Home » » পার্বতীপুরে অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ সম্পর্কে মতবিনিময় সভা

পার্বতীপুরে অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ সম্পর্কে মতবিনিময় সভা

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 31 August, 2019 | 11:39:00 PM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতনিধিিচিলিাহাটি ওয়বে : পার্বতীপুরে রেলওয়ের জমি অবৈধ দখলকারীরা এখন পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ উপজেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক এবং পৌর মেয়র আলহাজ্ব এজেডএম মেনহাজুল হক এর হস্তক্ষেপ কামনা করায় গত ৩০ আগস্ট সন্ধ্যায় স্থানীয় বাস মালিক সমিতির সভাকক্ষে এক ঘরোয়া আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে পৌর মেয়রের সভাপতিত্বে এ মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পার্বতীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ উপজেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাংবাদিক শম হায়দার, আবদুল কাদির, ব্যবসায়ী মাসুদুর রহমান বাবু, জাকির হোসেন প্রমুখ। বক্তারা বলেন, ভুমি সমস্যার কারনেই পার্বতীপুর পৌরসভা এলাকায় তেমন কোন উন্নয়ন করতে পারেনি এখানকার প্রশাসন। এখন পর্যন্ত পার্বতীপুর পৌরসভার নিজস্ব কোন ভবন তৈরী করতে পারেননি। তাছাড়া ভুমি সমস্যার কারনে প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হওয়া সত্বেও পরিকল্পিতভাবে গড়ে উঠতে পারেনি। রেল কর্তৃপক্ষ বলে যে, এটা রেলওয়ের সম্পত্তি, কেউ আবার ব্যক্তি মালিকানার দাবি করছেন। আংশিক জমি রেলওয়ের হলেও সেখানে পুরো বাড়িটিতে ক্রস চিহ্ন দিয়েছেন এমন কথাও শোনা গেছে। এনিয়ে আদালতে মামলা চলমান আছে বলে জানা যায়। সচেতন মহল মনে করছেন এ অবৈধ স্থাপনা স্ব-স্ব-স্থানে রাজনৈতিকভাবে ও সব শ্রেণি পেশার মানুষের মতামতের ভিত্তিতে এ অভিযান করলে রেলওয়ে যেমন আর্থিক লাভবান হতো তেমনি উচ্ছেদ আতংক থেকে মানুষ স্বস্তি পাবে বলে সবার বিশ্বাস। জানা গেছে, আগামী সোমবার ২ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পার্বতীপুর রেলওয়ের এলাকায় অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে মর্মে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের স্বাক্ষরিত পত্রের বরাত দিয়ে পার্বতীপুর শহরে বেশ কয়েকদিন থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। যাদের বৈধ কাগজপত্র রয়েছে বা আদালতে জমি নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে তাদেরকে ১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তার নিকট উপস্থিত হতে বলেছেন। আগামী ২ সেপ্টেম্বর পার্বতীপুর বাসটার্মিনালের উত্তর দক্ষিণে, ৩ সেপ্টেম্বর আদর্শ কলেজ পাড়া থেকে বাইপাস হয়ে বিত্তিপাড়া পর্যন্ত ও ৪ সেপ্টেম্বর পার্বতীপুর বাজার থেকে বঙ্গবন্ধু স্কুল পর্যন্ত। এছাড়াও রেলওয়ে কলোনীতে সকল প্রকার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। এদিকে, অবৈধ দখলকারীরা নেতাদের বাড়ীতে ধর্ণা দিতে শুরু করেছে। কেউবা উকিলের কাছে কেউ বা রেলওয়ের কানুনগো অফিসে। একটি সূত্র মতে বলা হয়েছে এ উচ্ছেদ অভিযান সফল হলে কয়েক হাজার পরিবার গৃহহারা হবে। সেই সাথে ব্যবসায়ীরা কর্মহীন হয়ে পড়বে। উল্লেখ্য, কিছু সম্পত্তি আছে যার মালিকানা নিয়ে রেল কর্তৃপক্ষের সাথে সাধারণ জনগণের সাথে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে।