Home » » টিসিবি পন্য বিতরনে ইউএনওর উপস্থিতিতে সাংবাদিকের উপর হামলা

টিসিবি পন্য বিতরনে ইউএনওর উপস্থিতিতে সাংবাদিকের উপর হামলা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 06 May, 2020 | 10:07:00 AM

ছাদেকুর ইসলাম রুবেল,গাইবান্ধা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে টিসিবি পন্য বিতরনে অনিয়মের অভিযোগ শুনে সাংবাদকরা তথ্য নিতে গিয়ে দুই সাংবাদিক হামলার শিকার হয়েছেন। আহত দুই সাংবাদিক পলাশবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সদরের নুনিয়াগাড়ী গ্রামের ঘোড়াঘাট রোডস্থ।
প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, টিসিবি ডিলারের মাধ্যমে স্বল্প মুল্যে ডাল,তেল, আটাসহ নিত্তপ্রয়োজনীয় সামগ্রী বিতরন অব্যাহত রেখেছে। এরইধারাবাহিকতায় পলাশবাড়ী উপজেলার টিসিবি ডিলার আতোয়ার রহমান গত ৪ এপ্রিল সোমবার ট্রেড কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ বগুড়া আঞ্চলিক কার্যালয় হতে টিসিবির তেল,সোলা ও চিনি ইত্যাদি ভোগ্য পন্য সামগ্রী উত্তোলন করে।
গতকাল মঙ্গলবার সকালে থেকে মালামাল ডিলার আতোয়ার কর্তৃক বিক্রির কথা থাকলে ডিলার আতোয়ার দীর্ঘদিন থেকে অসুস্থ থাকা উক্ত মালামাল নিজে বিতরন না করে তার ভাগিনা ঠিবাদার মামুন মিয়ার মানফতে সুষ্ট ভাবে বিতারন করেন। মঙ্গলবার ৫ মে সকাল থেকে সদরের ঘোড়াঘাট রোডস্থ বিদুৎ অফিসের সামনে আবু তাহেরের একটি ভবন হতে সাব ডিলার মামুন এসব পন্য সামগ্রী বিতরন শুরু করেন ২ টা পর্যন্ত বিতরন ।
এসময় ট্যাগ অফিসার সমাজসেবা কর্মকর্তা ও থানার একজন এএসআই দায়িত্ব পালন করছিল। ২ টার পর আকর্ষিক বৃষ্টি শুরু হলে মালামাল বিতরন বন্ধ করে ট্যাগ অফিসারসহ কর্মকর্তারা ষ্টক মালামাল রেজিষ্ট্রার ভুক্ত না করে গুদাম ঘরে তালা মেরে চলে যায়। বৃষ্টি শেষে লোকজন আবারো মালামাল নিতে উল্লেখিত স্থানে ভীর জমালে ট্যাগ অফিসার ও পুলিশ না থাকায় মালামাল বিতরনে অপারগতা প্রকাশ করে।
ভুক্তভুগীরা সাংবাদিকদের জানাইলে সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে প্রথমে বিষয়টি ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ ক্যাম অফিস বগুড়া এর সহকারী কার্যনির্বাহী,পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মেজবাউল হোসেন,থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ ও স্থানীয় সংসদ সদস্য এ্যাডঃ উম্মে কুলসুম স্মৃতি কে অবগত করেন। এমপি তাৎক্ষনিক ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য ইউএনও ও অফিসার ইনচার্জ পলাশবাড়ীকে নির্দেশ প্রদান করেন। ইউএনও মেজবাউল হোসেন থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ সঙ্গীয় পুলিশ ফোর্স ডিলার আতোয়ারকে নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। এসময় অন্যান্য সাংবাদিকরা ঘটনার বিবরন ইউএনওকে অবগত করার সময় সাংবাদিক আশরাফুল বিষয়টি ফেসবুক লাইভে করেন।
ইউএনও টিসিবির পন্যমজুদ ও বিতরনের হিসাব না নিয়ে গুদামে কতটুকু পন্য রক্ষিত আছে তা গুনতে ডিলারকে নির্দেশ প্রদান করেন। কতটুকু পন্য বিতরন করা হয়েছে তার নিদিষ্ট হিসাব নেই কেন? বিষয়টি ফেসবুক লাইভে এসে সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম ও সহকর্মীরা জানতে চাইলে ফেসবুক লাইভের বিষয়টি ইউএনও ক্ষিপ্ত হন। এসময় ডিলারের ৭/৮ জন ব্যাক্তি ইউএনওর এবং ওসি সামনেই সাংবাদিক আশরাফুল ইসলাম ও সাংবাদিক মাসুদ রানাকে মারপিট করে।
গুরুতর আহত করে লাইভে থাকা মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়। অনিয়মের বিষয়টি খতিয়ে না দেখেই ইউএনও ডিলারের পক্ষ অবলম্বন করে উল্টো ডিলারের কাছ থেকে সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির মিথ্যা একটি লিখিত অভিযোগ গ্রহন করার জন্য ওসি পলাশবাড়ীকে নির্দেশ প্রদান করেন। ঘটনার পর থেকেই স্থানীয় সাংবাদিকদের মধ্যে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। ঘটনার সুস্থ তদন্ত সাপেক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। এছাড়া ও সাংবাদিকদের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।