Home » » নদীর দু’ধারে ফলজ ও বনজ গাছের সৌন্দর্য - নীলফামারী থেকে ফুলবাড়ী পর্যন্ত খড়খরিয়া তিলাই নদীর খনন সমাপ্ত

নদীর দু’ধারে ফলজ ও বনজ গাছের সৌন্দর্য - নীলফামারী থেকে ফুলবাড়ী পর্যন্ত খড়খরিয়া তিলাই নদীর খনন সমাপ্ত

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 27 June, 2020 | 11:38:00 PM

বিশেষ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের অধীনে নীলফামারী থেকে ফুলবাড়ী পর্যন্ত খরখড়িয়া তিলাই নদীর খনন কাজ ইতোমধ্যে শেষ হয়েছে। 
পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ২০১৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারী ১৫ কোটি ৪৫ লাখ ৭৬ হাজার ৮২৭ টাকা ব্যয়ে নীলফামারী থেকে পার্বতীপুর হয়ে ফুলবাড়ী পর্যন্ত ৫৭ কিলোমিটার খড়খরিয়া তিলাই নদীর খনন কাজ শুরুর করেন নওগাঁর মেসার্স জুয়েল ইলেক্ট্রনিক্স ও রংপুরের রুপান্তর এন্টারপ্রাইজ নামে দুই ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। 
এর মধ্যে ৫ কোটি ২৪ লাখ ৮১ হাজার ১শত ৭৫ টাকা ব্যায়ে সৈয়দপুর থেকে পার্বতীপুর পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার নদী খননের কাজ পান জুয়েল ইলেক্ট্রনিক্স। সৈয়দপুর থেকে নিলফামারী (৫৫-৭৫ মিটার) ২০ কিলোমিটারের জন্য ৫ কোটি ৪৮ লাখ ২৮ হাজার ৭৪১ টাকা এবং পার্বতীপুর থেকে ফুলবাড়ী পর্যন্ত (২৮-৩৫) ১৭ কিলোমিটার কাজের জন্য ৪ কোটি ৭২ লাখ ৬৬ হাজার ৯১১টাকা বরাদ্দ পান ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান রুপান্তর এন্টারপ্রাইজ। 
চুক্তি অনুযায়ী খননের পাশাপাশি নদীর দু’ধারে ১৭ হাজার আম, জাম, কাঠাল ও মেহগুনী গাছের পাশাপাশি সৈন্দর্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে ঘাসও লাগানো হয়েছে ইতোমধ্যে। তবে নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে সক্ষম হন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানগুলো। এ বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড সৈয়দপুর’র নিবাহী প্রকৌশলী কৃঞ্চ কমল সরকার জানান, আমরা এখনও কাজ বুঝে পাইনি।আর এদিকে,  ঠিকাদারও তাদের কাজের বিল পাননি।