Home » » দিনাজপুরে নার্সদের সিলেকশন গ্রেড প্রদানের দাবীতে মানববন্ধন

দিনাজপুরে নার্সদের সিলেকশন গ্রেড প্রদানের দাবীতে মানববন্ধন

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 03 April, 2019 | 11:49:00 PM

বিশেষ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : সিলেকশন গ্রেড প্রদানের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে সিলেকশন গ্রেড বঞ্চিত দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল ও জেলার বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত নার্সরা। একই দাবীতে তারা জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করেছে। যার অনুলিপি বিভিন্ন দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। বুধবার (৩ এপ্রিল) সকালে ১১টায় তারা এই কর্মসূচী পালন করে। দিনাজপুর প্রেসক্লাবের সামনে সকাল ১১টায় মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করে। মানববন্ধন শেষে সংবাদ সম্মেলন করে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সিনিয়র নার্স মোছাঃ ওযাজেদা বেগম। সংবাদ সম্মেলন ও স্মারকলিপিতে তারা বলেন, গত ১৫-১২-২০১৫ ইং তারিখের আগে সরকারের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ সিলেকশন গ্রেড পেয়েছেন, কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের বিষয় ১৫-০৫-২০১৫ ইং তারিখে নার্সিং কর্মকর্তাদের একটি সিলেকশন গ্রেড পাওনা হলেও সেবা পরিদপ্তরের (ডিএনএস) চাহিদা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অত্র দপ্তরে পাঠানোর পরও অদ্যাবধি তারা তা পাননি। স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, ২০১১ সালের মে মাসে প্রধানমন্ত্রী নার্সদের দ্বিতীয় শ্রেণিতে উন্নীত করায় সরকারী চাকুরি বিধিমালা অনুযায়ী ২০০৩ সালে ও ২০১০ সালে নিয়োগ পাওয়া স্টাফ নার্স ও সিনিয়র স্টাফ নার্সদের ১২-০৫-২০১১ ইং হতে ১১-০৫-২০১৫ ইং সাল পর্যন্ত চার বৎসর পূর্তি শেষে একটি সিলেকশন গ্রেড পাওনা হয়। কিন্তু নার্সরা শুধুমাত্র বাৎসরিক ইনক্রিমেন্ট ছাড়া অদ্যাবধি সিলেকশন গ্রেড, টাইসস্কেল ও অন্য কোন সুবিধা পায়নি। অথচ সরকারের অন্যান্য সকল বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ সকল সুবিধা পেয়েছেন। স্মারকলিপিতে আরো বলা হয়, দশ বছর চাকুরির বয়স সীমা অতিক্রম করার পর একটি উচ্চতর গ্রেড পাওয়ার ব্যাপারে বর্তমান পে-স্কেলে থাকলেও তা প্রদান করা হয়নি। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারী মাসে সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম সাত দিনের মধ্যে নার্সদের পদোন্নতি ও সিলেকশন গ্রেড নির্দেশ প্রদান করলেও অদ্যাবধি সিলেকশন গ্রেড প্রদানের ব্যবস্থা করা হয়নি। এতে নার্সরা চরমভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হচ্ছেন। অথচ স্মারক মোতাবেক স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের আওতায় চাকুরিরত ফার্মাসিস্টগণের পাওনা সিলেকশন গ্রেড এবং সমাজ কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের স্মারক মোতাবেক পাওনা সিলেকশন গ্রেড ও উচ্চতর টাইমস্কেল প্রদান করা হয়েছে। অথচ সিনিয়র স্টাফ নার্সগণ সিলেকশন গ্রেড পাচ্ছেন। স্মারকলিপিতে নার্সদের সিলেকশন গ্রেড প্রদানের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রীর সু-দৃষ্টি কামনা করা হয়। সংবাদ সম্মেলন, মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান কর্মসূচীতে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মোছাঃ সিদ্দিকা বেগম, আরজুমান লাকী, মো. আশরাফ আলী, মোছাঃ রুবিয়া খাতুন, মোছাঃ সাহেবুন নাহার, বিলকিস বানু, ফরিদা ইয়াসমিন, প্রতিভা রাণী, রওশন আরা, সৈয়দ রেজুয়ারা বেগম, মাহফুজা বেগম, রেবেকা বেগম, রোজ মেরী হালদার, ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র স্টাফ নার্স মোছাঃ জোসনা আরা, মো. ইউসুফ আলীসহ সিলেকশন গ্রেড বঞ্চিত অন্যান্য নার্স অংশগ্রহণ করেন। উল্লেখ্য, দিনাজপুরসহ সারা দেশের প্রায় ৩৫ হাজার নার্সের মধ্যে প্রায় ৬ হাজার নার্স ২০১৫ সাল থেকে সিলেকশন গ্রেড থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। এতে করে এসব নার্স প্রতি মাসে মূল বেতন ৫ হাজার হতে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত কম পাচ্ছেন।