Home » , » ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পঞ্চগড়-ঢাকা দেশের দীর্ঘ তম আধুনিক বিরতিহীন ট্রেন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পঞ্চগড়-ঢাকা দেশের দীর্ঘ তম আধুনিক বিরতিহীন ট্রেন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 25 May, 2019 | 11:35:00 PM

আমির খসরু লাবলু,পঞ্চগড় ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ বাসির উদ্দেশ্যে বলেছেন,আপনার আমাকে সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন বলে দেশের সেবা করে যাচ্ছি। দেশের যোগাযোগ যত ভাল অর্থনৈতিক ভাবে দেশ আরো শক্তিশালা হবে। তাই বর্তমান সরকার যোগাযোগ খাতে ব্যাপক উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তাবায়ন করে চলেছে। তিনি বলেন, বিএনপি সরকার রেল বিভাগকে ধীরে ধীরে ধ্বংস করে দিতে চেয়েছিল ফলে সে সময় রেল ব্যবস্থা নাজুক হয়ে পড়েছিল। তাই রেলের উন্নয়নে মন্ত্রনালয় গড়ে তোলা হয়। নতুন নতুন লাইন তৈরী ও রেল ব্যবস্থায় গতিশীল সাশ্রয়ী আরাদায়ক ও যাত্রী সেবায় মান বাড়িয়ে রেলকে আধুনিকায়ন করা হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী পঞ্চগড় থেকে বাংলাবান্ধা পর্যন্ত নতুন রেল লাইন স্থাপনের পরিকল্পনার কথা ভিডিও কনফারেন্সে জানান। তিনি আজ শনিবার দুপুরে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পঞ্চগড়-ঢাকা-পঞ্চগড় রুটে স্বল্প বিরতিহীন ট্রেন সার্ভিস পঞ্চগড় এক্সপ্রেস এর নব যাত্রা উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন। বীর মুক্তিযুদ্ধা সিরাজুল ইসলাম পঞ্চগড় রেল স্টেশনে আয়োজিত বিশাল সুধী সমাবেশে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে তিনি এই স্বল্প বিরতিহীন নতুন পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেন সার্ভিস উদ্বোধন করেন।
ঢাকা থেকে পঞ্চগড় ৫৯৩ কিলোমিটার দেশের দীর্ঘতম দুরত্বের এই রেল সার্ভিস উদ্বোধনে পঞ্চগড় প্রান্তে রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন এমপি প্রধান মন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন,বিগত সরকারের সময় পঞ্চগড়ে রেল ব্যবস্থা অত্যন্ত নাজুক ছিল। পঞ্চগড় ও ঠাকুরগাঁও জেলার মানুষ রেল কে চিনতো না। এই এলাকার মানুষের দাবীর প্রেক্ষিতে বর্তমান সরকার রেল ব্যবস্থার আধুনিকায়ন ও আন্তঃনগর ট্রেন চালু করে আরামদায়ক,সাশ্রয়ী,নিরাপদ ভ্রমনের সুযোগ করে দেওয়ার জন্য পঞ্চগড় বাসির পক্ষ থেকে তিনি প্রধান মন্ত্রীকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।
এসময় সংসদ সদস্য মোঃ মজাহারুল হক প্রধান,সাবেক সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধান,ফরিদা আক্তার হিরা,বাংলাদেশ রেলওয়ের মহা পরিচালক রফিকুল আলম,জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার সাদাত সম্্রাট,জেলা প্রশাসক,পুলিশ সুপার,জেলা পর্যায়ের সকল সরকারি কর্মকর্তা,জেলার সকল স্তরের জনপ্রতিনিধি,মুক্তিযোদ্ধা,আওয়ামীলীগ,অংগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃ বৃন্দ,সাংবাদিক এবং পঞ্চগড়ের বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নেতৃ বৃন্দ সহ বিপুল সংখ্যক মানুষ উপস্থিত ছিলেন। প্রধান মন্ত্রী ট্রেন যাত্রার উদ্বোধনী ঘোষনার পরেই ১.১৫ মিনিটে পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দেয়।
উদ্বোধনী ট্রেন যাত্রায় রেলপথ মন্ত্রী অ্যাডভোকেট মোঃ নূরুল ইসলাম সুজন এমপি নতুন ট্রেনে প্রথম যাত্রী হিসেবে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। আধুনিক সুবিধা সম্বলিত যাত্রী সেবায় নতুন মাত্রা নিয়ে ৮৯৬ আসনের পঞ্চগড় এক্সপ্রেস ট্রেনটি প্রতিদিন চলাচল করবে। এটি বেলা ১.১৫ মিনিটে পঞ্চগড় থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে রাত ১০.৩৫ মিনিটে ঢাকা পৌছাবে এবং রাত ১২.১০ মিনিটে ঢাকা থেকে ছেড়ে সকাল ৯.৪০ মিনিটে পঞ্চগড় পৌছাবে। এতে যাত্রীদের প্রায় ২ ঘন্টা সময় সাশ্রয় হবে।
দীঘতম এই রেল সার্ভিস চালুর ফলে,পঞ্চগড় সহ এই অঞ্চলের যাত্রীদের ঢাকার সঙ্গে যোগাযোগের ভোগান্তি দুর ও সময় সাশ্রয়ী হবে এবং বাংলাবান্ধা স্থলবন্দরের মাধ্যমে পর্যটনে প্রসার লাভ করবে। ফলে ব্যবসা-বানিজ্য সহ এই অঞ্চলে আর্থসামাজিক ভাবে ব্যাপক পরিবর্তন সাধিত হবে।