Home » , » নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এর চিলাহাটি পরিদর্শন

নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এর চিলাহাটি পরিদর্শন

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 11 April, 2019 | 7:00:00 PM

জুয়েল বসুনীয়া,চিলাহাটি ওয়েব : র্দীঘ ৫৩বছর পর পূর্নরায় চালু হতে যাচ্ছে সব উত্তরের চিলাহাটি হলদিবাড়ী রেল যোগাযোগ। তাই উল্লাষিত দুই সীমান্তের সাধারন জনতা। বৃহস্পতিবার বিকালে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আনিছ আহম্মেদ আনিছ বাংলাদেশ অংশের জিরো পয়েন্ট এলাকা পরিদর্শণ করেন। এসময় অতিরিক্ত সচিবের সাথে উপস্থিত ছিলেন উপ-পরিচালক স্থানীয় সরকার নীলফামারী আব্দুল মোতালেব সরকার, ডোমার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রাজ্জাক বসুনীয়া, নবাগত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহম্মেদ, উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে ফাতিমা, ভোগডাবুরী ইউপি চেয়ারম্যান একরামুল হকসহ স্থানীয় সুধীজন। বাংলাদেশের ডোমার উপজেলার চিলাহাটি ও ভারতের কুচবিহার জেলার হলদিবাড়ি দিয়ে রেলের ইন্টারচেঞ্জ লিংক চালুর নির্মান কাজ শেষ করেছে ভারত। ভারতের সঙ্গে দ্বিপাক্ষীয় উন্নয়ন সহযোগিতায় বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে বন্ধ হয়ে যাওয়া পুরানো সীমান্ত রেলওয়ে সংযোগের আওতায় এই পুর্নঃ স্থাপনের কাজ ইতিমধ্যে ভারত তাদের অংশে শেষ করেছে। ফলে চিলাহাটি-হলদীবাড়ি ইন্টারচেঞ্জ লিংক চালু হলে বন্ধু প্রতিম দুই দেশের মধ্যে উন্নয়নের দুয়ার খুলে যাবে,লাভবান হবে উভয় দেশ, বদলে যাবে চিলাহাটি হলদিবাড়ির আর্থ সামাজিক চেহারা। ভারতের অংশের কাজ শেষ হওয়ায় অতিদ্রুত বাংলাদেশের অংশের কাজ শুরু করা হবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে। ১৯৪৭ সালের ১৫ আগষ্ট ভারত ভাগের পরও তৎকালীন পূর্ব পাকিস্তানের সময় চিলাহাটি-হলদিবাড়ির মধ্যে এই ইন্টারচেঞ্জ চালু ছিল। সে সময় চিলাহাটি ও হলদিবাড়ি স্টেশনের উজ্জ্বল ইতিহাস স্মরণ করে এখনও গর্ববোধ করেন এলাকার বাসিন্দারা। ১৯৬৫ সাল পর্যন্ত হলদিবাড়ির সঙ্গে তদানীন্তর পাকিস্তানের রেল যোগাযোগ চালু ছিল। ওই বছরের সেপ্টেম্বর মাসে ভারত-পাকিস্তানের যুদ্ধের পর রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়।রেলযোগাযোগের ক্ষেত্রে হলদিবাড়ি ও চিলাহাটি রেলষ্টেশন দুটি পুরোদমে চালু রয়েছে। চিলাহাটি থেকে ঢাকা,খুলনা,রাজশাহী ও অপর দিকে হলদিবাড়ি হতে ভারতের বিভিন্ন রুটে নিয়মিত ট্রেন চলাচল করছে। শুধু মাত্র সীমান্ত এলাকা বাংলদেশের চিলাহাটি ও ভারতের হলদিবাড়ির মধ্যে ট্রেন চলাচল থমকে রয়েছে। যা চালুর পথে কাজ এগিয়ে চলছে।