির ফসল। পানি ওঠায় ১৩৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। 
গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের তথ্যানুযায়ী, রোবার (৭ জুলাই) বিকাল ৩টায় গত ২৪ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র নদের পানি ফুলছড়ি উপজেলার তিস্তামুখ পয়েন্টে ১৩ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ৭৩ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া ঘাঘট নদীর পানি জেলা শহরের নতুন ব্রিজ পয়েন্টে ১১ সেন্টিমিটার কমে বিপৎসীমার ২৪ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। করতোয়া নদীর পানি গোবিন্দগঞ্জের কাটাখালী পয়েন্টে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৪ সেন্টিমিটার হ্রাস পেয়ে বিপৎসীমার ১৪৯ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। তবে আবারও বাড়তে শুরু করেছে তিস্তা নদীর পানি। গত ২৪ ঘণ্টায় ২০ সেন্টিমিটার বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার ১১ সেন্টিমিটার নিচ দিয়ে প্রভাবিত হচ্ছে। গাইবান্ধার যমুনা ও ব্রহ্মপুত্রের পানি অস্বাভাবিক হারে বৃদ্ধি পেয়ে ৪ উপজেলার নিম্নাঞ্চল ও নদী তীরবর্তী নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়ে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে। পানিবন্দি এসব এলাকার মানুষ গবাদিপশু নিয়ে বিপাকে পড়েছে। প্রকট আকার ধারণ করেছে গোখাদ্যসহ বিশুদ্ধ পানি ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা। জেলা প্রশাসনের দেওয়া সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গাইবান্ধার সদর উপজেলার ৫টি ইউনিয়ন, সুন্দরগঞ্জের ৯টি, সাঘাটার ৮টি ও ফুলছড়ি উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন বন্যায় প্লাবিত হয়েছে। ২৯ ইউনিয়নে পানিবন্দি পরিবারের সংখ্যা ৬৭ হাজার ৭২৯টি। এরমধ্যে গাইবান্ধা সদরে ৩৯ হাজার ৮৮৯টি, সুন্দরগঞ্জে ৫২ হাজার, সাঘাটা ১৫ হাজার ১৫০টি ও ফুলছড়ি ৭৪ হাজার ৯০টি পরিবার পানিবন্দি রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, বাস্তবে পানিবন্দি পরিবারের সংখ্যা আরও বেশি। পানিবন্দি এসব মানুষের জন্য স্থায়ী ও অস্থায়ী মিলে মোট ১৮১টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এর মধ্যে সাঘাটা উপজেলায় রয়েছে ৩৬টি, সুন্দরগঞ্জে ৪৮টি, ফুলছড়িতে ২৩টি, সদরে ২৪টি, সাদুল্যাপুরে ৩৩টি, পলাশবাড়ীতে ৬টি ও গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ১১টি আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। গাইবান্ধা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হাফিজুল হক জানান, টানা বৃষ্টি ও উজানের ঢলে জেলায় সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। ঘাঘট ও ব্রহ্মপুত্রের পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বন্যার প্রভাবে এ পর্যন্ত ১৩৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফলে শিশুদের পড়াশোনা ব্যাহত হচ্ছে। জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রোকসানা বেগম ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম জানান, বন্যার কারণে মাদ্রাসাসহ ২২টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। এরমধ্যে ফুলছড়ি উপজেলার একটি পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। অপরদিকে, জেলায় এ পর্যন্ত ১১৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রাখা হয়েছে। এরমধ্যে ১৭টি স্কুলে আশ্রয়কেন্দ্র খোলা হয়েছে। গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসুল বলেন, এ পযন্ত জেলার ১৩৯টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি জানান, বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলা এবং উপজেলায় নিয়ন্ত্রণ কক্ষ খোলা হয়েছে। ইউনিয়নভিত্তিক বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রয়েছে। প্রতিটি উপজেলায় মেডিকেল টিম, কৃষি টিম, স্বেচ্ছাসেবক টিম এবং লাইভস্টোক টিম গঠন করা হয়েছে। এছাড়া একাধিক এনজিও বানবাসী মানুষের সেবায় কাজ করছে।