Home » » ফুলবাড়ীতে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণকারী বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন

ফুলবাড়ীতে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণকারী বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 20 July, 2019 | 11:56:00 PM

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে চতুর্থ শ্রেণির (১১) এক প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষক ও ধর্ষণের ঘটনা শালিসের নামে ধামাচাপা দেয়া চেষ্টাকারীদের বিচারের দাবীতে মানব বন্ধন করেছেন, ফুলবাড়ী সচেতন নাগরীক সমাজ। গতকাল শনিবার সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত স্থানীয় নিমতলা মোড়ে দিনাজপুর-ঢাকা মহাসড়কের পাশে দাড়িয়ে তারা এই মানব বন্ধন করেন। মানব বন্ধনে বক্তাগণ বলেন উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নে গত ৩ জুলাই এক নরপশু ৪র্থ শ্রেনীর এক প্রতিবন্ধি শিশুকে ধর্ষন করে। এই জঘন্য ঘটনাটি স্থানীয় কয়েকজন মাতব্বর ও কথিত দুই সাংবাদিক নামধারী ব্যাক্তি শালিশের নামে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্ঠা করে। বক্তাগণ আরো বলেন স্থানীয় সাংবাদিকগণ ঘটনাটি উদ্ঘাটনের সংবাদ প্রকাশ করায়, ওই ধর্ষকসহ ৫ মাতব্বরের বিরুদ্ধে মামলা হলেও এখনো ধরা-ছোয়ার বাহিরে রয়েছে ওই কথিত দুইজন সাংবাদিক নামধারী ব্যাক্তি, অবিলম্বে তাদেরকে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জোর দাবী জানান। মানব বন্ধনে বক্তব্য দেন, সচেতন নাগরিক সমাজের সভাপতি আরিফ খান জয়, সাধারন সম্পাদক হামিদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি ইমাম রেজা, সমাজ কর্মী মাহবুব এ হাফিজ ড্যানি, সাংবাদিক মোঃ রজব আলী, ফুলবাড়ী থানা প্রেসক্লাবের সভাপতি আফজার হোসেন,সাংবাদিক মেহেদী হাসান উজ্জল, ফুলবাড়ী প্রেসক্লাবের প্লাবন গুপ্তা শুভ প্রমুখ। উল্লেখ্য গত ৩ জুলাই ফুলবাড়ী উপজেলার ৭ নং মিবনগর ইউনিয়নের রামভদ্রপুর আবাসন এলাকায় দুপুর এক টায়, আবাসনের বাসীন্দা রিক্সা-ভ্যান চালককের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়–য়া প্রতিবন্ধী মেয়ে দোকানে জুস নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে, একই আবাসনের বাসিন্দা দুই স্ত্রীর স্বামী মেহেদুল ইসলাম (৩৫) শিশুটিকে জঙ্গলে নিয়ে ধর্ষণ করেন। এই ধর্ষন ঘটনাটি জানাজানি হলে, ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য শুরু হয় শিশুর পিতা-মাতার ওপর বিভিন্ন ধরনের চাপসহ হুমকি। এক পর্যায়ে শালিস বৈঠকের মাধ্যমে ১৪ হাজার টাকায় ধর্ষণ ঘটনাটি মিমাংসা করতে বাধ্য করে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্ঠা করা হয়। শুধু তাই নয়, শালিসে অভিযুক্ত ধর্ষকেে নিকট ১৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হলেও, ধর্ষিতা ওই শিশুর পিতাকে দেওয়া হয়েছে মাত্র ৭ হাজার টাকা। বাকি ৭ হাজার টাকা ভাগবাটোয়ারা হয়েছে উপস্থিত কথিত দুই সাংবাদিকসহ শালিসকারিদের মধ্যে। এই ঘটনাটি বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশ হলে নাড়ে-চড়েবসে প্রশাসন, ফলে গতকাল বৃহস্পতিবার ধর্ষক মেহেদুল ও তার সহযোগী শালিসকারী সুজনকে আটক করে পুলিশ। তবে প্রশাসন রহস্যজনক কারনে বাকি জড়িত ব্যক্তিদেরকে গ্রেফতার করছে না।