Home » » সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী কলেজ সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী কলেজ সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 25 December, 2017 | 11:43:00 PM

চিলাহাটি ওয়েব : প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান এমপি বলেছেন, সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী কলেজ শিক্ষার বাতিঘর হিসেবে আলো ছড়াচ্ছে। তাই এ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে শিক্ষা নিয়ে অনেকেই আজ নামীদামী চিকিৎসক, প্রকৌশলী, সামরিক বড় কর্মকর্তা হয়েছেন। তিনি বলেন শুধুমাত্র ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, বড় কর্মকর্তা নয়, ভাল মানুষ হতে হবে। দেশের উন্নয়নে ও মানুষের কল্যাণে কাজ করতে হবে। তিনি রবিবার দুুপুরে নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলার সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী কলেজের দুই দিনব্যাপী সুবর্ণজয়ন্তী (৫০ বছরপূর্তি) উদযাপন উৎসবের দ্বিতীয় দিনের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে এ কথাগুলো বলেন। শহরের বিমানবন্দর সড়কে কলেজের সবুজ চত্বরে বর্ণাঢ্য ওই উৎসবের আয়োজন করা হয়।মন্ত্রী আরো বলেন, আমাদের সোনার দেশ স্বপ্নের বাংলাদেশের জন্ম দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু। একজন মানুষই সেদিন আমাদের জাগিয়ে তুলেছিলেন, তিনি সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আর আজ এই বাংলাদেশ শেখ হাসিনা নেতৃত্বে একটি সমৃদ্ধিশালী দেশ হতে চলেছে।সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন কমিটির সভাপতি ও কলেজের অধ্যক্ষ শাহ্ মো. আমির আলী আজাদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন নির্মাণাধীন পদ্মা সেতু’র প্রধান সমন্বয়ক, সৈয়দপুরের কৃতী সন্তান ও কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী মেজর জেনারেল আবু সাঈদ মো. মাসুদ, প্রাক্তন ছাত্র প্রকৌশলী জুলফিকার আলী বকুল, প্রফেসর ডা. নজরুল ইসলাম, ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (ক্রাইম অ্যান্ড অপারেশন) আবুল কালাম সিদ্দিক, প্রকৌশলী ড. মঞ্জুরুল হক, নীলফামারী জেলা প্রশাসক খালেদ রহীম, নীলফামারী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন, নীলফামারী পুলিশ সুপার জাকির হোসেন খান, সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোখছেদুল মোমিন, সৈয়দপুর রেলওয়ে জেলা পুলিশ সুপার সিদ্দিকী তাঞ্জিলুর রহমান, সৈয়দপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আখতার হোসেন বাদল, সৈয়দপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বজলুর রশীদ প্রমূখ।আলোচনা শেষে কলেজের অধ্যক্ষ ড. শাহ্ মো. আমির আলী আজাদ অতিথিবৃন্দের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতেই অতিথিদের ফুলের শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করা হয়। দুই দিনব্যাপী সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবের দ্বিতীয় দিনের অনুষ্ঠান মালায় আরো ছিল স্মৃতিচারণা, র‌্যাফেল ড্র, ব্যান্ড সংগীত।উল্লেখ যে, গত ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর দুই দিনব্যাপী জাকজমকপূর্ণ সুবর্ণজয়ন্তী উৎসবে প্রতিষ্ঠানের কয়েক হাজার প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রছাত্রীর পদচারণায় ঐতিহ্যবাহী সৈয়দপুর সরকারি কারিগরী কলেজ চত্বর দিনভর উৎসবমুখর হয়ে উঠেছিল। রবিবার গভীর রাতে শেষ হয় সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব-২০১৭।