Home » » নবাবগঞ্জে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে হত্যা ॥ স্বামী পলাতক

নবাবগঞ্জে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে হত্যা ॥ স্বামী পলাতক

চিলাহাটি ওয়েব ডটকম News Editor : 24 May, 2017 | 12:19:00 AM

আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি,চিলাহাটি ওয়েব : দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলার দেবিপুর গ্রামে স্বামী কর্তৃক স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা। আতœহত্যা বলে চালানোর চেষ্টা। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, দিনাজপুর জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার দেবিপুর গ্রামের রেফাজ উদ্দিনের পুত্র মোঃ এজাউন এর সাথে গত ৫ বছর আগে ফুলবাড়ী উপজেলার দক্ষিণ বাসুদেবপুর গ্রামের রজব আলীর পুত্র মোঃ সাইফুল ইসলাম এর কন্যা মোছাঃ সাবিনা খাতুন (২১) এর সাথে পারিবারিক ভাবে বিবাহ হয়। বিবাহ হওয়ার পর তাদের সংসারে ১টি পুত্র সন্তান জন্মলাভ করে। পারিবারিক ভাবে তাদের বিবাহ হলেও স্বামীর সংসারে স্ত্রীর সাথে স্বামীর প্রায় বিবাদ লেগে থাকত। গত ২২শে মে বিকেল ৩টা ১০ মিনিটে সাবিনা খাতুনের শ্বশুর বাড়ি থেকে সাবিনার স্বামী মোঃ এজাউন তার মৃত্যুর সংবাদ দিলে মোছাঃ সাবিনা খাতুনের পিতা মোঃ সাইফুল ইসলাম ওরফে ফুল লোকজন নিয়ে দেবীপুর গ্রামে যান। সেখানে গিয়ে ঘরের জানালা দিয়ে দেখতে পান ঘরের ফ্যানের সাথে ওড়না পেঁচিয়ে তার মেয়ের লাশ ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। এ সময় আফতাবগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়িতে খবর দিলে তারা নবাবগঞ্জ থানাকে জানান। নবাবগঞ্জ থানার পুলিশ ও আফতাবগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ঘরের দরজা ভেঙ্গে মোছাঃ সাবিনা খাতুনের লাশ ফ্যান থেকে নামান। লাশ উদ্ধার করে নবাবগঞ্জ উপজেলার আফতাবগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়িতে আনেন। গতকাল মঙ্গলবার সকাল ১০টায় লাশ ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর মর্গে প্রেরণ করেন। এ ব্যাপারে নবাবগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ শুভ্রত কুমার সরকারের সাথে গতকাল মঙ্গলবার হত্যার বিষয়ে কথা বললে তিনি জানান, আমরা গত ২২শে মে বিকেল ৩টায় খবর পেয়ে সেখানে গিয়ে দরজা ভেঙ্গে ঘরের ফ্যান থেকে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করি। তবে লাশের ময়নাতদন্তের রিপোর্ট ছাড়া হত্যা, না আত্মহত্যা করেছে তা বলা সম্ভব হচ্ছে না। তবে ময়নাতদন্তে কোন হত্যার চিহ্ন পাওয়া গেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে ঐ বাড়ির সকলে পালিয়ে যায়। তবে ধারণা করা হচ্ছে তারা হত্যা করে সাবিনা খাতুনের লাশ ফ্যানে ঝুলিয়ে রেখে আতœহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করছেন।
শেয়ার করুন :