Home » » কিশোরগঞ্জে ৫লাখ টাকা যৌতুকের জন্য সংসার হচ্ছে না গৃহবধুর

কিশোরগঞ্জে ৫লাখ টাকা যৌতুকের জন্য সংসার হচ্ছে না গৃহবধুর

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম News Editor : Sunday, January 28, 2018 | 11:45:00 PM

মোঃ মিজানুর রহমান কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : নীলফামারীর কিশোরগঞ্জ উপজেলার নিতাই ইউনিয়নের আদিয়ার পাড়্য়া ৫ লাখ টাকা যৌতুকরে জন্য ঘর ভাঙ্গার উপক্রম হয়েছে এক গৃহবধুর। ওই গৃহধু যৌতুকের টাকা দিতে না পাড়ায় বাবার বাড়ীতে একবছর ধরে অবস্থান করছে। 
অভিযোগে জানা গেছে, আদিয়ার পাড়া গ্রামের তছির উদ্দিনের ছেলে নীলফামারী পানি উন্নয়ন বোর্ডের সব-এ্যাসিটেন্ট প্রকৌলী আব্দুুস শহীদের সাথে প্রেম করে বিয়ে হয় ২০১৭ সালে ২১ ফেব্রুয়ারী, জয়পুর হাট জেলার সদর ইউনিয়নের তুপাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে খাদিজা বেগমের সাথে। বিয়ের পর খাদিজা বেগম স্বামীর বাড়ীতে এসে একমাস ঘর সংসার করেন। এর পর বাবার বাড়ীতে গেলে শহীদ স্ত্রীকে তার বাবার কাছ থেকে যৌতুক হিসেবে ৫ লাখ টাকা নিয়ে আসতে বলে। কিন্তু খাদিজার বাবা গরীব তার পক্ষে এত টাকা যৌতুক দেয়া সম্ভব নয় এজন্য সে স্বামীর বাড়ীতে আসতে পারছে না। খাজদিা বেগম বলেন স্বামীর বাড়ীতে এসে একমাস সংসার করার পর স্বামীর সংসার ও পরিবারের লোকজনের উপর একটা মায়া জন্মেছে। গত ২১ জানুয়ারী বাবার বাড়ীতে থেকে শ^শুর-শাশুরী ও স্বামীকে দেখতে আসছিলাম।
 কিন্তু তারা আমাকে বেধাড়ক মারপিট করে রাত ১০ টার দিকে বাড়ী থেকে বের করে দেয়। রাতে ওই গ্রামের সাবেক বিজিবি সদস্য ছামসুল হকের বাড়ীতে গিয়ে আশ্রয় নেই। পরের দিন তিনি আমার অবস্থা বেগতিক দেখে আমাকে কিশোরগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। ওই হাসপালে ৩ দিন চিকিৎসা নেয়ার পর কিছুটা সুস্থ্য হলে জয়পুর হাট সদর হাসপাতালে গিয়ে ভর্তি হই। 
শ^শুর বাড়ীতে আসার পর শ^শুর-শাশুরী, স্বামী ও দেবর আমাকে বেধাড়ক মারপিট বাড়ী থেকে বের করে দেয়। তারা বলে ৫ লাখ টাকা নিয়ে আসতে পারলে তেমার এই বাড়ীতে সংসার হবে। অন্যথায় নয়। এ ব্যাপারে আব্দুস সহিদের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন ্ওই খাবাপ মহিলার কথা বাদ দিয়ে আমার সাথে নীলফামারীতে এসে দেখা করেন।
শেয়ার করুন :