Home » » চিরিরবন্দরে সাড়ে ৪ হাজার শ্রমিকের করোনা প্রতিরোধে নেই কোন সতর্কতা

চিরিরবন্দরে সাড়ে ৪ হাজার শ্রমিকের করোনা প্রতিরোধে নেই কোন সতর্কতা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 30 March, 2020 | 1:00:00 PM

দেলোয়ার হোসেন বাদশা,চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : শুধু দেশ নয় সারা বিশ্বজুড়ে করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমন প্রতিরাধে স্বোচ্চার অবস্থায় থাকলেও দিনাজপুরের চিরিরবন্দর উপজেলার ট্রিলিয়ন গোল্ড লিমিটেড চুল কারখানায় নেই কোন সুরক্ষার ব্যবস্থা। ফলে এলাকার মানুষের মাঝে প্রতিনিয়ত আতঙ্ক বিরাজ করছে। উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নে অবস্থিত এই এলাকার একমাত্র বৃহৎ চুল কারখানা গার্মেন্টস এটি। কর্তৃপক্ষ যদিও সাবান দিয়ে হাত ভালো ভাবে পরিস্কার করার কথা বললেও সেখানেও শ্রমিকরা তেমন কোন নিয়ম না মেনে সাধারন ভাবেই কাজ করে যাচ্ছে।
বর্তমানে ট্রিলিয়ন গোল্ডে কাজ করে প্রায় সাড়ে ৪ হাজারের বেশী শ্রমিক। কারখানার প্রবেশ পথেই নেই কোন জীবাণূনাশক হ্যান্ড স্যানিটাইজার বা সাবান পানির ব্যবস্থা। কোন প্রকার সচেতনতা না থাকায় মারাত্মক করোনা ঝুঁকিতে রয়েছে এই এলাকার চুল কারখানার শ্রমিকরা। সারাদিন কাজ করে এসে তারা স্বাভাবিক ভাবে তাদের পরিবারের সদস্যদের সাথে মেলামেশা করছে। ট্রিলিয়ন গোল্ড চুল কারখানায় কর্মরত কয়েকজন শ্রমিক জানায়, এখানে একটি ফ্লোরে ১ হাজার থেকে দেড় হাজারেও বেশী শ্রমিক একসাথে কাজ করে। একজনের সাথে আরেক জনের দূরুত্ব এক হাতেরও কম। সতর্কতা থেকে এখানে শ্রমিকরা অনেক দূরে। আগে যেভাবে কাজ করতো তারা এখনো সেভাবেই কাজ করছে । শুধু কারখানার ভিতরে দায়সারা হাত ধোয়া ও মাস্ক ব্যবহার ছাড়া আর অন্য কোন কিছুই করছেনা তারা। ওই এলাকার স্থানীয়রা জানান, কোন কারনে এখানে একজন শ্রমিকের করোনা দেখা দিলে পরিস্থিতি সামাল দেয়া কঠিন হয়ে পড়বে। তাই কারখানায় ভাইরাসরোধী জোরদার ব্যবস্থা গ্রহন ও শ্রমিকদের সুস্থতার প্রতি নজর রাখার জন্য মালিককে তাগিদ দিচ্ছেন তারা। ট্রিলিয়ন গোল্ড কারখানার দায়িত্বশীল পদে কর্মরত কয়েকজনের সাথে কথা বললে তারা জানান, কারখানা কর্তৃপক্ষ ও বাংলাদেশ এক্সপোর্ট প্রসেসিং জোন (বেপজা) কারখানা বন্ধের নির্দেশ না দেয়ার ফলে শ্রমিকরা বাধ্য হয়েই তাদের কর্মস্থলে আসছেন।
এ বিষয়ে চিরিরবন্দর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প.প. কর্মকর্তা ডাঃ আজমল হক জানান, ট্রিলিয়ন গোল্ড কারখানায় সচেতনতা ও সুরক্ষার ব্যবস্থা না থাকলে বর্তমান পরিস্থিতিতে তা বন্ধ করে দেয়া উচিত। দুরত্ব বজায় না রাখলে ও সুরক্ষা ব্যবস্থা না থাকলে করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি ব্যাপকহারে থেকে যায়।
এ ব্যাপারে চিরিরবন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার আয়েশা সিদ্দীকা বলেন, ট্রিলিয়ন গোল্ড চুল কারখানার কর্তৃপক্ষকে শ্রমিকদের জন্য যথাযথ সুরক্ষার ব্যবস্থা ও শ্রমিকদের অব্যশই মাস্ক জীবাণুনাশক ও হ্যান্ডস্যানিটাইজার ব্যবহারের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এছাড়া পৃথক পৃথক সময়ে শ্রমিকদের ডিউটি ভাগ করে দেয়া ও কারখানার বাইরে জনাসমাগম না করার জন্য সতর্ক করা হয়েছে।