Home » , » ডিমলায় পৃথক ঘটনায় গৃহবধু ও শ্রমিক হত্যা, আটক ১

ডিমলায় পৃথক ঘটনায় গৃহবধু ও শ্রমিক হত্যা, আটক ১

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 19 June, 2018 | 2:56:00 PM

মাজহারুল ইসলাম লিটন,ডিমলা প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর ডিমলায় যৌতুকের কারনে গৃহবধূকে হত্যা করে পালিয়ে যাওয়ার সময় স্বামীকে আটক করেছে পুলিশ। অপর দিকে শ্রমিকের টাকা ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে আহত এক শ্রমিকের চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু হয়েছে । জানাগেছে, উপজেলার পূর্বছাতনাই ইউনিয়নের (চেয়ারম্যান পাড়া) গ্রামের মৃত আব্দুল গণির পুত্র জুল হোসেন (৩৭) এর সাথে বালাপাড়া ইউনিয়নের দক্ষিন সুন্দর খাতা গ্রামের আহেদ আলীর কন্যা রাশেদা(২৮) এর পারিবারিকভাবে বিয়ে হয় গত বার বছর আগে। বিয়ের পরে তাদের কোলজুড়ে রাকিব(১১) ও জুই আক্তার(৫) নামের দুটি সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর হতে রাশেদার স্বামী জুল হোসেন(৩৭) ও ভাসুর আব্দুল জলিল(৪৫),জাবেদ আলী(৪০),জামাল হোসেন(৫৫),জয়নাল আবেদিন(৫০) যৌতুকের জন্য বিভিন্ন অজুহাতে রাশেদাকে নির্যাতন করে আসতো। সোমবার দুপুরে রাশেদার সাথে তার স্বামী ও ভাসুরদের সাথে যৌতুকের বিষয় নিয়ে ঝগড়া বাধে। ঝগড়ার জের ধরে যৌতুকের জন্য রাশেদাকে স্বামী ও ভাসুর মিলে বে-ধড়ক মারপিট করে হত্যা করে মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে রাশেদা আতœহত্যা করেছে বলে চালিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। রাশেদাকে ডিমলা হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। এ সময় রাশেদার স্বামী জুল হোসেন হাসপাতালে স্ত্রীর লাশ রেখে পালিয়ে যাওয়ার সময় উপস্থিত লোকজন তাকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। ডিমলা থানা পুলিশ হাসপাতাল হতে রাশেদার লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য থানায় নিয়ে আসে। এ সময় রাশেদার স্বামী জুল হোসেনকে পুলিশ গ্রেফতার করে। ডিমলা থানার সাবইন্সপেক্টর আব্দুর রহিম চিলাহাটি ওয়েব ডটকমকে বলেন, মঙ্গলবার রাশেদার লাশ ময়না তদন্তের জন্য নীলফামারী মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ব্যাপারে রাশেদার ভাই আসাদুল বাদী হয়ে পাঁচজনকে আসামী করে ডিমলা থানায় হত্যা মামলা নং ১৬ দায়ের করেন। অপর দিকে উপজেলার ছানতাই বালাপাড়া গ্রামে শ্রমিকের টাকা ভাগাভাগিকে কেন্দ্র করে কামরুল ইসলাম(৩৫) পিতা ছলিমুদ্দিন সাথে একই গ্রামের আব্দুর রহিম(২৫) গংয়ের গত (১৫ জুন) বিকাল তিনটায় সংঘর্ষ হলে কামরুল গুরুত্বর আহত হয়। আহত কামরুলকে প্রথমে ডিমলা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে তার অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানতরিত করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত(১৭জুন) রাতে কামরুলের মৃত্যু হয়। এ ব্যাপারে কামরুলের স্ত্রী বাদি হয়ে পাঁচজনকে আসামী করে ডিমলা থানায় হত্যা মামলা নং-১৫ দায়ের করেন।