Home » » পার্বতীপুরে ক্রিকেট খেলা নিয়ে হামলার ঘটনায় মামলা-গ্রেফতার নেই

পার্বতীপুরে ক্রিকেট খেলা নিয়ে হামলার ঘটনায় মামলা-গ্রেফতার নেই

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 29 September, 2018 | 1:22:00 AM

বদরুদ্দোজা বুলু, পার্বতীপুর প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : পার্বতীপুরে ক্রিকেট খেলায় দ্বন্দের জের ধরে প্রতিপক্ষের ওপর হামলায় ৪ জন আহত হওয়ার ঘটনায় পার্বতীপুর থানায় মামলা হয়েছে। মামলা হওয়ার ৩ দিন পার হলেও কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি থানা পুলিশ।জানাযায়, উপজেলার নারায়নপুর কাজীপাড়া গ্রামে গত ঈদের পর দিন ২৩ আগস্ট ক্রিকেট খেলা অনুষ্ঠিত হয়। খেলায় দ’ুদলের মধ্যে তর্ক বিতর্কের সৃষ্টি হয়। খেলা শেষে সুয়েজ, লায়ন, ইমন ও এলিন দাওয়াত খাওয়ার উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেলযোগে বাড়ী থেকে পার্বতীপুরের উদ্দেশ্যে বের হয়। তারা কাজীপাড়ার কাঁচা রাস্তায় পৌছালে পূর্ব পরিকল্পনা মতে শরিফুল ইসলাম, ফিরোজ ইসলাম, রায়হান ইসলাম, হৃদয় ইসলাম, ফারুক ইসলাম, রফিকুল ইসলাম ও মানিক হোসেনসহ ২০-২৫ জনের একটি দল পথ রোধ করে তাদের হামলা চালায় এবং এলোপাতাড়ি মারধর শুরু করে। তাদের ধারালো ছোরার কোপে কুদ্দুস আলীর মাথা ফেটে রক্তাক্ত হয়ে যায়। কেড়ে নেওয়া হয় মোবাইল ফোন ও টাকা পয়সা। কুদ্দুসকে আশংকাজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ ঘটনায় গত ২৬ সেপ্টেম্বর ১৬ জনের নামে পার্বতীপুর থানায় মামলা হয়েছে। মামলার বাদী সাঈদ আল মামুন সনেট জানান, ক্রিকেট খেলার কথাকাটাকাটির জের ধরে রাস্তায় তাদের উপর হামলা চালানো হয়েছে। রায়হান ইসলামের ধারালো অস্ত্রের কোপে কুদ্দুস আলীর মাথা কেটে যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। তারা আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধিন থাকার সুযোগে হামলাকারীরা নিজেদের বাঁচানোর জন্য থানায় না গিয়ে কোর্টে তাদের নামেই আগাম একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় বলা হয়েছে আমরাই নাকি তাদের উপর হামলা চালিয়েছি। হামলাকারী ফিরোজ একজন মাদক ব্যবসায়ী হওয়ায় তারা পরিকল্পিতভাবে গ্রামের পুলিশ বাহীনির কন্সটেবল সুয়েজ, বিজিবি’র সদস্য জামাল, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা ইমরান ও ভূমি অফিসের অফিস সহকারী ইমরুলসহ ১২জনকে আসামী করেছে। তারা সবাই ঈদের ছুটিতে বাড়ীতে এসেছিলেন। সুস্থ্য হয়ে বাসায় ফিরে তারা অভিযুক্ত ১৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেছেন। পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, থানায় মামলা হয়েছে অসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।