Home » » চিরিরবন্দরে প্রধান সড়কগুলোতেই ইটভাটার স্তুপকৃত মাটি

চিরিরবন্দরে প্রধান সড়কগুলোতেই ইটভাটার স্তুপকৃত মাটি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 28 May, 2018 | 10:28:00 PM

চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুর থেকে পার্বতীপুর, চিরিরবন্দর থেকে রাণীরবন্দর, চিরিরবন্দর থেকে আমতলি, বেলতলী হতে উচিতপুর সড়কের ধারে অন্তত ৩০টি ইটভাটার স্তুপকৃত মাটি রাখার ফলে প্রতিনিয়ত দূর্ঘটনা ঘটছে, বাড়ছে দূর্ঘটনাজনিত আতংক। ইটভাটার মাটি স্তুপ করে রাখার কারণে রাস্তা হয়েছে সংকুচিত। ফলে চরম হুমকির মধ্যে চলাচল করছে যাত্রীবাহি বাস, ভ্যান, অটোরিক্সা, সাইকেল, মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন বিদ্যালয়ের পরিবহন গাড়িগুলি। রাস্তা থেকে ৫ শত মিটার দূরে ইটভাটা স্থাপনের নীতিমালা থাকলেও এ উপজেলায় কেউ মানেনি এ আইন। গত বৃহস্পতিবার সকালে ক্ষেতের মরিচ নিয়ে চিরিরবন্দর থেকে পার্বতীপুরে যাচ্ছিলেন কৃষক আমিনুল ইসলাম। চিরিরবন্দরের সীমানা পেরিয়ে পার্বতীপুর সীমানায় ঢুকতেই ইটভাটার স্তুপের কারণে অপরদিক থেকে আসা একটি ট্রাককে প্রথমে দেখতে না পেয়ে কাছাকাছি পৌঁছামাত্র তা দেখতে পেয়ে দূর্ঘটনা এড়াতে বামের জমিতে নামিয়ে দেন সাইকেল। আহত হয়ে বাড়ি ফিরে আসেন। চিরিরবন্দরের আখিরা ডাড়ার পার্শ্বে একটি ভাটার স্তুপকৃত রাখা মাটির কারণে সাধারণ মানুষসহ যান চলাচল হুমকিতে পড়ছে। স্তুপকৃত মাটির ধূলার উপর দিয়ে কোন বাস বা ট্রাক যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা ছোট যানবাহনের চালকরা ধূলার কারণে কিছুই দেখতে পারছেন না। বাস চালক মোকছেদ আলী বলেন, স্তুপকৃত মাটির কারণে অনেকসময় ছোট বাহনগওলোকে সাইড দেয়া কষ্টকর হয়ে পড়ে। অটো চালক বাবলু জানান, স্তুপকৃত মাটির উপর ট্রাক্টর দিয়ে মাটি উঠানো ও খালি গাড়ি নামার সময় ট্রাক্টর চালকরা কোন সিগনাল না দিয়ে হু হু করে চলে। অনতিবিলম্বে স্তুপকৃত মাটি সরানো উচিত।এ ব্যাপারে ইটভাটা মালিক ময়েন উদ্দিন শাহ বলেন, রাস্তার ধারের সকল ইটভাটা মালিকদের স্তুপকৃত মাটি সরানোর জন্য সভাপতি মোজাম্মেল হক বকুসের সঙ্গে কথা বলা হবে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ গোলাম রব্বানী বলেন, অবিলম্বে রাস্তার পার্শ্বে মাটি স্তুপ করে রাখা ভাটা মালিকদের মাটি সরানো নির্দেশ দেয়া হবে। সংক্ষিপ্ত নিদ্রিষ্ট সময়ের মধ্যে মাটি না সরালে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।