Home » » বদরগঞ্জে ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি

বদরগঞ্জে ৬ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে চুরি

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম : 22 December, 2017 | 12:26:00 AM

আকাশ রহমান,বদরগঞ্জ প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব ঃ রংপুরের বদরগঞ্জে একই রাতে দুই দুটি বাজারের ৬ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দুর্ধর্ষ চুরি সংঘটিত হয়েছে। বুধবার (২০ডিসেম্বর) দিবাগত রাতে উপজেলার লোহানীপাড়া ইউনিয়নের মন্ডলের বাজার ও কাঁচাবাড়ী বাজারের পাহারাদারের উপস্থিতিতে এ চুরির ঘটনা ঘটে। এব্যাপারে বদরগঞ্জ থানায় পৃথক পৃথক ৪টি এজাহার দায়ের করা হয়েছে। থানা পুলিশ ও এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, বুধবার রাতে লোহানীপাড়া ইউনিয়নের কাঁচাবাড়ী বাজারের লোকজন প্রয়োজন শেষে বাসায় চলে যায়। এই সুযোগে গভীর রাতে অজ্ঞাতনামা সংঘবদ্ধ চোর ওই বাজারের হার্ডওয়্যার ও মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়ী মাহফুজার রহমানের দোকানের শার্টারের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে ক্যাশ বাক্সে রাখা নগদ ১লাখ ২০হাজার টাকা, ৩টি মোবাইল ফোন, বিভিন্ন মেশিনারীজ পার্টসসহ প্রায় ২লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। একই ভাবে মনোয়ারুল ইসলাম নামে অপর একজন হার্ডওয়্যার ও মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবসায়ীর দোকানে চোরেরা একই কায়দায় ঢুকে ক্যাশ বাক্সের ১লাখ ৩৫হাজার টাকা, মোবাইল কার্ড ও দুটি মোবাইল ফোনসহ প্রায় ১লাখ ৬৫হাজার টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। এছাড়াও চোরেরা কাপড় ব্যবসায়ী মোশারফ হোসেন দর্জির দোকানে প্রবেশ করে ১লাখ ৬৮হাজার টাকার বিভিন্ন প্রকার দেশী বিদেশী কাপড় চুরি করে। পরদিন সকালে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ী ও এলাকাবাসী বাজারের পাহারাদার মনতাজ আলীকে এই ব্যাপারে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি দোকান চুরির ব্যাপারে কোন কিছু বলার আগেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। অপরদিকে ওই ইউনিয়নের মন্ডলেরহাট বাজারের মোবাইল ব্যাংকিং ও স্টুডিও ব্যবসায়ী শিবলু লোহানী সাংবাদিকদের জানান, বুধবার রাতে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে বাসায় চলে যাই। বৃহস্পতিবার ভোর রাতে লোক মুখে শুনতে পাই আমার দোকানে চুরি সংঘটিত হয়েছে। ঘটনাস্থলে এসে দেখি গভীর রাতে চোরেরা আমার দোকানের শার্টারের তালা ভেঙ্গে ভিতরে প্রবেশ করে মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ২০হাজার টাকা, দুটি অত্যাধুনিক মডেলের ক্যামেরা, রবি কোম্পানীর ২০টি সিমসহ প্রায় ৮০হাজার টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেছে। শুধু তাই নয়, ওই রাতে মন্ডলেরহাট বাজারের মুদি ব্যবসায়ী গোলাম রব্বানী ও ওষুধ ব্যবসায়ী মনারুল হকের দোকানের শার্টারের তালা ভেঙ্গে বেশ কিছু মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। এবিষয়ে কাঁচাবাড়ী বাজারের ব্যবসায়ী মাহফুজার জানান, আমাদের কাঁচাবাড়ী বাজারে পাহারাদার থাকা সত্ত্বেও এই দুর্ধর্ষ চুরি হয়েছে। চুরি সংঘটিত হওয়ার পর থেকে পাহারাদার মনতাজ আলীর কাছ থেকে এখন পর্যন্ত কোন রহস্য উদ্ঘাটন করা সম্ভব হয়নি। এরই মধ্যে আমরা ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা বদরগঞ্জ থানায় অজ্ঞাত চোরের নামে পৃথক পৃথক ৪টি এজাহার দায়ের করেছি।