Home » » দেশি-বিদেশী বিনোয়োগের মাধ্যমে রপ্তানী বানিজ্যে দেশ আরো এগিয়ে যাবে- রেলপথ মন্ত্রী

দেশি-বিদেশী বিনোয়োগের মাধ্যমে রপ্তানী বানিজ্যে দেশ আরো এগিয়ে যাবে- রেলপথ মন্ত্রী

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 27 August, 2020 | 7:30:00 PM

আমীর খসরু লাভলু/নজরুল ইসলাম,চিলাহাটি ওয়েব : রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন এমপি বলেছেন,কৃষি নির্ভর অর্থনীতির দেশ থেকে শিল্প নির্ভর অর্থনীতির দেশ হিসেবে গড়ে তুলতে এবং উন্নয়নশীল টেকসই অর্থনীতি প্রতিষ্ঠায় দেশ কে এগিয়ে নিতে প্রধান মন্ত্রী নানা পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করে চলেছেন। তিনি বৃহস্পতিবার পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে অর্থনৈতিক অঞ্চল এলাকা পরিদর্শন কালে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের কর্মকর্তা ও ভুমি মালিক এবং স্থানিয় সুধীবৃন্দের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন,ভিক্ষুকের জাতির কোন সম্মান নেই,দেশ যদি সাহায্য নির্ভর হয় তা হলে বিশ্বে মর্যাদা থাকেনা। তাই অর্থনৈতিক ভাবে উন্নয়শীল জাতি গঠনে বাস্তব মুখী প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছে সরকার। তিনি বলেন,বিশ্বায়নের এই যুগে টেকসই উন্নয়নের জন্য শিল্প বিপ্লবের কোন বিকল্প নেই আর সেই পরিকল্পনা নিয়ে সারা দেশে একশতটি অর্থনৈতিক জোন গড়ে তোলার প্রদক্ষেপ গ্রহন করেছে সরকার। দেশি-বিদেশী বিনোয়োগের মাধ্যমে রপ্তানী বানিজ্যে দেশ আরো এগিয়ে যাবে এবং স্থানিয় ভাবে সৃষ্টি হবে হাজার হাজার মানুষের কর্মসংস্থান। দেশ হবে অর্থনৈতিক ভাবে সমৃদ্ধ। প্রধান মন্ত্রীর পরিকল্পনা অনুযায়ী ২০৩০ সারের মধ্যে দেশ একটি উন্নয়শীল দেশে উপনিত হবে। তিনি জমি দাতাদের পুর্নবাসন করে অধিগ্রহন কৃত জমির মালিকদের যথোপযুক্ত ক্ষতিপুরনের নিশ্চয়তা দিয়ে এই অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার জন্য সকলের সার্বিক সহায়তা কামনা করেন। মন্ত্রী বর্তমান সরকারের আমলে রেলের সার্বিক উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে বলেন,অচিরেই রেল পরিসেবা বিশ্বের উন্নত দেশ গুলোর পরিসেবার ন্যায় পরিনত করা হবে। এবং দ্রুতগামী রেল সেবা সংযোগ করে যাত্রীদের স্বল্প সময়ে আরামদায়ক রেল ভ্রমন চালু করা হবে। পঞ্চগড় জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক জোন এলাকা দারারহাটে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যানের মধ্যে পঞ্চগড় পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ইউসুফ আলী দেবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মালেক চিশতি,উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রত্যয় হাসান, দেবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন চৌধূরী,সাধারণ সম্পাদক হাসনাৎজ্জামান চৌধুরী জর্জ,ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গোলাম রহমান সরকার ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিতু আক্তার বক্তব্য রাখেন। উল্লেখ প্রধান মন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী ২০৩০ সালের মধ্যে রপ্তানী বানিজ্যে ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয়ের লক্ষে। সারা দেশে ১ শত টি ইকোনোমিক জোনের অংশ হিসেবে,পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কাজ শুরু হয়েছে।
দেবীগঞ্জ উপজেলার দেবীগঞ্জ সদর, দেবীডুবা ও সোনাহার ইউনিয়নের প্রধানপুর, দেবীডুবা, ও দাড়ারহাট মৌজায় ৬ শত ২ একর জমিতে এই অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলা হচ্ছে। প্রার্থমিক পর্যায়ে ২১৭.৭৮ একর খাস জমি এই প্রকল্পে বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তুলতে প্রধান মন্ত্রীর নিদের্শনায় ৩০ কোটি টাকার সম্পত্তি ভুমি মন্ত্রনালয় মাত্র ১০ হাজার টাকায় বেজার কাছে হস্তান্তর করেছে। বাকি ৩ শত ৭৫ একর জমি অধিগ্রহন করার প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। গত ২৪ আগষ্ট পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের সাথে চুক্তি স্বাক্ষর ও দলিল সম্পাদন অনুষ্ঠিত হয়। 
পঞ্চগড় জেলা প্রশাসক সাবিনা ইয়াসমিন ও বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের (বেজা) পক্ষে সহকারী ব্যবস্থাপক একেএম আনোয়ার দলিলে স্বাক্ষর করেন। বেজা সহকারী ব্যবস্থাপক একেএম আনোয়ার জানায়, এই অর্থনৈতিক অঞ্চলে কৃষিপন্য প্রক্রিয়াজাতকরণ,খাদ্যপন্য,গার্মেন্টস,অটো মোবাইলস উৎপাদনসহ বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে রপ্তানি পণ্য উৎপাদন করা হবে। এতে জেলায় শিল্প বিকাশের পাশাপাশি,কৃষিপণ্যের ন্যায্যমুল্য নিশ্চিত হবে,৫০ হাজার নারী-পুরুষের কর্মস্থান হবে এবং এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়ন সাধিত সহ রপ্তানি বানিজ্যে জাতিয় আয় বৃদ্ধি পাবে।