Home » » ফুলবাড়ীতে জমি-জমার বিরোধকে কেন্দ্র করে ৩ জন আহত

ফুলবাড়ীতে জমি-জমার বিরোধকে কেন্দ্র করে ৩ জন আহত

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 26 February, 2020 | 5:00:00 PM

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের ফুলবাড়ী উপজেলার উত্তর রঘুনাথপুর গ্রামে জমি জবর দখলে বাধা দিতে গিয়ে ৩ জন গুরুতর রক্তাক্ত জখম হয়েছে। আশঙ্খাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। 
থানায় মামলা দায়ের। মামলার নথি সূত্রে জানাযায়, দাদার ত্যাক্ত সম্পত্তি নিয়ে ফুলবাড়ী আলাদীপুর ইউনিয়নের উত্তর রঘুনাথপুর গ্রামের মৃত ইয়াছিন আলী তালুকদারে পুত্র বাদী মো. আকতারুজ্জামান গং এবং মৃত মোতাহার তালুগদারের পুত্র মতিয়ার ও মাজু গং চাচাত ভাই-ভাতিজাদের মাঝে ভাগ-বন্টন নিয়ে দির্ঘদীন থেকে বিরোধ চলছিল।
এরই প্রেক্ষিতে ১৩ ফেব্রুয়ারি সকালে প্রতিপক্ষ মতিয়ার ও মাজু গং বাদী পক্ষের স্বত্ব দখলীয় আলাদীপুর মৌজার ৮৫ খতিয়ানের ২৫৫,২৮৩ ও ২৯২ দাগের সম্পত্তিতে জবর দখলের উদ্দেশ্যে সংঘবন্ধভাবে দেশীয় অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অনধিকার প্রবেশ করতঃ জোর পূর্বক শ্যালোর পানি দিতে থাকে; খবর পেয়ে বাদীসহ আব্দুল ওয়াদুদ, আইনুল, মশিউর ও রাজু তাদের স্বত্ব দখলীয় সম্পত্তিতে পানি সেচে বাধা দিতে গেলে উপরোক্ত প্রতিপক্ষগণ মতিয়ার রহমানের হুকুমে বেধড়ক মারপিট করে। এক পর্যায়ে ১নং আসামী মহিদুল ইসলাম মাজু তার হাতে থাকা পশুকুড়াল দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে মো. আইনুলের মাথার মধ্যভাগে সজোরে চোট মেরে রক্তাক্ত কাটা জখম করে যাতে ৭টি সেলাই রয়েছে।
বর্তমানে ভিকটিম দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ৫নং আসামী মো. সজিব তার হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে একই উদ্দেশ্যে মো. আইনুল হকের মাথা লক্ষ্য করে আঘাত করলে উক্ত আঘাত ডান হাত দ্বারা ঠেকালে তার ডান হাতের ভিতরের দু’টি হাড় ভেঙ্গে যায়। তার ভাতিজা মো. রাজু আইনুলকে বাচাতে আসলে ২নং আসামী মো. মতিয়ার তার হাতে থাকা লোহার রড দ্বারা হত্যার একই উদ্দেশ্যে রাজুর মাথায় সজোরে আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত ফাঁটা জখম করে। যাতে ৬টি সেলাই রয়েছে। এতে তার স্মৃতিভ্রম ঘটে বর্তমানে রংপুরে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের নিবিড় পর্যবেক্ষনে রয়েছে।
আব্দুল ওয়াদুদ ভিকটিমদ্বয়কে রক্ষার জন্য আসলে ৪নং আসামী আবু বক্কর তার হাতের লোহার রড দ্বারা হত্যার উদ্দেশ্যে ওয়াদুদের মাথার মধ্যভাগে সজোরে আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত ফাঁটা জখম করে। যাতে ৩টি সেলাই রয়েছে। অপরাপর আসামীগণ বাদী পক্ষগণকে শরীরের বিভিন্ন স্থানে হত্যার উদ্দেশ্যে মারপিট করে ফুলা ও কালশিরা জখম করে। এঘটনায় ফুলবাড়ী থানায় ৩২৬, ৩২৫, ৩০৭, ৫০৬ (।।) সহ ১৪৩, ৪৪৭, ৩২৩, ৩২৪, ১১৪,৩৪ (পেনাল কোড-১৮৬৩) ধারায় ফৌজদারি অপরাধে ৭ জনকে অভিযুক্ত করে মো. আখতারুজ্জামান একটি লিখিত এজাহার দায়ের করেন। মামলা নং- ১৭/৪৩, তাং- ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০।
 মামলায় অভিযুক্ত মতিয়ার তালুকদার ও আবু বক্কর তালুকদার ২৪ ফেব্রুয়ারি দিনাজপুর বিজ্ঞ সিনিয়র জুডি. ম্যাজি. আমলী আদালত- ৫ (ফুলবাড়ী) এ জামিনের প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ বিচারক মো. রাশেদুল জামিন নামঞ্জুর করে তাদের জেল হাজতে প্রেরণ করেন। এদিকে থানায় মামলা করায় প্রতিপক্ষগণ বাদীপক্ষকে মিথ্যা মামলাসহ বিভিন্নভাবে ভয়-ভীতি প্রদর্শন পূর্বক প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছে। 
এমতাবস্থায়, বাদীপক্ষের পরিবারের লোকজন এখন চরম আতংকে এবং জান মালের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। তারা সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের সু-সৃষ্টি কামনা করছে। এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. সেকেন্দার আলী জানান, আসামীরা পলাতক রয়েছে, তাদের ধৃত করার চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।