Home » » মায়ের ঔষধ নিতে এসে ধর্ষণের শিকার ॥ গ্রেফতার-২

মায়ের ঔষধ নিতে এসে ধর্ষণের শিকার ॥ গ্রেফতার-২

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 30 October, 2018 | 1:44:00 PM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : পার্বতীপুরের পার্শবর্তী বদরগঞ্জ উপজেলা রাধানগর এলাকায় চিকিৎসা নিতে এসে ধর্ষণের শিকার হলেন এক নারী। দুই ধর্ষনকারীকে গ্রেফতার করেছে ও সিল করেছে হোটেল পুলিশ। মামলা সূত্রে জানা যায়, ধর্ষিতা ওই নারীর বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায়। ওই নারীর মা দীর্ঘদিন ধরে ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে ভুগছেন। লোকমুখে শুনে ওই নারী তার ছোট ভাইকে সঙ্গে নিয়ে গত শনিবার পার্বতীপুর উপজেলার পার্শ্ববর্তী রংপুর জেলার বদরগঞ্জ উপজেলার রাধানগরে একজন হোমিও ডাক্তারের নিকট মায়ের চিকিৎসা নিতে আসেন। ঔষধ নিয়ে তিনি গত শনিবার (২৭অক্টোবর) রাত ৯টার দিকে পার্বতীপুর রেল স্টেশনে আসেন। কুড়িগ্রাম যাওয়ার ট্রেন রাত ৩টায় (রমনা ট্রেন)হওয়ায় ওই নারী তার ভাইকে নিয়ে স্টেশন সংলগ্ন পার্বতীপুর পৌর শহরের নতুন বাজারস্থ ডিলাক্স আবাসিক হোটেলে ওঠে। রাত ১১ টার দিকে হোটেল ম্যানেজার নুর ইসলাম ও মামুনুর রশিদ ওই নারীর ভাইকে অন্য একটি রুমে নিয়ে গিয়ে আটকে রাখে। পরে তারা ওই নারীকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। পরদিন ২৮ অক্টোবর ওই নারীর ভাই তার বোনকে উদ্ধার করে পার্বতীপুর মডেল থানায় হাজির হয়ে দুই জনের বিরুদ্ধে মামলা করেন। পুলিশ এ ঘটনায় ডিলাক্স হোটেল ম্যানেজার নুর ইসলাম (৩৫) ও মামুনুর রশদি (২৫) কে পুলিশ গ্রেফতার করে হোটেলটি সিল করে দিয়েছে। নুর ইসলামের পিতার নাম ইয়াকুব আলী ও মামুনুর রশিদের পিতার নাম সালাউদ্দিন। উভয়ের বাড়ী চিরিরবন্দর উপজেলায়। দিনাজপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ফুলবাড়ী সার্কেল)রফিকুল ইসলাম ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেন। পার্বতীপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোখলেছুর রহমান জানান, এ ব্যাপারে মামলা দায়ের হয়েছে।