Home » » চিরিরবন্দরে আমন সংগ্রহের জন্য লটারীর মাধ্যমে ২ হাজার ৫২৫ চাষী নির্বাচিত

চিরিরবন্দরে আমন সংগ্রহের জন্য লটারীর মাধ্যমে ২ হাজার ৫২৫ চাষী নির্বাচিত

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 27 November, 2019 | 11:19:00 PM

দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের চিরিরবন্দর সরকারী ভাবে আমন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যে উপজেলার প্রান্তিক চাষীদের মাঝ থেকে এবার লটারীর মাধ্যমে ২৩ হাজার ৮শ ১২ জন চাষীর মধ্যে ২ হাজার ৫২৫ জনকে নির্বাচন করা হয়েছে। বুধবার সকালে আব্দুলপুর ইউনিয়ন পরিষদে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আয়েশা সিদ্দীকা কৃষক নির্বাচনের উদ্ধোধন করেন। এতে ২৩ হাজার চাষির মধ্যে ২ হাজার ৫২৫ জন চাষীকে উম্মুক্ত লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত করা হয়। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় ও উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, সরাসরি প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে ২৬ টাকা কেজি দরে উপজেলার তিনটি খাদ্য গুদামে ধান ক্রয়ের লক্ষ্যে ১২ ইউনিয়নের কৃষি কার্ডধারী ২ হাজার ৫২৫ জন প্রাান্তিক কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে। নির্বাচিত কৃষকগণ এক টন হারে ধান সরকারী গুদামে বিক্রি করতে পারবেন। লটারীর মাধ্যমে চাষী নির্বাচন উপলক্ষ্যে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের মাঝে লটারীতে অংশ গ্রহন করেন ইউএনও আয়েশা সিদ্দীকা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মেজবাউল করিম, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান জ্যোতিষ চন্দ্র রায়, উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মাহমুদুল হাসান ও সমবায় অফিসার জিল্লুর রহমান বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও কৃষকবৃন্দ। চিরিরবন্দরে আমন সংগ্রহের জন্য লটারীর মাধ্যমে ২ হাজার ৫২৫ চাষী নির্বাচিত দেলোয়ার হোসেন বাদশা, চিরিরবন্দর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের চিরিরবন্দর সরকারী ভাবে আমন ধান সংগ্রহের লক্ষ্যে উপজেলার প্রান্তিক চাষীদের মাঝ থেকে এবার লটারীর মাধ্যমে ২৩ হাজার ৮শ ১২ জন চাষীর মধ্যে ২ হাজার ৫২৫ জনকে নির্বাচন করা হয়েছে। বুধবার সকালে আব্দুলপুর ইউনিয়ন পরিষদে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আয়েশা সিদ্দীকা কৃষক নির্বাচনের উদ্ধোধন করেন। এতে ২৩ হাজার চাষির মধ্যে ২ হাজার ৫২৫ জন চাষীকে উম্মুক্ত লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত করা হয়। উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় ও উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, সরাসরি প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে ২৬ টাকা কেজি দরে উপজেলার তিনটি খাদ্য গুদামে ধান ক্রয়ের লক্ষ্যে ১২ ইউনিয়নের কৃষি কার্ডধারী ২ হাজার ৫২৫ জন প্রাান্তিক কৃষক নির্বাচন করা হয়েছে। নির্বাচিত কৃষকগণ এক টন হারে ধান সরকারী গুদামে বিক্রি করতে পারবেন। লটারীর মাধ্যমে চাষী নির্বাচন উপলক্ষ্যে মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের মাঝে লটারীতে অংশ গ্রহন করেন ইউএনও আয়েশা সিদ্দীকা, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ মেজবাউল করিম, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান জ্যোতিষ চন্দ্র রায়, উপজেলা কৃষি অফিসার মোঃ মাহমুদুল হাসান ও সমবায় অফিসার জিল্লুর রহমান বিভিন্ন ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও কৃষকবৃন্দ।