Home » » পার্বতীপুরে উচ্ছেদ অভিযান আগামীকাল বৃহষ্পতিবারও চলবে!

পার্বতীপুরে উচ্ছেদ অভিযান আগামীকাল বৃহষ্পতিবারও চলবে!

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 18 September, 2019 | 10:41:00 PM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : বাপের বাড়ি থেকে ভাইদের কাছ থেকে বাপের অংশ নিয়ে তা বিক্রি করে রেলওয়ের জমির উপরে বাড়ি করনু। কায় জানে এইংকা ফির হইবে। জানলে মোর স্বামীর রেলের জায়গা নিবার দিনু না হয়। এখন ভাইয়েরাও আর বাড়িত ঠাই দিবার নায়। এখন হামরা কোঠে যামো! একজন মহিলা তার নিজ বাড়ির অদুরে গিয়ে তার বাড়ি ভ্যাকু মেশিন দিয়ে ভাঙ্গার দৃশ্য দেখছে আর এমন কথা নিজেই নিজেই বলছেন আর কাঁদছেন। তার কাছে দুই সন্তান মায়ের কান্না দেখে ওরাও কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে। এক সময় বলেই ওঠলো এতোগুলা মানুষ টাকা দিয়েও শেষ রক্ষা হলো না বলে আর্তনাদ করছেন। জানা গেছে, পার্বতীপুরে রেলওয়ের জমিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে গুড়িয়ে দিয়েছে রেল কর্তৃপক্ষ। কয়েকবার ওই সকল অবৈধভাবে বসবাসকারী রেলওয়ের জমি খালি করার মাইকযোগে নির্দেশ প্রদান করেন রেলওয়ের সংশ্লিষ্ঠ বিভাগ। আজ বুধবার বেলা ১১ টা থেকে উপজেলা পরিষদের পশ্চিমে হুগরীপাড়া (সাবেক নর্থ ইয়ার্ড নামক স্থান) ৩ টি ভ্যাকু মেশিন দিয়ে কয়েক শ’ দোকানপাট ও আবাসিক বাসভবন ভেঙ্গে ফেলেছে। এতে ক্ষতির পরিমান বেশ কয়েক কোটি টাকা। আগামীকাল বৃহষ্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর আবারও শহরের ও রেলেওয়ের কলোনীর মধ্যে অবৈধরত বসবাসকারীসহ বেশ কিছু অবৈধ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও আবাসিক ভবন উচ্ছেদ করবেন রেল কর্তৃপক্ষ। ফলে শত শত মানুষ গৃহহারা হয়েছেন। সেই সাথে কয়েক শ’ ব্যবসায়ী একেবারেই পথে বসেছেন। ওই এলাকার মানুষ ভেবেছিল রেলওয়ের অপ্রয়োজনীয় জায়গা হয়তো ভাংতে আসবে না। হয়তো বা লিজ বা বরাদ্দের প্রক্রিয়ার ব্যবস্থা করবেন স্থানীয় নেতা বা সুধি মহল। কিন্তু না তাদের সেই ধারণাও ভুল হয়ে গেল। এব্যাপারে জানতে চাইলে পার্বতীপুর রেলওয়ের কানুনগু জিয়াউল হক জানান, আগামীকাল বৃহষ্পতিবার পৌর শহরে অভিযান চলবে। তিনি বলেন, এ অবৈধ উচ্ছেদ অভিযানের সময় রেলওয়ের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট নুরুজ্জামান ও পার্বতীপুর উপজেলার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সহকারী কমিশনার (ভূমি) আবু তাহের মোঃ শামছুজ্জামান, রেলওয়ে এ,ই,এন আব্দুল মান্নান, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর সিআই আতাউর রহমান রুবেল, রেলওয়ে পুলিশ অফিসার আব্দুস ছাত্তার, পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশ, র‌্যাব সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও মহিলা পুলিশ ছিলো।