Home » » ৩ কেজি ৭শ’ গ্রাম মুরগীতে ৬শ’ ৭০ গ্রাম কম : ভ্রাম্যমান আদালতে ১২ হাজার ২শ’ টাকা জরিমানা

৩ কেজি ৭শ’ গ্রাম মুরগীতে ৬শ’ ৭০ গ্রাম কম : ভ্রাম্যমান আদালতে ১২ হাজার ২শ’ টাকা জরিমানা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 15 July, 2020 | 12:06:00 AM

মিজানুর রহমান,কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম মুরগীতেই বিক্রেতা দিল ৬ শ’ ৭০ গ্রাম কম। ভ্রাম্যমান আদালত অভিযোগ পেয়ে কম দেয়ার সত্যতা পাওয়ায় বিক্রেতাকে গুনতে হল ৫ হাজার টাকা জরিমানা। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকালে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার থানা গেটের সামনে লাল মিয়ার দোকানে।
এছাড়া ভোক্তা অধিকার আইনে এক হোটেল ব্যবসায়ীকে ৭ হাজার ও স্বাস্থ্য বিধি না মানায় আরও ২ জনকে ১০০ টাকা করে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল আজ দুপুরে বাজার থেকে বাড়ী ফেরার সময় থানা গেট সংলগ্ন লাল মিয়ার মুরগীর দোকান থেকে ৪টি মুরগী ক্রয় করে। এতে বিক্রেতা ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম হয়েছে বলে টাকা নেন। বাড়ী যাওয়ার সময় ওজনে কম দিয়েছে বলে সন্দেহ হলে তিনি বাড়িতে গিয়ে মুরগী গুলো মেপে পান ৩ কেজি ৩০ গ্রাম। ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম মুরগীতেই বিক্রেতা দিয়েছে ৬ শ’ ৭০ গ্রাম কম। তিনিতাৎক্ষনিক উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ভোক্তা অধিকার আইনে অভিযোগ দেন। অভিযোগ পেয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে বিক্রেতা লাল মিয়ার দোকানের ওজনের পাত্র ওজনের চেয়ে কম পান। ওজনে কম দেয়ার সত্যতা পাওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল কালাম আজাদ মুশা গ্রামের মজিবরের পুত্র লাল মিয়ার ৫ হাজার টাকা জরিমানা করে।
এদিকে কিশোরগঞ্জ বাজারের লিটন হোটেলে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে মেয়াদ উত্তীর্ণ খাদ্য ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ পাওয়ায় ওই হোটেলের মালিক আক্কাছ আলীর পুত্র লিটনের ৭ হাজার টাকা জরিমানা করে। এছাড়া মাস্ক না পড়ে বাজারে যত্রতত্র ঘোড়াফেরা করায় স্বাস্থ্য বিধি না মানার দায়ে রাজিব গ্রামের লোকমানের পুত্র পেয়ারুলের ১ শ’ টাকা ও মধ্য রাজিব গ্রামের সহিদুলের পুত্র বুলবুলের ১ শ’ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমান আদালত । উপজেলা আওয়ামী লীগেরসভাপতি জাকির হোসেন বাবুল জানান- ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম মুরগী কিনে বাড়িতে যাই। সন্দেহ হলে মেপে দেখি ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম মুরগীতেই ৬ শ’ ৭০ গ্রাম ওজন কম।
তাৎক্ষনিক ভোক্তা অধিকার আইনে অভিযোগ দেই। তিনি আরও জানান- ওই মুরগীর দোকানসহ বেশ ক’টি মুরগীর দোকানের দুর্গন্ধে সাধারণ মানুষের চলাচলে বেশ অসুবিধা হচ্ছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল কালাম আজাদ জানান- উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ৩ কেজি ৭ শ’ গ্রাম মুরগী ক্রয় করে ৬ শ’ ৭০ গ্রাম ওজনে কম পান। ভোক্তা অধিকার আইনে অভিযোগ পেয়ে ওই দোকানে গিয়ে ওজনে কম দেয়ার সত্যতা পাওয়ায় দোকানের মালিকের ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া এক হোটেল ব্যবসায়ীর ৭ হাজার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ২ জনকে ১ শ’ টাকা করে জরিমানা করা হয়।