Home » » স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আবার ক্ষমতায় এলে দেশে লুটপাট, অরাজকতা শুরু হবে......রেলপথ মন্ত্রী

স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আবার ক্ষমতায় এলে দেশে লুটপাট, অরাজকতা শুরু হবে......রেলপথ মন্ত্রী

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 17 November, 2019 | 11:35:00 PM

আমির খসরু লাবলু,পঞ্চগড় ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মো.নূরুল ইসলাম সুজন এম পি বলেছেন, স্বাধীনতা বিরোধী শক্তি আবার ক্ষমতায় এলে দেশে লুটপাট, অরাজকতা শুরু হবে। মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তিকে তাদের এই অপচেষ্টা প্রতিহত করতে জনগণকে পাশে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। তিনি রবিবার (১৭ নভেম্বর) পঞ্চগড়ের বোদা মহিলা মহাবিদ্যালয় মাঠে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বোদা পৌরসভার ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। এর আগে মন্ত্রী জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করে সম্মেলনের সূচনা করেন। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল কাদের আবুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বোদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র অ্যাডভোকেট ওয়াহিদুজ্জামান সুজা, সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফজলে বারী সুজা। প্রধান বক্তা ছিলেন বোদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বোদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অবসর প্রাপ্ত অধ্যাপক ফারুক আলম টবি। মন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক নেতাকর্মীকে মানুষের সেবা ও কল্যাণের জন্য কাজ করতে হবে। পদ কোন পদবী নয়, এটা হলো দায়িত্ব। বঙ্গবন্ধুর কমী দাবি করলে দায়িত্বও আসবে। আমরা অনেক সময় দায়িত্বটা অনুভব করি না। তিনি দেশ, সমাজ, প্রতিবেশি ও সাধারণ মানুষের বিপদে আপদে কাছে থেকে সহযোগিতার জন্য নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান। তিনি বলেন, জনগণ ভোট দিয়ে আমাদের ক্ষমতা দিয়েছে। এই ক্ষমতা ভোগের নয় ত্যাগের। এই ক্ষমতা জনগণের কল্যাণের কাজে লাগাতে হবে। রেলপথ মন্ত্রী বলেন বঙ্গবন্ধুর লালিত স্বপ্ন ক্ষুধামুক্ত, দারিদ্র মুক্ত আত্মনির্ভরশীল মর্যাদা সম্পন্ন একটি দেশ গড়ে তুলতে সকলকে ঐক্যব্ধভাবে কাজ করে যেতে হবে। তিনি বলেন বিএনপির আমলে রেলের কোন উন্নয়ন করা হয়নি। রেল ব্যবস্থা ধ্বংসের পথে চলে গিয়েছিল, দশ হাজার কর্মকর্তা কর্মচারীকে গোল্ডেন হেন্ডশেখের মাধ্যমে বাধ্যতামুলক অবসরে পাঠানো হয়েছিল। প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ট্রেনের উন্নয়নে ব্যাপক উন্নয়ন কর্মসুচি বাস্তবায়ন করে চলেছি। তিনি বলেন.যমুনা নদীর উপর একটি পৃথক রেল সেতু নির্মান কাজ অচিরেই শুরু হবে এবং পদ্মা সেতুতে রেল সংযোগ করে যশোর পর্যন্ত আধুনিক রেল ব্যবস্থা সম্প্রসারণ করা হবে। মন্ত্রী বলেন, নিরাপদ ও অল্প খরচে যাতে সাধারণ মানুষ ভ্রমন ও ব্যবসা-বানিজ্য করতে পারে সে জন্য রেল ব্যবস্থাকে আরো উন্নত করা হচ্ছে। ট্রেনের উন্নয়নে আমরা যখন এগিয়ে যাচ্ছি তখন একটি চক্র ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। উন্নয়ন বিরোধীদের অপচেষ্টাকে প্রতিহত করতে সকলকে সজাগ থাকার আহবান জানান। পরে সমঝোতার মধ্য দিয়ে আবু মো. ইমতিয়াজ হোসেন মির্জা কে সভাপতি ও আফছারুল ইসলাসকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করে ৬৯ সদস্য বিশিষ্ট বোদা পৌর আওয়ামী লীগের কমিটি গঠন করা হয়। কাউন্সিল শেষে এক মনোজ্ঞ সংগীতানুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রী দর্শকের সারিতে বসে সংগীতানুষ্ঠান উপভোগ করেন। #