Home » » হাসপাতালে কাতরাচ্ছে লিপি

হাসপাতালে কাতরাচ্ছে লিপি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম News Editor : 30 June, 2018 | 11:26:00 PM

আব্দুল্লাহ আল মামুন,ভ্রাম্যান প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে লিপি আক্তার(২৫) নামে এক গৃহবধু। নির্যাতনের শিকার হয়ে তার পেটে চারমাস বয়সী সন্তানের গর্ভপাত ঘটেছে। বর্তমানে হাসপাতালের বেডে শুয়ে তার সন্তানকে হারিয়ে বার বার মুর্ছা যাচ্ছেন তিনি। জেলার সদর উপজেলার লক্ষীছাপ ইউনিয়নের চৌধুরী পাড়ায় ২৮ জুন বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটে। জানাযায়,নীলফামারী সদর থানায় লক্ষীছাপ শালমারা গ্রামের মৃতঃ ছুরত আলীর ছেলে বাবুল হোসেন একই এলাকার মোশারফ হোসেন,আব্দুল হাকীম,গোলাম মোস্তফা,আনোয়ারুল,আবুল হোসেন,মোতালেবসহ ১৩ জনের নামে অভিযোগ আননায়ন করেন। এদের সাথে মসজিদ ও জায়গা জমি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বিরোধ চলে আসছিল।গত ২৬ জুন বিকালে বাবুল হোসেনের ছোটভাই আমিনুর রহমান বাড়ী থেকে বাজার যাওয়ার পথে উপরোক্তব্যাক্তিগন তার পথরোধ করে তাকে মারধর করতে থাকে। এ সময় তার অন্তসত্তা স্ত্রী লিপি আক্তার তার স্বামীকে বাচাতে এগিয়ে আসলে মোশারফগং তাকেও মারধর করে। তার শরীরের বিভিন্ন অংশে কামড় দিয়ে শ্লীতহান ঘটায় ও তার পেটে লাথি মাড়লে লিপি আক্তার তীব্র যন্ত্রনায় মাটিতে লুটিয়ে পরে । এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দিলেও তার অবস্থার অবনতি ঘটে এবং তার গর্ভপাত ঘটে। বর্তমানে সে ডোমার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অনাগত সন্তানকে হারিয়ে লিপি আক্তার বাকরুদ্ধ হয়ে পরেছেন। লিপির স্বামী আমিনুর জানান,দীর্ঘদিন থেকে তাদের সাথে আমাদের জমিজমার বিরোধ চলে আসছিল। আমাকে তারা রাস্তায় আটকিয়ে মারধরের ঘটনায় আমি নীলফামারী থানায় অভিযোগ দিলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে আমার উপর হামলা চালায়। এ সময় আমার স্ত্রীকে তারা মারধর করে তার পেটে লাথি দিলে পেটের চারমাস বয়সী সন্তানের গর্ভপাত ঘঠে। ডোমার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রায়হান বারী গর্ভপাতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,বর্তমানে তাকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
শেয়ার করুন :