Home » , » চিলাহাটিতে গ্রাম পুলিশের লালসার স্বীকার গৃহবধু

চিলাহাটিতে গ্রাম পুলিশের লালসার স্বীকার গৃহবধু

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 10 September, 2020 | 3:14:00 PM

জুয়েল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারী জেলার চিলাহাটিতে ক্ষমতার প্রভাব দেখিয়ে ৪ সন্তানের জননী এক গৃহবধুর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার অভিযোগ পাওয়া গেছে।
জানা গেছে, চিলাহাটির ভোগডাবুরী ইউনিয়নের সাবেক দাফাদার মৃত. শামছুল হক শুকারুর ছেলে ৯নং ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশ মমিনুল ইসলাম দীর্ঘ দিন থেকে একই ওয়ার্ডের গিরিয়ার ডাঙ্গা গ্রামের এক গৃহবধুর সাথে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তুলে।
গৃহবধুর ছেলে-স্বামী ও স্থানীয়রা প্রতিবাদ করলে গ্রাম পুলিশ প্রতিবাদকারীদের মাদক এবং ভারতীয় গরু দিয়ে মামলার ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছে। এলাকাবাসী গ্রাম পুলিশের কু-কর্ম নিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ডোমার থানায় পৃথক পৃথক লেখিত অভিযোগ দায়ের করেছে।
স্থানীয়রা ইতিপূর্বে বিষয়টি ভোগডাবুরী ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের কাছে অভিযোগ করলে চেয়ারম্যান গ্রাম পুলিশ মমিনুলকে ১৫ দিনের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করেন। তখন গ্রাম পুলিশ ভূল স্বীকার করায় বিষয়টি স্থানীয় ভাবে মিমাংসা করা হয়েছে। কিছু দিন অতিবাহিত হওয়ার পর তিনি পূর্বের মতো অনৈতিক কার্যকলাপ চালাতে থাকে। 
গৃহবধুর স্বামী ও ছেলেসহ প্রতিবেশীরা চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে জানান-মমিনুল আইন কানুন,নীতি নৈতিকতা সমাজ জামাত তোয়াক্কা না করে প্রকাশ্য হুমর্কী দিয়ে অনৈতিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছে।
গ্রাম পুলিশ মমিনুল ইসলাম চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে জানান- ইতিপূর্বে একটা ঘটনা ঘটেছে এরপর থেকে ওই মহিলার সাথে আমার আর কোন সম্পর্ক নাই।
ভোগডাবুড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এক্রামুল হক চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে জানান-পূর্বে বিষয়টি নিয়ে মমিনুলকে ১৫ দিনের জন্য সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছিল। বর্তমানে সে একই ঘটনার পূনরাবৃত্তি করছে মর্মে শুনেছি তবে আমার কাছে কোন অভিযোগ আসেনি।
ডোমার থানা অফিসার ইনচার্জ মোস্তাফিজার রহমান অভিযোগ পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন,বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।