Home » » খালেদার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসুচি পালন করেনি রংপুর বিএনপি

খালেদার মুক্তির দাবিতে কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসুচি পালন করেনি রংপুর বিএনপি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম Chilahati Web : Wednesday, April 25, 2018 | 7:29:00 PM

চিলাহাটি ওয়েব ডেস্ক : বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার কারামুক্তি ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সাজা বাতিলের দাবিতে কেন্দ্রীয় ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করেনি রংপুর মহানগর ও জেলা বিএনপি।
এনিয়ে তৃণমুল নেতাকর্মীদের মাঝে ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। তারা অবিলম্বে এই রংপুর মহানগর ও জেলা কমিটি বাতিল করার দাবি জানান। দেখা গেছে, বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় ঘোষিত মানববন্ধন কর্মসুচি সারাদেশে পালিত হলেও রংপুর মহানগরীতে দেখা গেছে ভিন্নচিত্র।
বৃহস্পতিবার সকালে দলীয় সুত্রে জানাগেছে, তারা রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন কর্মসুচি পালন করবে। সেখানে সকাল থেকে সংবাদকর্মীরা অপেক্ষা করলেও বেলা বাড়োটা পর্যন্ত রংপুর মহানগর ও জেলা বিএনপির কোন নেতাকর্মীকে দেখা যায়নি। তার পরেই সংবাদকর্মীরা আবারো গ্র্যান্ড হোটেল মোড়স্থ দলীয় কার্যালয়ে গেলে বিএনপির মহিলাদলের কয়েকজন নেত্রী ও পুলিশ ছাড়া কাউকে পাওয়া যায়নি। এদিকে কেন্দ্রীয় ঘোষিত কর্মসুচি রংপুর মহানগরীতে পালন না হওয়ায় বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের মাঠ পর্যায়ের নেতাকর্মীরা হতাশা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। তারা বর্তমান রংপুর মহানগর ও জেলা বিএনপির কমিটির নেতৃত্ব নিয়ে প্রশ্ন তুলে জানিয়েছেন, এক সময় রংপুরের বিএনপি অনেক শক্তিশালী ছিলো। রাজপথে মিটিং ও মিছিলে ছিল সরব উপস্থিতি। ছাত্রদল ও যুবদল পাল্লাদিয়ে দলীয় কর্মসুচি পালন করতো। কিন্তুু বর্তমানে অযোগ্য ও সুবিধাবাদি নেতাদের নিয়ে কমিটি দেয়ায় বিএনপি এমন অবস্থা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওয়ার্ড ও উপজেলা পর্যায়ের কয়েকজন নেতাকর্মী জানান, বিগত হাসিনা হঠাও আন্দোলনে যারা প্রথম সারিতে ছিলো । যারা দলীয় কর্মসুচি পালন করতে গিয়ে হামলা -মামলার শিকার হয়েছেন। তাদের বাদ নিয়ে সুবিধাবাদি ও জাসদ-জাতীয় পার্টি থেকে আসা নেতাদের নিয়ে কমিটি দেয়ায় দলের এই অবস্থা।তারা আরো জানান, দলের প্রধান যেখানে কারাগারে বন্দি সেখানে রংপুর বিএনপির নেতারা আওয়ামীলীগের সাথে আতাত করে চলে। তারা গা বাচার রাজনীতি করেন। বিএনপি সরকারে থাকায় অথচ তারাই এক সময় বিএনপির সুবিধা ভোগ করেছে। তাদের দিয়ে কমিটি এটা বেমানান।বেশ কয়েকজন বর্তমান কমিটির নেতা জানান, মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজুর একঘিয়েমিতে বিএনপির এই অবস্থা। তার নেতৃত্ব দেয়ার কোন যোগ্যতাই নেই। আসলে তিনিতো জাসদ ছাত্রলীগ করতেন। সে কিরে জাতীয়তাবাদি হয়।অন্যদিকে, রংপুর মহানগর বিএনপির সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোজাফফর হোসেন জানান, রংপুরে বিএনপির নেতাদের নামে মামলা থাকায় অনেকেই মাঠে নেই। পুলিশ তাদের হয়রানি করছে। কার নামে মামলা আছে জানতে চাইলে তিনি আর উত্তর দেন নি।
শেয়ার করুন :