Home » » সোস্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত চিঠির গুরুত্ব পেল

সোস্যাল মিডিয়ায় প্রচারিত চিঠির গুরুত্ব পেল

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 29 March, 2019 | 10:28:00 AM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : অবিশ্বাস্য হলেও সত্য যে চিঠিতেই বন্ধ হলো একটি ইটভাটা। আর এ চিঠিটি লিখেছিলো একজন শিশু। সন্তানের হাতের লেখা চিঠিটি তার পিতা ফেসবুক আইডিতে আপলোড করেন। এরপরেই দৃষ্টি গোচর হয়ে সেই ইটভাটাটি বন্ধ করে দেয় প্রশাসন। ঘটনাটি দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলার মোমিনপুর ইইপির হয়বতপুর গ্রামে। জানা গেছে, পার্বতীপুর উপজেলার হয়বৎপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রী মাইশা মনাওয়ারা মিশু দিনাজপুর জেলা প্রশাসক বরাবরে একটি চিঠি লিখেন। মিশুর পিতা সন্তানের আকুতি দেখে বিবেকের তাড়নায় তার নিজস্ব ফেসবুক আইডিতে আপলোড করেন। বিষয়টি সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে প্রথমত নজরে আসে নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরীর (এমপি)। এরপর চিঠিতে দেয়া তার পিতার ফোন নাম্বারে ফোন করে বিষয়টির সত্যতা যাচাই করেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য জেলা প্রশাসককে নির্দেশ প্রদান করেন। পরে জেলা প্রশাসক পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে নির্দেশ প্রদান করলে বুধবার রাতে যমুনা ব্রিক্স নামের এ ইটভাটাটি বন্ধ করে দেন। এদিকে, ওই এলাকার আনছার আলী বলেন, ইটভাটার ধোঁয়ায় স্কুলের কোমলমতি শিক্ষার্থীদের শারীরিক ক্ষতিসহ চর্মরোগ দেখা দিয়েছে। তাছাড়া স্কুলে গিয়ে শ্বাস প্রশাসে তাদের কষ্ট হতো। ইটভাটার কারনে শাক সবজ্বিসহ চাষাবাদে ক্ষতি হচ্ছে বলে তিনি উল্লেখ করেন। উল্লেখ্য, পার্বতীপুর উপজেলার মমিনপুর ইউনিয়নের হয়বৎপুর এলাকায় অবস্থিত হয়বৎপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়টি প্রায় একশত গজ দূরে যমুনা ব্রিক্স নামের ইটভটা। অপরদিকে, অভিভাবকগণ ভাটাটি বন্ধ হওয়ায় প্রশাসনের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন।