Header Ads Widget

পীরগঞ্জে প্রচন্ড শীতে সরকারি স্কুলে শিক্ষার্থী কমে গেছে

শেখ সমশের আলী, পীরগঞ্জ, ঠাকুরগাঁও, প্রতিনিধি: পীরগঞ্জ উপজেলায় গত সাত দিন ধরে সূর্যের মুখ দেখা যায়নি। প্রচন্ড শীত, ঘন কুয়াশা, উত্তরের হিমেল বাতাস প্রবাহিত হওয়ায় জন জীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। এ উপজেলায় কমল মতি শিশুদের জন্যে ১৮৮টি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রায় ২৫ হাজার শিক্ষার্থী রয়েছে। 
প্রচন্ড শীতের কারণে শিশুদের রোগ বালাই বেড়ে যাওয়ার কারণে স্কুল গুলোতে শিক্ষার্থীর উপস্থিতি নেই বললেই চলে। আবহাওয়া স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত প্রাইমারী স্কুল বন্ধ রাখার জন্যে শিক্ষক ও সুশীল সমাজ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে দাবী জানিয়েছেন। এ উপজেলায় প্রচন্ড শীত, শৈত্য প্রবাহ ও ঘনকুয়াশায় ৮/৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। শ্রম জীবি ও নি¤œ আয়ের মানুষ ঠান্ডার কারনে কর্মস্থলে যেতে পারছে না। দিনের বেলায় অনেক স্থানে খড়কুটো দিয়ে আগুন জ্বালিয়ে মানুষ শীত নিবারণ করছে। এছাড়া শীত জনিত রোগ বালাই ব্যাপক হারে দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে বয়স্ক, গর্ভবতী মহিলা ও শিশুরা আক্রান্ত হচ্ছে। গত ১০ বছরের মধ্যে এ বছর সবচেয়ে বেশি ঠান্ডা অনুভব হচ্ছে। অ-প্রয়োজনে মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। ফলে শহরে মানুষের ভীড় ও যানবাহন কমে গেছে। এ উপজেলায় সরকারি ভাবে হত দরিদ্র ও অসহায় মানুষের জন্যে আরো শীত বস্ত্র (কম্বল) জরুরী ভাবে বরাদ্দ দেওয়া প্রয়োজন বলে জনপ্রতিনিধিরা জানান। প্রচন্ড শীতের কারনে মানুষের মধ্যে কিছুটা আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।