Header Ads Widget

সুপ্রিম কোর্টের নতুন আইনজীবী হলেন বিরামপুরের কৃতি সন্তান এডভোকেট ওমর ফারুক আপেল

ইব্রাহীম মিঞা, বিরামপুর (দিনাজপুর)প্রতিনিধি : বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে আইনপেশা পরিচালনার জন্য বার কাউন্সিলের মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন দিনাজপুর জেলার বিরামপুর পৌরসভার(রেল স্টেশন সংলগ্ন) পূর্বজগন্নাথপুর গ্রামের কৃতি সন্তান তরুণ আইনজীবী ওমর ফারুক আপেল এডভোকেট সুপ্রিম কোর্ট অব বাংলাদেশ। বুধবার (২৩ আগস্ট) বাংলাদেশ বার কাউন্সিল কতৃপক্ষের হাইকোর্ট ডিভিশনের চূড়ান্ত মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে মহামান্য সুপ্রিম কোর্ট এর আইনজীবী হিসেবে তালিকাভুক্ত হয়েছেন।
এডভোকেট ওমর ফারুক আপেল বিরামপুর উপজেলা পৌরশহরের পূর্বজগন্নাথপুর গ্রামের বিশিষ্ট সমাজসেবক ও রাজনীতিবিদ মৃত ফজলুর রহমান সরকার (রুমি) এর ছোট সন্তান।তিনি উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ২০০৪ সালে সাফল্যের মাধ্যমে কৃতিত্বের সহিত এস.এস.সি পাশ করেন। ২০০৬ সালে ঢাকা প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে এইচ.এস.সি পাশ করেন। এরপর কিছু সময় পড়াশোনা থেকে দূরে থাকেন। পরবর্তীতে তিনি ঢাকায় এক প্রতিষ্ঠিত বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়,ঢাকা ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি নৈশকালিন শাখা থেকে ২০১৪ সালে এল.এল.বি (অনার্স) ও এল.এল.এম (মাস্টার্স) ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।
তার বিশ্ববিদ্যালয়ে একাডেমিক সর্বোচ্চ ফলাফলের জন্য মহামান্য রাষ্ট্রপতির প্রতিনিধি তৎকালীন মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি এর উপস্থিতিতে সমাবর্তনে ভাইস চ্যান্সেলর গোল্ড মেডেল পদক গ্রহণ করেন তিনি।পরে ২০১৭ সালে বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের আইনজীবী তালিকাভুক্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। সেখানে তিনটি পর্বের পরীক্ষায় চূড়ান্ত ভাবে উত্তীর্ণ হয়ে ঢাকা আইনজীবী সমিতিতে আইনপেশা শুরু করেন। এর পর দীর্ঘ পাঁচ বছর পর তিনি মহামান্য হাইকোর্ট এর চূড়ান্ত পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। তিনি জানান,তার এই সাফল্যের পেছনে অনেক গল্প জড়িয়ে আছে। অনেক ঘাত প্রতিঘাত সহ্য করে আজকে এই অবস্থানে পৌছেছেন তিনি।
অ্যডভোকেট ওমর ফারুক আপেল এক প্রতিক্রিয়া জানিয়ে বলেন, আইন পেশায় নিযুক্ত হওয়ায় পর থেকে এদেশের অবহেলিত জনগোষ্ঠীর কল্যাণে নি:স্বার্থ ভাবে কাজ করে যাচ্ছি। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় এবং অসহায় মানুষের কল্যাণে যেন আরো বড় পরিসরে কাজ করে যেতে পারি তার জন্য সকলের নিকট দোয়া কামনা করছি। অবশেষে তরুন প্রজন্মকে লক্ষ করে তিনি বলেন,জীবনে হতাশা বলে কিছু নেই।, সবার জীবনের একটি গল্প তৈরি করতে হবে। জীবন তোমাকে নানাভাবে ভেঙেচুরে দিবে, আশাহত করবে। কঠোর পরিশ্রম সাধনা করতে হবে যেকোনো কিছু অর্জন করতে হলে।এই পৃথিবীতে অলসতার কোন স্থান নেই।