Home » » পার্বতীপুরে অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ আতংক

পার্বতীপুরে অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ আতংক

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 29 August, 2019 | 11:15:00 PM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : উচ্ছেদ অভিযানের কথা শুনে রেলওয়ের অবৈধ দখলদারীদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে। সেই সাথে অবৈধ দখল করে যারা বাড়ী করে ভাড়া দিয়েছেন তাদের ভাড়াটিয়ারা মালামাল নিয়ে আতংকে আছেন। আসে পাশের কোন বাসা বাড়ী খালি না থাকায় বিপাকে পড়েছে ভাড়াটিয়ারা। এ উচ্ছেদ অভিযান সম্পর্কে পার্বতীপুর রেলওয়ের ফিল্ড কানুনগো জিয়াউল হক জিয়া এর কাছে গতকাল বৃহষ্পতিবার সন্ধ্যে সোয়া ৬টার দিকে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ইতি মধ্যেই রেলওয়ে জমির উপর অবৈধ স্থাপনা দখলকারীদেরকে সরিয়ে নিতে কয়েক দফা বলা হয়েছে। সরিয়ে নেয়া না হলে অবৈধ উচ্ছেদকৃত মালামাল তাৎক্ষণিক নিলামের মাধ্যমে বিক্রি করা হবে। এছাড়া যে সব বাড়ী বা দোকানপাঠ ভাঙ্গা সম্ভব হবে না সেসব স্থাপনাও নিলামে ডাক দেয়া হবে। এব্যাপারে শহরে গতকাল বৃহষ্পতিবার মাইকিংও করা হচ্ছে বলে তিনি সত্যতা স্বীকার করেন। জানা গেছে, আগামী ২ সেপ্টেম্বর থেকে ৪ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পার্বতীপুর রেলওয়ের এলাকায় অবৈধ স্থাপনার উচ্ছেদ অভিযান শুরু হবে মর্মে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তা নুরুজ্জামানের স্বাক্ষরিত পত্রের বরাত দিয়ে পার্বতীপুর শহরে বেশ কয়েকদিন থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। যাদের বৈধ কাগজপত্র রয়েছে বা আদালতে জমি নিয়ে মামলা চলমান রয়েছে তাদেরকে ১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় ভূ-সম্পত্তি কর্মকর্তার নিকট উপস্থিত হতে বলেছেন। আগামী ২ সেপ্টেম্বর পার্বতীপুর বাসটার্মিনালের উত্তর দক্ষিণে, ৩ সেপ্টেম্বর আদর্শ কলেজ পাড়া থেকে বাইপাস হয়ে বিত্তিপাড়া পর্যন্ত ও ৪ সেপ্টেম্বর পার্বতীপুর বাজার থেকে বঙ্গবন্ধু স্কুল পর্যন্ত। এছাড়াও রেলওয়ে কলোনীতে সকল প্রকার অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হবে। এদিকে, অবৈধ দখলকারীরা নেতাদের বাড়ীতে ধর্ণা দিতে শুরু করেছে। কেউবা উকিলের কাছে কেউ বা রেলওয়ের কানুনগো অফিসে। একটি সূত্র মতে বলা হয়েছে এ উচ্ছেদ অভিযান সফল হলে কয়েক হাজার পরিবার গৃহহারা হবে। সেই সাথে ব্যবসায়ীরা কর্মহীন হয়ে পড়বে। উল্লেখ্য, কিছু সম্পত্তি আছে যার মালিকানা নিয়ে রেল কর্তৃপক্ষের সাথে সাধারণ জনগণের সাথে আদালতে মামলা চলমান রয়েছে।