Home » » আমাতে তোমাতে (ছোটগল্প)

আমাতে তোমাতে (ছোটগল্প)

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 12 August, 2018 | 12:42:00 AM














































আমাতে তোমাতে (ছোটগল্প)
॥ নীলিমা শামীম ॥ 
জীবন থেকে ৪০টা বসন্ত পেরিয়ে এখন ৪১এ পদার্পণ করলাম। আজকের দিনটা নানা দিক থেকেই আমার কাছে স্মরণীয়।বিকেল থেকে আমি কথা গুলো ভাবছি।সবাই উৎসুক আমাকে নিয়ে নাকি। আজ আমার জন্মদিন ভুলেই গেছি দ্বায়িত্ব্যে কষাঘাতে নিশ্চিন্ন আমি নিজেই নিজের বেড়াজালে।
সেই ছোট্ট মেয়েটি কখন যে এতো বড়টি হয়ে মেয়ে,আপা ,বোন,স্ত্রী,বউমা,ভাবি,চাচি, মামি,ফুফু, শ্বাশুড়ি, দাদি হয়ে গেছি নিজেই জানিনা। আজ বাসার দরজা বন্ধ করে আছি দেখেই সকলে ভয় পেয়ে গেছে। ওরা জানতো না আজ কত বড় দিন আমার আজ আমার এই বাড়িতে প্রবেশের।
প্রথম দিন, মনে আশা আছে শেষ নিশ্বাস টা যেনো এই বাড়ীতেই ফেলতে পারি।
আজকাল রাত বাড়লেই চোখের কোনা ভিজে আসে জল, কাউকে বুঝতে না দিয়েই মুছে ফেলি।
মনে হয় সময় ফুরিয়ে আসছে ধীরে ধীরে।
ছেলের বাচ্ছা (দাদুমনি) টা হাটতে বসতে এই দাদা এই দাদা বলে বুলি ছাড়ে। সকাল বিকাল মেয়েটা ফোন করে জানতে চায় কেমন আছি?
বুড় আব্বু ফোনে বলে ওমা কেমন আছো.?বাড়ীর সবাই ভালোতো। নিজে যেমন, কেমন অগোছালো হয়ে গেছি ভুলে যাই কখন কাকে কি করতে বলব, মি কাজ দিবো।
হাপিয়ে উটেছি কর্তব্য আর দায়িত্ব সামলাতে সামলাতে।
রাতে ঘুমন্ত মেয়ের মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে বলি মা আর কটা দিন যদি থাকতো যদি পাশে।
আজ আবারও ক্ষমা চাইতে মন চায় ছেলেটার কাছে বিয়ে করিয়ে ভুল করিনিতো। ইদানিং এই ক্ষমাটা আমি প্রায়ই চাই মনের কাছে। চোখ দুটো মোর ছলছল করে উঠে। এমনি এক শ্রাবনে ঢল ঢল বরষা শ্নাত আলোঝলমলে রাত্রিতে অজশ্র গোলাপের মালায় জড়িয়ে ছিনিয়ে এনেছিলো আমায় বাবা মার অপরিসীম ভালোবাসার ঘর শুন্য করে এই বাড়ীটির শোভা বাড়ানোর প্রতিজ্ঞায়।
আজো সে প্রতিজ্ঞা রক্ষা করেই চলছি।
শ্রাবন এলেই এই কথা গুলো আমার মানষ পটে বার বার নাড়া দেয় কেনো জানিনা।
আজ অবদ্বি হাসি খুশি আর আনন্দোল্লাসেই রেখেছে আমাকে সামান্য কষ্টেও সে কষ্ট পায়।
বাকি জীবন টাও যেনো আল্লাহর ক রুনায় ও সকলের দোয়ায় এমনি কাটে।