Home » » কিশোরগঞ্জে মাল্টা চাষে স্বপ্ন বুনছেন কৃষক আজিজুল

কিশোরগঞ্জে মাল্টা চাষে স্বপ্ন বুনছেন কৃষক আজিজুল

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 15 September, 2019 | 11:53:00 PM

মিজানুর রহমান, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : মাল্টা ফলে স্বপ্ন জুড়ে আছে কৃষক আজিজুল ইসলামের। তিনি মাল্টা বিক্রি করে একদিন স্বাবলম্বী হবেন। এই প্রত্যাশা আর প্রতিক্ষার প্রহর গুনে গুনে এখন দিন কাটছে তার। নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার মুশরুত পানিয়ালপুকুর সরকার পাড়া গ্রামের মরহুম রজব আলীর ছেলে আজিজুল ইসলাম বলেন, তিনি একজন সফল আদাচাষী ছিলেন। আদা চাষ করেই তিনি কয়েক বিঘা জমির মালিক হয়েছেন। এখন আদা চাষ করে তিনি আগের মত আর লাভের মুখ দেখতে পারছেন না। কারন বিভিন্ন রোগ বালাইয়ে আদায় মড়ক ধরেছে। তাই তিনি বিকম্প কিছু চাষাবাদ করার কথা অনেকদিন থেকে ভাবছিলেন। ২০১৬সালে স্থানীয় কৃষি অফিসের মাধ্যমে সরকারের রাজস্ব খাত থেকে মাল্টা চাষের প্রর্দশী গ্রহন করেন তিনি। এই মাল্টায় তিনি এখন দিনরাত স্বপ্নের জালবুনছেন। মাল্টা চাষে সফল হলে তিনি এর বানিজ্যিক চাষাবাদ শুরু করবেন। তার ২০ শতাংশ জমিতে ৫৩টি মাল্টাগাছ রয়েছে। এবার প্রথম গাছে ফল ধরেছে। একটি করে ডালে ৬ থেকে ৭টি করে মাল্টা ঝুলছে। ফল পরিপক্ক হতে আরো এক থেকে দেড় ম্সা সময় লাগবে। আজিজুল ইসলাম বলেন কৃষি হচ্ছে সবচেয়ে মহৎ পেশা। আমি যখন সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র তখন জসিম উদ্দিনের লেখা একটি কবিতা পড়েছিলাম “তুমি মোদের মহান নেতা, তুমি মহাপ্রান, তোমায় দেখে চুর্ণ ইউক, ভন্ড নেতার মান”। তখন থেকে আমি মনে মনে প্রতিজ্ঞা করেছি আমি চাষবাদ করে জিবীকা নির্বাহ করব। ১৯৭১সালে বি ত্র পাশ করারপরও আমি কোথাও আর চাকরির আবেদন করিনি। কৃষি চাষাবাদ আমার মন প্রানে জুড়ে আছে। উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ হাবিবুর রহমান বলেন। এ উপজেলার উচুঁ জমিগুলো মাল্টা চাষে উপযোগি। তাই কুষক আজিজুল ইসলাম কে বারি-১ জাতের মাল্টা চারা দেয়া হয়েছে। বারি-১ জাতটির ফলন অধিক স্বাদে ও অন্যান্য।