Home » , , , » বাধার মুখে থেমে আছে চিলাহাটি স্থলবন্দরের কাজ

বাধার মুখে থেমে আছে চিলাহাটি স্থলবন্দরের কাজ

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 20 November, 2020 | 6:24:00 PM


জুয়েল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : আগামী ১৬ ডিসেম্বর চিলাহাটি-হলদিবাড়ি রেলপথে রেলগাড়ী চালুর শুভ উদ্ভোধন কি থেমে যাবে। এখনো নিরসন হয়নী জমি অধিগ্রহণ ও পিডিবির বিদ্যুতের খুটি স্থানান্তরের কাজ। জমি অধিগ্রহণ ও বিদ্যুতের খুটির জটিলতায় থমকে আছে নীলফামারী জেলার চিলাহাটি রেল ষ্টেশনের লুফ লাইন বসানোর কাজ। 

অধিগ্রহণের প্রয়োজনী কোন কাগজপত্র না পাওয়ায় বাঁধার মুখে দাঁড়িয়ে আছে জমির মালিকরা। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ২.৮৪ একর জমি অধিগ্রহণের তালিকা প্রস্তুত করলেও বাঁধার মুখে কাজ করতে পারছেনা ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স। ফলে ষ্টেশন সংলগ্ন তিনটি নতুন লুফ লাইন স্থাপন, নতুন অত্যাধুনিক প্লাটফ্রম, ওয়াসফিট স্থাপনের কাজ বন্ধ রয়েছে।

জমির মালিক রুমান মালেক চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে বলেন, প্রায় এক বছর থেকে জমি অধিগ্রহন নিয়ে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় প্রশাসন একাধিকবার বৈঠকে বসেও অদ্যবধি কোন সুরাহায় আসতে পারেনি।আমাদের কোন নোটিশ না দিয়েই জমিতে রেলওয়ে কাজ করার জন্য বিভিন্ন ভাবে চাপ দেওয়া হচ্ছে।

ফেরদ্দৌস আলম চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে বলেন, শুরু থেকে রেলওয়ের কাজের জন্য আমরা জমি দিতে প্রস্তুত আছি। ইতিমধ্যে মালিকানা পুকুরগুলি ভরাট করাও হয়েছে। আমরা এখন পর্যন্ত জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে কোন নোটিশ পাইনি। এখন ক্ষতিপূরণ পেলেই আমাদের আর কোন বাধা থাকবে না।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স বলেন, জমি অধিগ্রহণ ও বিদ্যুতের খুটি স্থানান্তর না হওয়ায় লুফ লাইন বসানোর কাজ বন্ধ রয়েছে। অধিগ্রহণের কাজ শেষ হলেই দেড় মাসের মধ্যে কাজ শেষ করা সম্ভব হবে। পশ্চিমাঞ্চল রেলওয়ের পাকশী ডিবিশনের প্রকৌশলী-২ প্রকল্প পরিচালক আব্দুর রহীম চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে বলেন, জমি অধিগ্রহণের জন্য কাগজপত্র সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠিয়েছি। অল্প সময়ের মধ্যে জমি অধিগ্রহণের কাজ শেষ হয়ে যাবে।