Home » » কিশোরগঞ্জে ভিজিডির বিভিন্ন অনিয়ম ধরায় কর্মকর্তাকে পিটানোর হুমকি

কিশোরগঞ্জে ভিজিডির বিভিন্ন অনিয়ম ধরায় কর্মকর্তাকে পিটানোর হুমকি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 24 April, 2019 | 11:20:00 PM

মিজানুর রহমান, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : ভিজিডির পুরোনো সুবিধাভোগির নাম চলতি চক্র বছরে (২৪মাস) অন্তভ’ক্তিসহ নানা অনিয়ম ধরায় কিশোরগঞ্জ উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তাকে পিটানোর হুমকি দিয়েছেন রনচন্ডি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোকলেছুর রহমান বিমান। এব্যাপারে ওই কর্মকর্তা উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে লিখিত অভিযোগ করে এর অনুলিপি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরন করেন। অভিযোগে জানা গেছে, শিশু ও মহিলা বিষয়ক মন্ত্রায়ের ১০/০৯/২০১৮ তারিখে জারিকৃত পরিপত্রের নিদের্শনা মোতাবেক উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মোছাম্মৎ সাবিকুন্নাহার গত ৯ এপ্রিল রনচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিডির কার্ড বিতরন ও খাদ্য মনিটরির করতে যান। কার্ড বিতরন করা কালীন সময়ে চিহিৃত ২০১৫-২০১৬ চক্র বছরের উপকার ভোগিদের নামে চেয়ারম্যানকে তিনি কার্ড ইসুকরতে দেখে ওইসব নাম তিনি পরিবর্তন করতে বলেন। কিন্তু চেয়ারম্যান ভিজিডির নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ব্যাক্তি স্বার্থ চরিতার্থ করেন। তখন ওই কর্মকর্তা দুজন বয়োসোর্দ্ধ মহিলার কার্ড নিজ আয়ত্বে রেখে খাদ্য বিতরন মনিটরিং করেন। এসময় তিনি দেখতে পান চেয়ারম্যান কার্ডে শুধু উপকার ভোগির টিপসই নিয়ে বিতরনকারীর স্বাক্ষর ছাড়াই তিন মাসের ৯০ কেজির চালের স্থলে দু মাসের ৬০ কেজি চাল বিতরন করে। উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকার্তা মোছাম্মৎ সাবিকুন্নাহার অভিযোগ করে বলেন এসময় চেয়ারম্যানকে ধুমপানরত অবস্থায় দেখে বিকাল ৫টা ৩০ মিনিটের দিকে ৩৫টি পূরনো চক্র বছরের উপকার ভোগিদের কার্ড নিয়ে চলে আমি চলে আসি। রাত সাড়ে ৮টার দিকে চেয়ারম্যান আমাকে ফোন করে বলে আপনি কার্ড নিয়ে কেন চলে গেছেন। আপনি কি কার্ডের মালিক ? আপনাকে সারারাত ইউনিয়ন পরিষদে বসে থাকতে হবে। ওই কার্ড গুলো আপনাকে ১০ এপ্রিলের মধ্যে বিতরন করতে হবে। নইলে উপকারভোগি মহিলাদের দিয়ে আপনাকে পিটিয়ে নিব। উপজেলা নিবার্হী কর্মকর্তা আবুল কালাম আজাদ অভিযোগ পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন তিন সদস্যর তদন্ত কমটি গঠন করা হয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়ার পর ব্যবস্থা নেয়া হবে। রনচন্ডী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মোকলেছুর রহমান বিমান বলেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার সাথে সামান্য ভুল বুঝাবুঝি হয়েছিল। এটির সমাধানও হয়েছে।