Home » » নীলফামারীতে বজ্রাপাতে দুই ব্যক্তি নিহতসহ পাঁচটি গাভীর মৃত্যু

নীলফামারীতে বজ্রাপাতে দুই ব্যক্তি নিহতসহ পাঁচটি গাভীর মৃত্যু

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম News Editor : 10 May, 2018 | 12:23:00 AM

এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীতে বুধবার (৯ মে) সকালে বজ্রপাতে পৃথকভাবে দুই ব্যক্তি নিহত ও পাঁচটি গাভির মৃত্যু হয়েছে। জেলার জলঢাকা ও ডিমলা উপজেলায় ওই ঘটনাটি ঘটে। নিহতরা হলেন, জলঢাকা উপজেলার বালাগ্রাম ইউনিয়নের শালনগ্রামের মৃত ইসলাম হোসেনের স্ত্রী আসমা বেগম (৪৫) ও একই উপজেলার কাঁঠালী ইউনিয়নের উত্তর দেশীবাই গ্রামের মৃত সদর উদ্দিনের ছেলে কৃষক নূর আমিন (৪৩)। ওই গ্রামের বাসিন্দা মীর মোকছেদুল হোসেন (৪৫) বলেন, বুধবার সকাল আটটার দিকে ঝড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টির সময় বজ্রপাতে বাড়ির বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকা আসমা বেগমের মৃত্যু হয়। ওই ইনিয়নের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন বলেন, উঠানে বোরো ধান উঠানোর সময় বজ্রপাতে নিহত হন উত্তর দেশীবাই গ্রামের কৃষক নূর আমিন। এদিকে, ডিমলা উপজেলার পুর্বছাতনাই ইউনিয়নের ঝাড়শিংহেরশ্বর গ্রামে বজ্রপাতে পাঁচটি গাভীর মৃত্যু হয়। ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান জানান, সকালে বৃষ্টির সময় গ্রামের সোনাউল্লার তিনটি এবং বাদশা মিয়ার দুইটি গাভী রাস্তার পাশে একটি চালার নীচে বাধা ছিল। এসময় বজ্রপাতে ওই পাঁচটি গাভীর মৃত্যু হয়। জলঢাকা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোস্তাফিজার রহমান বলেন, সকালের দিকে পৃথকভাবে বজ্রপাতে দুইজন ও পাঁচটি গাভী মারা যায়। নীলফামারীতে বজ্রাপাতে দুই ব্যক্তি নিহতসহ পাঁচটি গাভীর মৃত্যু এম এ মোমেন, নীলফামারী ব্যুরো,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীতে বুধবার (৯ মে) সকালে বজ্রপাতে পৃথকভাবে দুই ব্যক্তি নিহত ও পাঁচটি গাভির মৃত্যু হয়েছে। জেলার জলঢাকা ও ডিমলা উপজেলায় ওই ঘটনাটি ঘটে। নিহতরা হলেন, জলঢাকা উপজেলার বালাগ্রাম ইউনিয়নের শালনগ্রামের মৃত ইসলাম হোসেনের স্ত্রী আসমা বেগম (৪৫) ও একই উপজেলার কাঁঠালী ইউনিয়নের উত্তর দেশীবাই গ্রামের মৃত সদর উদ্দিনের ছেলে কৃষক নূর আমিন (৪৩)। ওই গ্রামের বাসিন্দা মীর মোকছেদুল হোসেন (৪৫) বলেন, বুধবার সকাল আটটার দিকে ঝড়ো হাওয়া ও শিলাবৃষ্টির সময় বজ্রপাতে বাড়ির বারান্দায় দাঁড়িয়ে থাকা আসমা বেগমের মৃত্যু হয়। ওই ইনিয়নের চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন বলেন, উঠানে বোরো ধান উঠানোর সময় বজ্রপাতে নিহত হন উত্তর দেশীবাই গ্রামের কৃষক নূর আমিন। এদিকে, ডিমলা উপজেলার পুর্বছাতনাই ইউনিয়নের ঝাড়শিংহেরশ্বর গ্রামে বজ্রপাতে পাঁচটি গাভীর মৃত্যু হয়। ওই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ খান জানান, সকালে বৃষ্টির সময় গ্রামের সোনাউল্লার তিনটি এবং বাদশা মিয়ার দুইটি গাভী রাস্তার পাশে একটি চালার নীচে বাধা ছিল। এসময় বজ্রপাতে ওই পাঁচটি গাভীর মৃত্যু হয়। জলঢাকা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোস্তাফিজার রহমান বলেন, সকালের দিকে পৃথকভাবে বজ্রপাতে দুইজন ও পাঁচটি গাভী মারা যায়।