Header Ads Widget

পীরগঞ্জ থানায় ৫ মাসে মাদক কারবারীসহ ২৮৬ জন গ্রেফতার

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Sunday, May 26, 2024 | 5/26/2024 01:48:00 PM

শেখ সমশের আলী, পীরগঞ্জ (ঠাকুরগাঁও) প্রতিনিধি : গত ৫ মাসে পীরগঞ্জ থানা পুলিশ ১১৫ মাদক কারবারী সহ ২৮৬ জন অপরাধীকে গ্রেফতার করেছে। মাদক ও বিভিন্ন ফৌজদারী অপরাধ নিয়ন্ত্রণে পীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খায়রুল আনাম নিরলশ ভাবে কাজ করছেন বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে।
তার যোগদানের পর থেকেই পীরগঞ্জ থানায় সেবার মান বেড়েছে। পুলিশ জনগণের বন্ধু হয়ে কাজ করছেন বলে শনিবার পীরগঞ্জ পৌর এলাকার মিত্রবাটি মহল্লার আব্দুল হান্নান হয়রানী মুক্ত পুলিশ সেবা পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন।
এছাড়া পীরগঞ্জ থানার চৌকশ পুলিশ স্টাফ ঠাকুরগাঁওয়ের জনবান্ধব পুলিশ সুপার উত্তম প্রসাদ পাঠক ও পীরগঞ্জ থানার ওসি খায়রুল আনামের বলিষ্ঠ নেতৃত্বে জনগণ কে বিভিন্ন ধরনের পুলিশি সেবা দিচ্ছেন। পীরগঞ্জ থানা সূত্রে জানা যায় ২০২৩ সালের ডিসেম্বর মাস থেকে ২০২৪ সালের এপ্রিল মাস পর্যন্ত এ থানায় ১১৫ জন মাদক কারবারী, ১৭১ জন বিভিন্ন মামলার আসামী সহ মোট ২৮৬ জন কে গ্রেফতার করেন। এছাড়া ১৩ জন ভিকটিম কে বিভিন্ন জায়গা থেকে পুলিশ উদ্ধার করেন। এছাড়া ১৬টি নন—এফআইআর প্রসিকিউশন, ২২৭টি গ্রেফতারী পরোয়ানা নিষ্পত্তি, ২৮টি চুরি হওয়া মোবাইল সেট উদ্ধার, ১৭২টি মামলা নিষ্পত্তি করা সহ নানা প্রশংসনীয় কাজ করেছেন পীরগঞ্জ থানা পুলিশ। বর্তমান পীরগঞ্জ পৌর এলাকা সহ ১০টি ইউনিয়নের মানুষ অনেক নিরাপদে রয়েছে।
এ থানার আইন শৃঙ্খলার পরিস্থিতি যথেষ্ট ভাল। ফৌজদারী অপরাধ অনেকাংশে কমে যাওয়ায় মানুষ নিরাপদে রয়েছে। থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ খায়রুল আনাম জনগণের সেবা নিশ্চিত করার যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছেন তা প্রশংসনীয় বলে সুশীল সমাজ ও আম জনতা মনে করেন। এ ব্যাপারে থানা অফিসার ইনচার্জ খায়রুল আনাম জানান, পুলিশ জনগণের বন্ধু। জনগণকে সেবা দিতে পুলিশ বদ্ধ পরিকর। সেই লক্ষ্যে আমরা নিরলশ ভাবে কাজ করছি।

জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মালচিং পদ্ধতিতে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ

আপেল বসুনীয়া, চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলায় জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মালচিং পদ্ধতিতে টমেটো চাষ। আর এ পদ্ধতিতে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষ করে ইতোমধ্যেই স্বাবলম্বী হয়েছেন নীলফামারী সদর উপজেলার সোনারায় ইউনিয়নের বেড়াকুঠি গ্রামের দরিদ্র কৃষক আইজুল ইসলাম ও তার স্ত্রী মিলি বেগম ।
এ পদ্ধতিতে টমেটো চাষ করে এ দম্পতির শ্রম ও সময় কম লেগেছে। খরচও কম। কৃষক আইজুল ইসলাম জানান- সমন্বিত কৃষি ইউনিট কৃষিখাতের আওতায় পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) এর অর্থায়নে এবং সেলফ-হেল্প এ্যান্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম (শার্প) এর সার্বিক সহযোগিতায় ৩০ শতাংশ জমিতে মালচিং পদ্ধতিতে টমেটোর চাষ করেছেন। ফলন ভালো হওয়ায় প্রচণ্ড আশাবাদী এই কৃষক। শিগগিরই আরও বড় জায়গা নিয়ে বড় পরিসরে তিনি এ পদ্ধতিতে টমেটো চাষ বাড়াতে চান! ফলন ভালো হয়েছে পাশাপাশি বাজারে বিক্রি করে ভালো দাম পেয়ে প্রচণ্ড খুশি কৃষক আইজুল ইসলাম।
সেলফ-হেল্প এ্যান্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম (শার্প) এর নির্বাহী প্রধান আলহাজ্ব মোঃ মাহবুব উল আলম বলেন- মালচিং হলো এক ধরনের পলিথিন। যা তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে। রোগজীবাণু থেকেও গাছকে রক্ষা করে। অতিরিক্ত পানি রোধ করে। গাছের গোড়ায় আগাছা হয় না। এই পদ্ধতিতে টমেটো চাষ করতে হলে প্রথমে জমি তৈরি করে মাটির সঙ্গে প্রয়োজন মতো সার মিশিয়ে নিয়ে বেড তৈরি করতে হয়। বেডের প্রস্থ হবে এক মিটার।
এক বেড থেকে আরেক বেডের দূরত্ব হবে ৩০ সেন্টিমিটার। এরপর জমিতে তৈরি করা সবকটি বেড মালচিং পলিথিন দিয়ে ডেকে দিতে হবে। পলিথিনের নিচে যাতে পানি প্রবেশ করতে না পারে তাই বেডের চারপাশে পলিথিনের উপরে ভালোভাবে মাটিচাপা দিতে হবে। বেডে চারা রোপণের জন্য ১৮ ইঞ্চি দূরত্ব রাখতে হবে। চার ইঞ্চি ব্যাসের পাইপ দিয়ে ছিদ্র করে ওই ছিদ্রে টমেটোর চারা রোপণ করতে হবে।
সেলফ-হেল্প এ্যান্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম (শার্প) এর কৃষি কর্মকর্তা মেহবুব-উল সহিদ জানান- টমেটো চাষে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে মালচিং পদ্ধতিতে টমেটো চাষ। এ পদ্ধতিতে টমেটো চাষে শ্রম ও সময় কম লাগে। খরচও কম হয়। টমেটো শীতকালীন ফসল হলেও গ্রীষ্মকালীন টমেটো জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। চলতি মৌসুমে এলাকার কৃষকরা এবার মালচিং পদ্ধতির দিকে ঝুঁকছে।

পার্বতীপুরে সেমিপাকা টয়লেট উদ্বোধন

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Thursday, May 23, 2024 | 5/23/2024 06:37:00 PM

বদরুদ্দোজা বুলু:পার্বাতীপুর পৌরসভার পোড়াভিটা (মুশাহারপাড়া) এলাকায় আজ বৃহষ্পতিবার বিকেলে স্থানীয় বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা কাম টু ওয়ার্ক (সিটিডাব্লিউ) বাস্তবায়নে বাংলাদেশ এনজিও ফাউন্ডেশন (বিএনএফ) এর সহযোগিতায় সেমিপাকা টয়লেট (স্যানিটেশন) উদ্বোধন করেন পার্বতীপুর পৌর মেয়র আমজাদ হোসেন। এ সময় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফাতেমা খাতুন। এ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংস্থাটির নির্বাহী পরিচালক মতিউর রহমান। উল্লেখ্য এ মুশাহারপাড়ায় ১৬ টি সেমিপাকা টয়লেট (স্যানিটেশন) ণির্মান করা হবে। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন সংস্থাটির ফিজিও থেরাপি সাজ্জাদুর রহমান।

উলিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Wednesday, May 22, 2024 | 5/22/2024 09:28:00 PM

খালেক পারভেজ লালু,উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামে ৬ষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ২য় ধাপে উলিপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে আনারস প্রতীকে ৫০ হাজার ৪৬৪ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান পদে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন সাজাদুর রহমান তালুকদার সাজু। তিনি কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম হোসেন মন্টু মোটরসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ১৪ হাজার ৬৯৩ ভোট। তিনি উলিপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক। 

ভাইস চেয়ারম্যান পদে টিয়া পাখি প্রতীকে ৪৮ হাজার ৩৮২ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন আবু সাঈদ সরকার। এ নিয়ে দ্বিতীয়বার ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন। তিনি পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আজাহার আলী সরকার টিউবওয়েল প্রতীকে পেয়েছেন ২৮ হাজার ৪৩৩ ভোট।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে কলস প্রতীকে ২৮ হাজার ৮৫০ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন মতি শিউলী। তিনি কুড়িগ্রাম জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও উলিপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মুশতারী রহমান চন্দনা ফুটবল প্রতীকে পেয়েছেন ২৫ হাজার ৯৩০ ভোট।
মঙ্গলবার(২১ মে) রাতে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আতাউর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, উলিপুর উপজেলা নির্বাচনে ১৫১টি ভোট কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণভাবে সকাল ৮ থেকে বিকেল ৪ টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এই উপজেলায় ভোটার সংখ্যা ৩ লাখ ৫২ হাজার ৭৮০ জন। মহিলা ভোটার ১ লক্ষ ৭৭ হাজার ৭৬৭ জন ও পুরুষ ভোটার ১ লক্ষ ৭৫ হাজার ১৩ জন।

ডোমারে পরিবেশবান্ধব মালচিং পেপার ব্যাবহার করে বেবি তরমুজ চাষ

আপেল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : পরিবেশবান্ধব মালচিং পেপার ব্যবহার করে বেবি তরমুজ চাষ করে স্বাবলম্বী হয়েছেন সামিউন বেগম এর পরিবার।
নীলফামারী জেলার ডোমার উপজেলার জাল্লির মোড় এলাকার এবাদ আলী ও তার স্ত্রী সামিউন বেগম ১৬ শতক জমিতে রঙ্গিলা, সুগার কিং ও জেব্রা কিং (হলুদ,কালো ও বাংলালিংক) জাতের বেবী তরমুজ চাষ করেছেন।
সামিউন বেগম ও তার স্বামী এবাদ আলী সমন্বিত কৃষি ইউনিট কৃষিখাতের আওতায় পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) এর অর্থায়নে এবং সেলফ-হেল্প এ্যান্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম (শার্প) এর সার্বিক সহযোগিতায় মাচা পদ্ধতিতে বেবি তরমুজ চাষ শুরু করেন। খরচ হয় ১৭ হাজার টাকা। আর এ ক্ষেতের তরমুজ ৩৫ হাজার টাকায় বিক্রয় হবে বলে এ দম্পতি জানান। 
সেলফ-হেল্প এ্যান্ড রিহেবিলিটেশন প্রোগ্রাম (শার্প) এর কৃষি কর্মকর্তা মেহবুব-উল সহিদ বলেন, সরকারি কৃষি অফিসের পাশাপাশি পিকেএসএফে অর্থায়নে এবং শার্প এর সার্বিক সহযোগিতায় আমরা প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ডোমার উপজেলার বিভিন্ন কৃষকদের উচ্চমূল্যের ফসল হিসেবে গ্রীষ্মকালীন তরমুজ চাষে উদ্বুদ্ধ করি। মালচিং পদ্ধতিতে তরমুজ চাষ করায় ফলন হবে বিষমুক্ত। আশা করছি মালচিং পদ্ধতিতে মাচায় তরমুজ চাষ এ এলাকায় আরও সম্প্রসারিত হবে।
সামিউন বেগম বলেন, শার্প এর সহযোগিতায় এবং পরামর্শে আমি বেবি তরমুজ চাষ করে ভালো ফলন পেয়েছি। প্রাকৃতিক পরিবেশ ও প্রতিকূলতায় এ জাতের তরমুজের কোনো ক্ষতির সম্ভাবনা না থাকায় সাফল্যের মুখ দেখছেন তিনি।
ডোমার উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো: রফিকুল ইসলাম বলেন- এই অঞ্চলে এই প্রথমবারের মতো বেবি তরমুজ চাষ হয়েছে। আমরা কৃষকদের বিভিন্ন ধরনের সবজি চাষের জন্য পরামর্শ দিয়ে থাকি।
উপজেলা কৃষি আফিসের পাশাপাশি বেশ কিছু এনজিও কাজ করে আসছে। বিশেষ করে শার্প কৃষকদের মাঝে উচ্চ ফলনশীল বীজ দিচ্ছে। পরিবেশবান্ধব মালচিং পদ্ধতিতে কৃষকদের বেবী তরমুজ চাষে শার্প ব্যাপক ভূমিকা রাখছে। এই পরিবারকে দেখে আশেপাশের অনেকেই এই তরমুজ চাষে আগ্রহী হচ্ছে।

চিলাহাটিতে নিয়োগ পরীক্ষার আগেই প্রার্থী চূড়ান্তের অভিযোগ

চিলাহাটি ওয়েব ডেক্স : নীলফামারী জেলার চিলাহাটির দক্ষিণ চন্দখানা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৪ প্রার্থীকে নিয়োগদানের জন্য চূড়ান্ত করা হয়েছে। এই গোপন তথ্য ফাঁস হওয়ায় ইতিপূর্বে ওই বিদ্যালয় দুইবার নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। পুনরায় তৃতীয় ধাপে মনোনীত ৪টি পদে ৪ জন প্রার্থীকে নিয়োগ দানের অপচেষ্টা চলছে।
মনোনীত প্রার্থীরা হলেন- পরিছন্নতা কর্মী পদে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেনের মেয়ে শিল্পী আক্তার, অফিস সহায়ক পদে সভাপতির ভাই আতাউর রহমানের স্ত্রী রতনা বেগম, নৈশ প্রহরী পদে ম্যানেজিং কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলাম এর ছেলে নুর আলম ও আয়া পদে পাবর উদ্দিনের মেয়ে জোসনা বানু।
গত ২০ মে সরেজমিনে গিয়ে দক্ষিণ চান্দখানা নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুল হকের কাছে প্রথম ধাপে কোন পদে কতজন, দ্বিতীয় ধাপে কত জন আবেদন করেছিলো জানতে চাইলে তিনি বলেন- সকল কাগজপত্র আমার বাড়িতে আছে তাই কোন কিছু বলতে পারব না, আপনারা সভাপতির সাথে যোগাযোগ করেন।
বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মোশারফ হোসেন (ঢোল) জানান- দাতা সদস্যদের ম্যানেজিং কমিটিতে নেওয়া হয়নি বলে তারা পরপর দুইবার পরীক্ষায় এরকম গন্ডগোল করেছে, ফলে নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল হয়ে গেছে। যে কেউ আবেদন করতে পারে। ডিজি প্রতিনিধির উপস্থিতিতে নিয়োগের মাধ্যমে প্রার্থী চূড়ান্ত করা হবে।
অপরদিকে নাম প্রকাশের অনিচ্ছুক একাধিক ব্যক্তি জানায়- মোশারফ হোসেন (ঢোল) তার মেয়ে এবং ভাইয়ের স্ত্রীকে গোপনে নিয়োগ পরীক্ষায় চূড়ান্ত করেছে।
গোপন সূত্রে জানা গেছে, গত ২০২৩ সালের ২ ফেব্রুয়ারী পত্রিকায় নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ৪টি পদে ৩১ জনের আবেদন গ্রহণ করা হয়। তাদের এই সাজানো পরীক্ষা নিতে গিয়ে স্থানীয়দের তোপের মুখে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত করে। দ্বিতীয় ধাপে ১৬-১০-২৩ তারিখে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ১০ জনের আবেদন গ্রহণ করে।
প্রথম ধাপির ৮১ জন দ্বিতীয় ধাপের ১০ জন সহ মোট ৪১ জন প্রার্থীকে নিয়ে বিদ্যালয়ে সাজানো পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। 
দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষায় ৪টি পদে তাদের মনোনিত ওই ৪ জনকে নিয়োগ দেওয়ার তথ্য পুনরায় ফাঁস হলে পরীক্ষার পূর্বে স্থানীয়দের চাপে পরে দ্বিতীয় ধাপের পরীক্ষা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ স্থগিত করে।
এদিকে পুনরায় সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক তাদের প্রার্থীদের নিয়োগ দেওয়ার জন্য ২ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে সমকাল পত্রিকায় পূর্ণ নিয়োগ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে পূর্বের প্রার্থীদের বাতিল করে নতুনভাবে পরিচ্ছন্নতা কর্মী পদে সভাপতির মেয়ে শিল্পী আক্তার সহ ৪ জন প্রার্থী, অফিস সহায়ক পদে সভাপতি ভাই আতাউর রহমানের স্ত্রী রতনা বেগম সহ ৬ জন প্রার্থী, ম্যানেজিং কমিটির সদস্য রফিকুল ইসলামের ছেলে নুর আলম সহ ৪ জন প্রার্থী ও পাবর উদ্দিনের মেয়ে জোসনা বানু সহ ৮ জন প্রার্থীর আবেদন গ্রহণ ও যাচাই-বাছাই সম্পন্ন করে। তারা গোপনে নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে তাদের মনোনীত প্রার্থীদের নিয়োগ দানের অপচেষ্টা চালিয়ে আসছে।
এ বিষয়ে জানতে চাইলে ডোমার উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সাকেরিনা বেগম জানান- ইতিপূর্বে অভিযোগের প্রেক্ষিতে পরপর দুইবার নিয়োগ পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। প্রার্থী চূড়ান্ত করার কোন সুযোগ নেই। অভিযোগ পেলে আবারও পরীক্ষা বাতিল করা হবে।

চিলাহাটি থেকে দুটি আন্তঃনগর ট্রেনে যুক্ত হল লাগেজ ভ্যান

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : Tuesday, May 21, 2024 | 5/21/2024 01:23:00 AM

আপেল বসুনীয়া, চিলাহাটি ওয়েব : উত্তরের সীমান্তবর্তী এলাকা চিলাহাটি থেকে ঢাকাগামী দুইটি আন্তঃনগর ট্রেনে যুক্ত হল লাগেজ ভ্যান। গত ১৯ মার্চ ঢাকাগামী চিলাহাটি এক্সপ্রেস ট্রেনে এবং ২০ মার্চ আন্তঃনগর নীলসাগর এক্সপ্রেস ট্রেনে এ লাগেজ ভ্যান দুটি যুক্ত হল। এতে করে এই এলাকার মানুষজন অল্প খরচে কৃষিজাত পণ্য পরিবহন করতে পারবে।
এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে ‘রেলওয়ের রোলিং স্টক অপারেশন উন্নয়ন’ প্রকল্পের আওতায় এসব লাগেজ ভ্যান সংযোজন করা হচ্ছে।
চিলাহাটি রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার হায়দার আলী জানান- এ লাগেজ ভ্যান দুটি সংযুক্ত করার কারণে এই এলাকার মানুষজন খুব দ্রুত সময়ে কম খরচে তাদের মালামাল পরিবহন করতে পারবে। খুব শীঘ্রই আন্তঃনগর রুপসা এবং সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনেও লাগেজ ভ্যান সংযোজন হবে বলে তিনি জানান।