Home » » বদরগঞ্জে কাঁচা মরিচের দাম চড়া

বদরগঞ্জে কাঁচা মরিচের দাম চড়া

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 20 July, 2019 | 11:44:00 PM

আকাশ রহমান, বদরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : কাঁচা মরিচের ভরা মৌসুম তবুও রংপুরের বদরগঞ্জে মরিচের দাম বেড়েই চলেছে। দাম বেশি হবার কারনে ভোক্তরা পড়েছেন বিপাকে। প্রতিদিনের রান্নায় অত্যাবশ্যকীয় উপাদান এই কাঁচা মরিচের দাম চড়া হবার কারনে প্রয়োজনের তুলনায় কম কিনছেন ক্রেতারা। কথা হয় বদরগঞ্জ উপজেলার মধুপুর ইউপির নাওপাড়া গ্রামের মরিচ চাষি মেনহাজুল ইসলামের সাথে, তিনি জানান,আমি ২ বিঘা জমিতে মরিচ চাষ করেছি। কিন্তু বর্ষার কারনে মরিচ গাছের ফুল নষ্ট ও গাছ মরে যাওয়ায় মরিচের উৎপাদন কমে গেছে। অথচ গত ১ সপ্তাহ আগেও এই জমি হতে দ্বিগুনহারে মরিচ তুলে বাজারে বিক্রি করেছি। তিনি আরও জানান; পাইকাড়ি বাজারে প্রতি কেজি মরিচ ৯৫টাকা হতে ১শত ১০ টাকা দরে বিক্রি করছি। খুচরা বাজারে মরিচ ১শত ৬০টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। এ সময় রফিকুল ইসলাম নামে একজন ক্রেতা জানান, আমার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ১৪ জন। বাড়ির আত্মীয় স্বজন আসার কারনে বদরগঞ্জ বাজারে এসেছি। কমবেশি সব কিছু কেনাকাটা করেছি। কিন্তু কাঁচা মরিচ কেনার সময় দাম শুনে চমকে উঠেছি। বাজারে বর্তমানে ১শত ৬০টাকা দরে মরিচের কেজি বিক্রি হচ্ছে। বাধ্য হয়ে আড়াইশ গ্রাম মরিচ কিনতে হয়েছে। অথচ তার তুলনায় আমার বাসায় রান্নার কাজে দ্বিগুনহারে মরিচ লাগে। কাঁচামাল ব্যবসায়ি মাহাবুব মিয়ার সাথে,তিনি জানান,গত কয়েকদিন ধরে কাঁচা মরিচের দাম কেজি প্রতি ১শত ৬০টাকায় বিক্রি করছি। আকাশের(বর্ষা) এ অবস্থা চলতে থাকলে কমপক্ষে ২শত টাকায় মরিচ বিক্রি হবে। তিনি আরও জানান,দোকানদারি চালাতে এখন যতটুকু মরিচের দরকার হয় ততটুকুই কিনে বিক্রি করি,কারন দাম বেশি হবার কারনে কাষ্টমাররা চাহিদার চাইতে মরিচ কেনা কমিয়ে দিয়েছে। বদরগঞ্জ উপজেলা উপ-সহকারি কৃষি কর্মকর্তা কনক চন্দ্র রায় জানান,ঘন বৃষ্টিতে মরিচের ফুল ও গাছ মরে যাওয়ায় প্রভাব পড়েছে মরিচের বাজারে। বদরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার গোলাম মোস্তফা মোঃ জোবাইদুর রহমান জানান,কয়েকদিন ধরে মরিচের বাজার বেশ চড়া। আবহাওয়া স্বাভাবিক হলে উৎপাদন বৃদ্ধি পাবে তখন মরিচের আর এই চড়া দাম থাকবে না।