Home » » ডিজিটাল ডিমলা গড়তে ইউএনও নাজমুন নাহারের বিভিন্ন উদ্যোগ

ডিজিটাল ডিমলা গড়তে ইউএনও নাজমুন নাহারের বিভিন্ন উদ্যোগ

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 30 March, 2019 | 11:00:00 PM

মাজহারুল ইসলাম লিটন,ডিমলা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : কর্মস্থলে যথা সময়ে উপস্থিত নিশ্চিত, পরীক্ষা চলাকালীন সময়ে নকল মুক্ত পরিবেশ রক্ষা ও সার্বিক নিরাপত্তা তদারকি করার লক্ষ্যে নীলফামারীর ডিমলা উপজেলা প্রশাসনের উদ্দেগে প্রতিটি পরীক্ষা কেন্দ্রের সকল কক্ষে ডিজিটাল হাজিরা ও সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে। এছাড়া উপজেলায় বাল্য বিয়ে, মাদক, নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন সমাজ বিরোধী কাজ বন্ধে দিনরাত পরিশ্রম করে বিশেষ অবদান রেখেছেন ইউএনও নাজমুন নাহার। উপজেলার ডিমলা সরকারী মহিলা কলেজ, ডিমলা ইসলামিয়া ডিগ্রি কলেজ, জনতা ডিগ্রি মহা বিদ্যালয়, ডিমলা টেকনিক্যাল এ্যান্ড বিএমআই কলেজ, ডিমলা ফাজিল মাদ্রাসায় (পরীক্ষা কেন্দ্রে) ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার ডিজিটাল হাজিরা ও সিসি ক্যামেরা বসানো কাজের উদ্বোধন করেন। উপজেলা প্রশাসন ও কলেজ কর্তপক্ষের সহযোগীতায় ৫টি কেন্দ্রের প্রতিটি হলেই এসব ডিজিটাল হাজিরা ও সিসি ক্যামেরা চালু থাকবে। প্রতিটি কেন্দ্রে অধ্যক্ষের রুমে সকল হলের সাথে সংযুক্ত থাকবে সিসি ক্যামেরা গুলো। এছাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার এই উপজেলায় ২০১৭ইং সালের ২০ সেপ্টেম্বর তারিখে যোগদান করার পর হতেই তিনি উপজেলা প্রশাসনকে গড়ে তুলেছেন দূর্ণীতি মুক্ত। উপজেলায় বাল্য বিয়ে, মাদক, নারী নির্যাতনসহ বিভিন্ন সমাজ বিরোধী কাজ বন্ধে দিনরাত পরিশ্রম করে বিশেষ অবদান রেখেছেন। তিনি যোগদানের পর হতে উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়ন ওয়ার্ড ও গ্রাম পর্যায়ে বাল্য বিবাহের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা করেছেন। তার হস্তক্ষেপে উপজেলায় শত শত বাল্য বিবাহ বন্ধ হয়ে গেছে। এবং বাল্য বিবাহের কারনে জেল জরিমানা ও অন্যান্য শাস্তির প্রদানের কারায় বাল্য বিবাহ তুলনা মুলক হারে একবারেই শুন্যের কোঠায় নেমে এসেছে। পুলিশ প্রশাসনের সহযোগিতায় মাদক সেবন কারী, মাদক বিক্রেতা, জুয়ারুদের বিভিন্ন মেয়াদে জেল জরিমানা ও ইভটিজারদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান গ্রহন করে বিশেষ অবদান রাখায় উপজেলার সর্বস্তরের মানুষের মাঝে আস্তার প্রতিক হয়ে দাড়িয়েছেন তিনি। ডিমলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাজমুন নাহার বলেন, আমি নিজে দূর্ণীতি করিনা উপজেলা প্রশাসনে সংশ্লিষ্ট কাউকে দূর্ণীতি করতে দেইনা। আমি মামনীয় সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আফতাব উদ্দিন সরকারের সার্বিক সহযোগিতায় ডিমলা উপজেলাকে সারাদেশের ন্যায় ডিজিটাল উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। তাই দিনরাত পরিশ্রম করে বিভিন্ন অনিয়মের বিরুদ্ধে কাজ করে যাচ্ছি। ডিজিটাল হাজিরা ও সিসি ক্যামেরা বসানোর বিষয়ে তিনি বলেন, কর্মস্থলে যথা সময় উপস্থিত, পরীক্ষা কেন্দ্রের প্রতিটি কক্ষের সার্বিক নিরাপত্তা, নকল প্রতিরোধসহ সকল বিষয়ে মনিটরিং করার লক্ষ্যে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হলো। পর্যায়ক্রমে এ উপজেলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও সরকারী দপ্তরকে ডিজিটাল হাজিরা ও সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে।